মাদক সেবনে বাধা দেয়ায় মাদ্রাসা কর্মচারীকে কুপিয় জখম

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ৭:৫৫ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৮, ২০১৮ | আপডেট: ৮:৫৪:অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৯, ২০১৮
মাদক সেবনে বাধা দেয়ায় মাদ্রাসা কর্মচারীকে কুপিয় জখম

‌নিজস্ব প্রতিবেদক।।

মাদক সেবনে বাধা দেয়ায় রুহুল আমিন ৪৫ নামে এক মাদ্রাসা কর্মচারীকে হত্যার উদ্দেশ্যে কুপিয় জখম করেছে স্থানীয় সন্ত্রাসীরা। সোমবার বিকাল চারটায় তালতলীতে এ ঘটনা ঘটে।

 

আহতেক উদ্ধার করে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহত সূত্রে জানাযায়, তালতলীর হরিন খোলা গ্রামের বাসিন্দা  ছোমেদ মোল্লার নেতৃেত্বে ওই গ্রামের জসিম মোল্লা, আলাউদ্দি ওরফে আলেক নুর, ও মেহেদী হাসান অতর্কিতভাবে রুহুল আমি কে ধারালো দেশীয় অস্ত্রদিয়ে কুপিয় জখম করে। আলাউদ্দি ওরফে আলেক নুর, ও মেহেদী হাসান দীর্ঘ দনি এলাকায় মাদকের ব্যবসা ও সেবন করে আসছে। স্থানীয় এসডিএফ নামে একটি সমিতির কার্যলয়ে তাদের এ অপর্কম করেন। এর পরে সন্ত্রাসীরা রুহুল আমিনের বাড়িতে যেয়ে অকথ্য ভাষায় গালাগাল করে।

এতে বাধা দেয়ায় ওই সন্ত্রসীরা ক্ষিপ্ত হয়। পরে সোমবার বিকলে ওই সন্ত্রাসীরা দেশীয় অস্ত্রনিয়ে রুহুল আমিনকে কুপিয়ে জখম করে। এর আগে রুহুল আমিনকে হত্যার হুমকি দিলে ওই সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধ বরগুনা অতিরিক্ত জেলা মেজিস্ট্রেট আদালতে একটি মামলা করেন।

 

এদিকে সন্ত্রসী জসিমের বিরুরুদ্ধে আরো কয়েকটি মামলা এবং সে কিছুদিন জেলেও ছিল বলে জানাগেছে। আহত রুহুল আমিনের অবস্থা আসংকা জনক বলে জানিয়েছেন চিকিৎসক।