ব্যারিস্টার মইনুলের শাস্তি দাবি নারী সাংবাদিকদের

বয়কটের আহ্বান চুমকির

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ১০:৪৪ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১৮, ২০১৮ | আপডেট: ১০:৪৪:অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১৮, ২০১৮

টেলিভিশন টক শোতে সাংবাদিক মাসুদা ভাট্টিকে ‘চরিত্রহীন’ বলায় ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনকে প্রকাশ্যে নিঃশর্ত ক্ষমা চাওয়ার দাবি জানিয়েছেন নারী সাংবাদিকরা। অন্যথায় তার শাস্তির দাবি উঠেছে। একই সঙ্গে ভবিষ্যতে মইনুল হোসেনকে এ রকম ব্যক্তিগত আক্রমণ থেকে বিরত থাকতে বলা হয়।

বৃহস্পতিবার জাতীয় প্রেস ক্লাবে এক প্রতিবাদ সভায় বাংলাদেশ নারী সাংবাদিক কেন্দ্রের সভাপতি নাসিমুন আরা হক মিনু এ আহ্বান জানান। এ সময় তার বিরুদ্ধে আইনের আশ্রয় নেওয়ার হুশিয়ারিও দেওয়া হয়েছে।

অনুষ্ঠানে দৈনিক আমাদের অর্থনীতির জ্যৈষ্ঠ সহকারী সম্পাদক মাসুদা ভাট্টি ছাড়াও বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সহ-সভাপতি সৈয়দ ইশতিয়াক রেজা, নারী সাংবাদিক কেন্দ্রের সাধারণ সম্পাদক পারভীন সুলতানা ঝুমা, বাংলাদেশ নারী সাংবাদিক সমিতির সভাপতি নাছিমা আক্তার সোমা, সাধারণ সম্পাদক আঞ্জুমান আরা শিল্পী, সাংবাদিক মুন্নী সাহা, আঙ্গুর নাহার মন্টি, মিথিলা ফারজানা, নাসিমা খান মন্টি, শাহনাজ মুন্নী, ফারজানা রূপা প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

গত ১৬ অক্টোবর একাত্তর টেলিভিশনের টকশো ‘একাত্তরের জার্নাল’ এ ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনকে সাংবাদিক মাসুদা ভাট্টি প্রশ্ন করেন, ‘জাতীয় ঐক্যফ্রন্টে আপনি কিভাবে উপস্থিত থাকেন? আপনি বলেছেন আপনি নাগরিক হিসেবে উপস্থিত থাকেন। কিন্তু সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অনেকেই বলছেন, আপনি জামায়াতের প্রতিনিধি হয়ে সেখানে উপস্থিত থাকেন।’ মাসুদা ভাট্টির এই প্রশ্নে রেগে গিয়ে মইনুল হোসেন বলেন, ‘আপনার দুঃসাহসের জন্য আপনাকে ধন্যবাদ দিচ্ছি। আপনি চরিত্রহীন বলে আমি মনে করতে চাই। আমার সঙ্গে জামায়াতের কানেকশনের কোনো প্রশ্নই নেই। আপনি যে প্রশ্ন করেছেন তা আমার জন্য অত্যন্ত বিব্রতকর।’ এ ঘটনার পর নারী সাংবাদিকরা ক্ষুব্দ হয়ে ওঠেন। তারা ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনকে প্রকাশ্যে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান জানান।

নাসিমুন আরা হক মিনু বলেন, ‘তিনি মাসুদা ভাট্টিকে আক্রমণ করতে গিয়ে সব নারীকে অপমান করেছেন এবং এজন্য তার যথাযথ শাস্তি আমরা দাবি করছি।’ প্রতিবাদ সভায় এক খোলাচিঠিতে মাসুদা ভাট্টি বলেন, ‘আমার দীর্ঘ কর্মজীবনের অভিজ্ঞতা দিয়েই বুঝেছি যে, যুক্তিহীন মানুষই সাধারণত ব্যক্তিগত আক্রমণ করে। একজন নারীর ক্ষেত্রে বিষয়টি সবসময়ে তার চরিত্রকে নির্দেশ করে আক্রমণ করা হয়। দুঃখজনক হলেও সত্য যে, আপনিও তার ব্যতিক্রম নন।’

মইনুলকে বয়কটের আহ্বান চুমকির: ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনকে বয়কট করতে নারী সমাজের প্রতি আহবান জানিয়েছেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি। সাংবাদিক মাসুদা ভাট্টির প্রতি আপত্তিকর আচরণের প্রতিবাদে প্রতিমন্ত্রী এ আহবান জানান।

বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ শিশু একাডেমি মিলনায়তনে নারী ও শিশুর প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধে জাতীয় কর্মপরিকল্পনা (খসড়া) (২০১৮-২০৩০) বিষয়ে এক আন্তঃমন্ত্রণালয় সভায় সভাপতির বক্তৃতায় তিনি মঈনুল হোসেনকে সকল নারী সমাজের কাছে ক্ষমা চাওয়ার কথা বলেন।

আরও নিন্দা: মাসুদা ভাট্টিকে অশ্নীল কথা বলায় তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানিয়েছেন জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান কাজী রিয়াজুল হক। এ জন্য ব্যরিস্টার মইনুল হোসেনের ক্ষমা চাওয়া উচিত বলে তিনি মন্তব্য করেন। আইন ও সালিশ কেন্দ্রের (আসক) নির্বাহী পরিচালক শীপা হাফিজা এক বিবৃতিতে এ ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান।