মঠবাড়িয়ায় স্কুল-মাদ্রাসার গ্রীষ্মকালীন ফুটবল খেলায় হামলা ॥ ৬ শিক্ষার্থী আহত

প্রকাশিত: ৬:০৬ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ৭, ২০১৮ | আপডেট: ৬:০৬:অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ৭, ২০১৮

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় আজ শুক্রবার ৪৭তম স্কুল-মাদ্রাসা গ্রীষ্মকালীন ক্রীড়া ফুটবল খেলায় সাপলেজা মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ক্রীড়া শিক্ষক ও বহিরাগতদের হামলায় গুলিসাখালী জি.কে ইউনিয়ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ছয় শিক্ষা আহত হয়েছে। আহতদের উদ্ধার করে মঠবাড়িয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। আহতরা হলো গুলিসাখালী জি.কে ইউনিয়ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ছাত্র মোঃ রাসুল (১৪), শুভজিৎ (১৪), শাহরিয়ার হাচান হৃদয় (১৪) মোঃ তানভীর (১৬), শফিকুল ইসলাম (১৬), ও মোঃ শহীদুল ইসলাম (১৬)।

আহত ও ওই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কমল চন্দ্র বিশ্বাস জানান, আজ শুক্রবার বেলা ১২টায় পৌর শহরের শহীদ মোস্তফা খেলার মাঠে উপজেলার গুলিসাখালী জি.কে ইউনিয়ন মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও সাপলেজা মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মাঝে ৪৭তম স্কুল-মাদ্রাসা গ্রীষ্মকালীন ক্রীড়া ফুটবল খেলা ছিল। খেলা শুরুর ১৫ মিনিটের মধ্যে তার বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী খেলোয়াড়রা একটি গোল দেয়। গোল দেয়ার পর উভয় স্কুলের দুই শিক্ষার্থীর মাঝে ভুলবোঝাবুঝি হয় এবং রেফারী তা মিমাংস করে দেয়। এর কিছুক্ষণ পর সাপলেজা মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ক্রীড়া শিক্ষক মোঃ জামাল হোসেন মাঠে প্রবেশ করে তার বিদ্যালয়ের একজন খেলোয়ার শিক্ষার্থীকে মারধর শুরু করলে বহিরাগত সমর্থকরা অন্যান্য খেলোয়ার শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা চালায়। এতে গুলিসাখালী জি.কে ইউনিয়ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ছয় শিক্ষা আহত। এব্যাপারে অভিযুক্ত শিক্ষক জামাল হোসেনের মুঠোফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি।