‘দেবী’র সঙ্গে ‘মিসির আলি’ প্রথমবার

এ আল মামুন এ আল মামুন

বিনোদন প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ২:১৬ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ১৭, ২০১৮ | আপডেট: ২:১৬:পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ১৭, ২০১৮

নন্দিত কথাসাহিত্যিক হুমায়ূন আহমেদের রহস্যময় উপন্যাস ‘মিসির আলি’ সিরিজ অবলম্বনে ও সরকারি অনুদানে নির্মিত বহুল আলোচিত ছবি ‘দেবী’ মুক্তি পাচ্ছে আগামী ১৯ অক্টোবর শুক্রবার। আর এর মাধ্যমেই প্রথমবার পর্দায় দর্শকদের সামনে হাজির হচ্ছেন গল্পের প্রধান চরিত্র ‘মিসির আলি’। এ রুপে দেখা যাবে চঞ্চল চৌধুরীকে। অন্যান্য চরিত্র রানু রুপে অভিনয় করেছেন জয়া আহসান, তাঁর স্বামী আনিসের চরিত্রে দেখা যাবে অনিমেষ আইচকে। এ ছাড়াও আহমেদ সাবেরের চরিত্রে ইরেশ যাকের ও নীলু চরিত্রে শবনম ফারিয়া অভিনয় করেছেন।

জয়া আহসানের প্রতিষ্ঠান ‘সি তে সিনেমা’র প্রথম প্রযোজনার এ ছবিটি পরিচালনা করেছেন অনম বিশ্বাস এবং পরিবেশনায় রয়েছে জাজ মাল্টিমিডিয়া। আগামী ১৯ অক্টোবর শুক্রবার ছবিটি মুক্তি পাবে।

সোমবার (১৫ অক্টোবর) রাতে রাজধানীর ‘ঢাকা ক্লাব’-এ এক সংবাদ সম্মেলনে এ ঘোষণা দেওয়া হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন তথ্য মন্ত্রী হাসানুল হক ইনু। নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে ছবি শেষ করায় প্রযোজক ও অভিনেত্রী জয়া আহসানকে ধন্যবাদ জানিয়ে তিনি বলেন, ‘জয়া অনেক সাহসিকতার সঙ্গে সিনেমাটি নির্মাণ করেছেন। আমি ‘দেবী’র সাফল্য কামনা করছি।’

“হুমায়ূন আহমেদের যতগুলো গল্প-উপন্যাস আর সাহিত্যকর্ম রয়েছে তারমধ্যে ‘মিসির আলি’ অন্যতম। আর ‘মিসির আলি’র যতগুলো সিরিজ আছে তারমধ্যে সবচেয়ে বেশি ভয় লাগে ‘দেবী’ পড়লে। সেই ভয়টা পর্দায় ফুটিয়ে তুলতে পেরেছেন কী? জাজ মাল্টিমিডিয়ার কর্ণধর আব্দুল আজিজের এমন প্রশ্নের জবাবে পরিচালক অনম বিশ^াস বলেন, ‘মিসির আলি’-কে আমরা এর আগে বড় পর্দায় দেখিনি। তাই চ্যালেঞ্জটা একটু বেশি ছিলো। যেহেতু এরআগে ‘মিসির আলি’-কে পর্দায় দেখা যায়নি তাই তাকে কল্পনা থেকে উপস্থাপন করা হয়েছে। আমি মনে করি সবাই প্রেক্ষাগৃহে গিয়ে ছবিটি দেখবেন। তবেই বোঝা যাবে কাজের স্বার্থকতা।”

প্রযোজক ও অভিনেত্রী জয়া আহসান বলেন, ‘আমি কৃতজ্ঞ প্রথমবার কাজের সুবাদেই আমি প্রযোজনার সুযোগ পেয়েছি। অনুদান কমিটি আমাকে যে সহযোগিতা করেছেন তা অবর্ণনীয়। এখন দর্শকদের বলবো হলে এসে ছবিটি দেখুন। কারণ আপনাদের সাঁড়া পেলে আমাদের মতো নতুন প্রযোজক বাঁচবে। তবেই আরো নতুন নতুন ছবি নির্মাণ করতে পারবো।’

‘দেবী’ ও ‘মিসির আলি’ প্রসঙ্গে চঞ্চল চৌধুরী বলেন, ‘পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশের আগের রাতে একজন পরীক্ষার্থীর যেমন লাগে আমারও ঠিক তেমনই লাগছে। শেষ কবে ঠিক মতো ঘুমিয়েছি জানি না। ছবি মুক্তির দিন যত ঘনিয়ে আসছে, রাতের ঘুম তত হারাম হয়ে যাচ্ছে।’

তিনি বলেন, ‘‘মিসির আলি হয়ে উঠতে অনেক পরিশ্রম করতে হয়েছে আমাকে। একটানা ছয় ঘন্টা ব্যয় হয়েছে শুধু কাঁচা-পাঁকা চুলের জন্য। পরিশেষে ‘মিসির আলি’ চরিত্রে অভিনয় করে অনেক ভালো লাগছে। যারা হুমায়ুন আহমেদের গল্প পছন্দ করেন, আমার অভিনয়ের উপর বিশ্বাস আছে। তারা সিনেমাটি দেখবেন।’’

এ ছাড়াও অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন পরিচালক সমিতির সভাপতি মুশফিকুর রহমান গুলজার, অভিনেত্রী শবনম ফারিয়া, অনিমেষ আইচ, প্রীতম হাসানসহ চলচ্চিত্রের শিল্পী, কলাকুশলী, পরিবেশক ও বিভিন্ন প্রিন্ট-অনলাইন এবং ইলেকট্রনিক্স মিডিয়ার কর্মীরা।

লেখা সংগ্রঃ এসএম শাফায়েত: