শেবাচিম হাসপাতাল নার্সদের বিরুদ্ধে দায়িত্ব অবহেলার অভিযোগ !

প্রকাশিত: ৯:৫৭ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২৫, ২০১৮ | আপডেট: ১০:১০:অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২৫, ২০১৮
SONY DSC

কাওসার মাহমুদ মুন্না ॥ বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মহিলা মেডিসিন ওয়ার্ডে কর্তব্যরত নার্সদের বিরুদ্ধে দায়িত্ব অবহেলার অভিযোগ উঠেছে। প্রায় প্রতিদিনই ওই ওয়ার্ডের রোগীদের কাছ থেকে নার্সদের বিরুদ্ধে অভিযোগ আসছে পরিচালকের কাছে।

সর্বশেষ গত মঙ্গলবার মহিলা মেডিসিন ওয়ার্ডে খোদ শেবাচিমের উপ-পরিচালক আব্দুর রাজ্জাকের ভাইয়ের মেয়ে চরম অবহেলার শিকার হয়েছেন। এ ঘটনায় শেরেবাংলা হাসপাতালের পরিচালক বরাবরে অভিযোগ দেয়া হয়েছে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, গত মঙ্গলবার নগরীর বৈদ্যপাড়া এলাকার মোঃ ইউসুফের মেয়ে মনামী আক্তার (১৮) মহিলা মেডিসিন ওয়ার্ডে ভর্তি হয়। ভর্তির পরে তাকে সেফটিআক্সন ইনজেকশন দেয়ার পরামর্শ দেন চিকিৎসক। রাত ৮টার দিকে ইনজেকশন দেয়ার কথা থাকলেও রাত ২টায়ও ইনজেকশন দেয়া হয়নি। পরে রোগী বেশি অসুস্থ হয়ে পড়লে রোগীর স্বজনরা কর্তৃব্যরত ডাক্তারকে অবহিত করেন। এসময় চিকিৎসকরা নার্সদের ডেকে জানতে চান কেন ইনজেকশন দেয়া হয়নি। এসময় নার্সরা জানান, ইনচার্জ ওষুধ কোথায় রেখে গেছে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছেনা। পুনরায় চিকিৎসকরা ওষুধ লিখে দেয়ার পর বাইরে থেকে কিনে আনা হয়।

বিষয়টি রোগীর স্বজনরা উপ-পরিচালক ডাঃ আব্দুর রাজ্জাককে অবহিত করেন। নার্সদের অবহেলার বিষয়টি পরিচালককে অবহিত করলে তিনি গতকাল সেবা তত্ত্বাবধায়ক রশিদা বেগম ও ওয়ার্ড ইনচার্জ পুতুলকে ডেকে পাঠান।

এ ব্যাপারে উপ-পরিচালক ডাঃ আব্দুর রাজ্জাকের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, দায়িত্বে অবহেলার বিষয়টি সঠিক। কারণ নির্ধারিত সময়ে রোগীকে ইনজেকশন পুশ করার দায়িত্ব ছিলো নার্সদের। কিন্তু তারা সেই দায়িত্ব পালন করেননি।
সেবা তত্ত্বাবধায়ক রাশিদা বেগম বলেন, ওষুধ আমি ওয়ার্ডে রেখে গিয়েছিলাম। কিন্তু নার্স তা খুঁজে পায়নি।