ঝালকাঠিতে গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে ১১ টি ঘর ভস্মিভুত, আহত ২০

প্রকাশিত: ৩:১১ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ২৬, ২০১৮ | আপডেট: ৩:১১:পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ২৬, ২০১৮

ঝালকাঠিতে গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে অগ্নিকান্ডে ১১ টি ঘর ভস্মিভুত হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৮ টার দিকে শহরের পুরাতন কলাবাগান এলাকার মিল্টন এর ভাড়াটিয়ার ঘরে এ দুর্ঘটনা ঘটে। স্থানীয়দের সহায়তায় ফায়ারসার্ভিসের দমকল বাহিনী প্রাণপন চেষ্টা চালিয়ে ১০ টার দিকে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। এতে স্থানীয়দের মধ্যে অস্তত ২০ জন আহত হয়ে সদর হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছে।
ঝালকাঠি জেলা প্রশাসক মোঃ হামিদুল হক ও জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক অ্যাডভোকেট খান সাইফুল­াহ পনির, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ আতাহার মিয়া, কাউন্সিলর নাসিমা কামাল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের মধ্যে ত্রাণ সামগ্রী এবং নগদ অর্থ প্রদান করা হয়েছে।
জেলা আওয়ামীলীগের পক্ষ থেকে সাধারন সম্পাদক অ্যাডভোকেট খান সাইফুল­াহ পনির ক্ষতিগ্রস্তদের রাতের খাবারের ব্যবস্থা করেন। ক্ষতিগ্রস্তদের থাকার জন্য পুরাতন কলাবাগান সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় কক্ষে ব্যবস্থা করা হয়েছে।
ফায়ারসার্ভিসের দমকলবাহিনী ও সদর থানার এসআই দেলোয়ার জানান, আনুমনিক রাত সাড়ে ৮ টার দিকে শহরের কলাবাগান এলাকার মিল্টন’র ভাড়াটিয়া বাসায় গ্যাস সিলিন্ডারের মাধ্যমে আগুনের সূত্রপাত হয়। মুহুর্তের মধ্যেই আগুন ছড়িয়ে পড়ে। এতে ১১ টি ঘর সম্পূর্ণ ভস্মিভুত হয়ে যায়। স্থানীয়দের সহায়তায় ফায়ার সার্ভিসের দমকলবাহিনী ঘটনাস্থলে পৌছে আগুন নিয়ন্ত্রণ করে। স্থানীয়দের মধ্যে অন্তত ২০ জন এতে আহত হয়েছে। আহতরা সদর হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছে।
জেলা প্রশাসক মোঃ হামিদুল হক জানান, জেলা প্রশাসনের ত্রাণ তহবিল থেকে অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্তদের মধ্যে মুড়ি, চিড়া, ডাল, তেল, গুড়, বিস্কুটসহ শুকনা খাবার সামগ্রী প্রদান করা হয়েছে। প্রতিটি ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারকে ৩ হাজার টাকা করে নগদ অর্থ সহায়তা করা হয়েছে। তাদের থাকার জন্য আপাতত পুরাতন কলাবাগান এলাকার সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ব্যবস্থা করা হয়েছে।
জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক অ্যাডভোকেট খান সাইফুল­াহ জানান, অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য রাতের ও পরবর্তি দুপুরের খাবারের ব্যবস্থা করা হয়েছে। জেলা প্রশাসনের দেয়া শুকনা খাবার সকালে এবং যথাসময়ে তারা আহার করতে পারবে।