বাবা-ভাই হারানো মেয়েটির দায়িত্ব নিলেন সাংসদ

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ৭:৫৯ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ২৫, ২০১৮ | আপডেট: ৭:৫৯:পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ২৫, ২০১৮

চাঁদপুর-কুমিল্লা আঞ্চলিক সড়কের চাঁদপুরের হাজীগঞ্জের গোঘড়ায় সোমবার ভোরে সড়ক দুর্ঘটনায় বাবা-ভাই হারানো শাহরাস্তি উপজেলার টামটা দক্ষিণ ইউনিয়নের উয়ারুক গ্রামের বাসিন্দা নুহা আক্তারের দায়িত্ব নিয়েছেন স্থানীয় সংসদ সদস্য মেজর (অব.) রফিকুল ইসলাম বীর উত্তম।

বুধবার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. হাবিব উল্লাহ মারুফ নুহার বাড়িতে গিয়ে বিষয়টি নিশ্চিত করেন। নুহা আক্তার এবার উয়ারুক রহমানিয়া উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নেবে।

সোমবার ভোরে কুমিল্লা-চাঁদপুর মহাসড়কের বাকিলা এলাকায় কাভার্ড ভ্যানের চাপায় সিএনজিচালিত অটোরিকশায় থাকা নুহার বাবা এলেম হোসেন ও ভাই একরাম হোসেনসহ তিনজন ঘটনাস্থলে নিহত হন। এলেম হোসেন ও একরাম হোসেন ছিলেন পরিবারের একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যক্তি। তাদের হারিয়ে পরিবারটির এখন পথে বসার উপক্রম হয়েছে। পরিবারে পুরুষ সদস্য বলতে কেউ রইল না। এমন সংবাদ পেয়েই মেজর (অব.) রফিকুল ইসলাম বীরউত্তম এ মহত কাজটি করেন।

বুধবার ইউএনও হাবিব উল্লাহ মারুফ নুহার বাড়িতে গিয়ে জেলা প্রশাসকের কার্যালয় থেকে তাদের পরিবারকে ৪০ হাজার টাকা অনুদান দেন। ইউএনও বলেন, পরিবারটি একেবারই অসহায় হয়ে পড়েছে। তাদেরকে সরকারি খরচে একটি ঘর করে দেয়া হবে, বিধবা ভাতার ব্যবস্থা করা হবে। স্থানীয় সাংসদ ছোট মেয়ে নুহার পড়ালেখার খরচ চালানো দায়িত্ব নিয়েছেন। তিনি সবসময় এ পরিবারটির পাশে থাকবেন বলে জানিয়েছেন।