ব্যারিস্টার মইনুলকে বয়কটের আহ্বান প্রতিমন্ত্রী চুমকির

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ১০:৪৮ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১৮, ২০১৮ | আপডেট: ১০:৪৮:অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১৮, ২০১৮

টেলিভিশনের আলোচনা অনুষ্ঠানে এক নারী সাংবাদিককে নিয়ে কটূক্তির জন্য ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনকে ‘বয়কট’ করতে নারীদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি।

বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ শিশু একাডেমি মিলনায়তনে নারী ও শিশুর প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধে জাতীয় কর্মপরিকল্পনা (২০১৮-২০৩০) বিষয়ে এক আন্তঃমন্ত্রণালয় সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, সাংবাদিক মাসুদা ভাট্টির প্রতি ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনের আচরণ অত্যন্ত অশোভন, কুরুচিপূর্ণ ও নারী সমাজের প্রতি অসম্মানজনক। আমি এ ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই। ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনকে বয়কট করতে নারী সমাজের প্রতি আহ্বান জানাই।

মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব নাছিমা বেগমের সঞ্চালনায় এই সময় প্রায় ৪৪টি মন্ত্রণালয় ও বিভাগের প্রতিনিধিরা অংশ নেন।

প্রসঙ্গত, গত ১৬ অক্টোবর মধ্যরাতে বেসরকারি টেলিভিশন একাত্তর টিভিতে সরাসরি সম্প্রচারিত একটি অনুষ্ঠানে ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন দৈনিক আমাদের অর্থনীতির নির্বাহী সম্পাদক মাসুদা ভাট্টিকে ‘চরিত্রহীন’ বলে গালি দেন। এই বিষয়ে সর্বস্তরে সমালোচনার ঝড় ওঠে।

এদিকে সমালোচনার প্রেক্ষাপটে বৃহস্পতিবার ইংরেজি দৈনিক নিউ নেশনের প্যাডে একটি লিখিত ব্যাখ্যা গণমাধ্যমে পাঠিয়েছেন পত্রিকাটি সম্পাদকমণ্ডলীর সভাপতি মইনুল হোসেন।

তিনি লিখেছেন, ওই মন্তব্যের জন্য তিনি টেলিফোনে মাসুদা ভাট্টির কাছে দুঃখ প্রকাশ করেছিলেন। কিন্তু তারপরও ‘মহলবিশেষ’ তার বিরুদ্ধে ‘অশালীন ভাষায়’ বক্তব্য দেওয়ায় বিষয়টি ব্যাখ্যা করা প্রয়োজন বলে তিনি মনে করছেন।

তিনি আরো লিখেন, মাসুদা ভাট্টি আমার রাজনৈতিক সত্তা ও সততা নিয়ে দারুণ আপত্তিকর ও অবমাননাকর বক্তব্য রেখেছেন। তাই আমিও তার সাংবাদিকতার নিরপেক্ষ চরিত্র নিয়ে মন্তব্য করেছি। তাকে আমি ব্যক্তিগতভাবে জানি না, তাই তার ব্যক্তিগত চরিত্র সম্পর্কে কিছু বলারও প্রশ্ন ওঠে না।

ব্যারিস্টার মইনুল লিখেছেন, সাংবাদিক মাসুদা ভাট্টি বলেছেন, লোকে আমাকে সেইভাবে দেখে বলেই তিনি বলেছেন। কিন্তু ফেইসবুকে মাসুদা ভাট্টির ব্যক্তিগত চরিত্র সম্পর্কে জঘন্য ধরনের মন্তব্য করা হচ্ছে। এসব বিষয় উল্লেখ করে আমি তো তার সম্পর্কে কোনো মন্তব্য করছি না।