সারা দেশে জাতীয় শোক দিবস পালিত

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ৭:০৩ অপরাহ্ণ, আগস্ট ১৫, ২০১৮ | আপডেট: ৭:২৭:অপরাহ্ণ, আগস্ট ১৫, ২০১৮

কুয়াকাটায় যথাযথ মর্যাদায় জাতীয় শোক দিবস পালিত ॥
কুয়াকাটা প্রতিনিধি ॥

কুয়াকাটায় বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও সংগঠনের নানা আয়োজনে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৩তম শাহাদত বার্ষিকী পালিত হয়েছে। বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন, শোকর‌্যালি, আলোচনা সভা ও মিলাদ মাহফিরের আয়োজন করে প্রতিষ্ঠান ও সংগঠনগুলো।বুধবার সকাল ৮টায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করে মিশ্রিপাড়া ফাতেমা হাই মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও মিশ্রিপাড়া সরকারি প্রাথমিক দ্যিালয়ের শিক্ষক-শিক্ষিকা, ছাত্র-ছাত্রী, অভিভাবক ও ম্যানেজিং কমিটির সদস্যরা। এরপর একটি বিশাল শোকর‌্যালি বের হয়ে মিশ্রিপাড়া বাজার ঘুরে এসে বিদ্যালয়ের হলরুমে শেষ হয়। পরে একটি আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এসময় বিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থী ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন রেডক্রিসেন্ট সোসাইটির ইউনিয়ন টিম লিডার মো. শফিকুল আলম, ম্যানেজিং কমিটির সদস্য কুদ্দুস সিকদার, সুলতান বেপারী, আব্দুল আজিজ বেপারী, জসিম উদ্দিন, সাবেক সদস্য জয়নাল বেপারী প্রমুখ। আলোচনা সভা শেষে মিলাদ মাহফিল ও দোয়া মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়।সকাল ৯টায় লতাচাপলী ইউনিয়ন পরিষদ ও লতাচাপলী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করে একটি শোকর‌্যালি বের করে। র‌্যালিটি মৎস্য বন্দর আলীপুর বাজারের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে লতাচাপলী ইউনিয়ন পরিষদে গিয়ে শেষ হয়। এরপরে হলরুমে আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন লতাচাপলী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি ডাঃ সিদ্দিকুর রহমান বিশ্বাস, সাধারণ সম্পাদক ও চেয়ারম্যান মো. আনছার উদ্দিন মোল্লা প্রমূখ। এছাড়া উপস্থিত ছিলেন, ইউনিয়ন পরিষদের সদস্যগণ, আওয়ামী লীগের ওয়ার্ড সভাপতি, সাধারণ সম্পাদকসহ আওয়ামী লীগের সহযোগি সংগঠনের নেতাকর্মীরা। আলোচনা সভা শেষে মিলাদ মাহফিল ও দোয়া মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়।বুধবার সকালে মহিপুর সদর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের আয়োজনে মহিপুর ইউনিয়ন পরিষদ, মহিপুর থানা যুবলীগ, জাতীয় শ্রমিক লীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, সদর ইউনিয়ন যুবলীগ, ছাত্রলীগসহ সহযোগি সংগঠনের বিভিন্নস্থরের নেতাকর্মীদের অংশগ্রহণে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়। পরে মৎস্য বন্দর মহিপুরে একটি বিশাল শোকর‌্যালি বের হয়। বুধবার বিকালে মহিপুর মধ্যবাজারে শেখ রাসের সেতুর নিচে আলোচনা সভা, মিলাদ মাহফিল ও দোয়া মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন, মহিপুর সদর ইউনিয়ন আ.লীগ সভাপতি ও চেয়ারম্যান আঃ সালাম আকন, সাধারণ সম্পাদক হাজী নুরুল ইসলাম হাওলাদার, মহিপুর থানা যুবলীগ আহ্বায়ক এ এম মিজানুর রহমান বুলেট, জাতীয় শ্রমিক লীগ সভাপতি নাহিদ আকন, সাধারণ সম্পাদক আবুল কালাম ফরাজী, ইউনিয়ন যুবলীগ আহ্বায়ক ফেরদৌস হাওলাদার সহ শতাধিক নেতা কর্মীরা।সকাল ৮ টায় কুয়াকাটা পৌর আওয়ামী লীগের উদ্যোগে একটি শোক র‌্যালী বের করা হয়। র‌্যালীটি কুয়াকাটার মহাসড়ক প্রদক্ষিণ শেষে দলীয় র্কাযালয়ে গিয়ে শেষ হয়। পরে পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও মেয়র আঃ বারেক মোল্লার সভাপতিত্বে এক আলোচনা সভা ও দোয়া মিলাদ অনুষ্ঠিত হয়। শোক দিবসের আলোচনা সভায় বক্তারা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর খুনিদের দেশে ফিরিয়ে এনে ফাঁসির রায় কার্যকর করার দাবি জানান।এ সময় আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন, কুয়াকাটা পৌর মেয়র আঃ বারেক মোল্লা, কুয়াকাটা ট্যুরিষ্ট পুলিশের পরিদর্শক মোঃ খলিলুর রহমান, পৌর প্যানেল মেয়র মোঃ পান্না মিয়া, পৌর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক অনন্ত মুখার্জী, বঙ্গবন্ধু মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক মোঃ খলিলুর রহমান, কুয়াকাটা মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক জসিম উদ্দিন, পৌর শ্রমিক লীগ সভাপতি মোঃ আব্বাস কাজী, কুয়াকাটা পৌর যুবলীগের আহবায়ক শেখ ইসাহাক আলী প্রমুখ। এর আগে সকালে জাতীয় পতাকা উত্তোলন ও স্থানীয় শহিদ মিনারে ফুল দিয়ে জাতির জনককে শ্রদ্ধাঞ্জালী জানান নেতাকর্মিরা।এছাড়াও কুয়াকাটা পৌর আওয়ামী লীগ, পৌরসভা, মহিপুর কো-অপ্ট মাধ্যমিক বিদ্যালয়, যুক্তিযোদ্ধা মেমোরিয়াল ডিগ্রি কলেজ, কুয়াকাটা বঙ্গবন্ধু মাধ্যমিক বিদ্যালয়, মুসুল্লীয়াবাদ ইসলামীয়া সিনিয়র মাদ্রাসা, কুয়াকাটা ইসলামপুর দাখিল মাদ্রাসা, লতাচাপলী সরকারি মডেল প্রাথমিক বিদ্যালয়সহ মহিপুর থানা ও কুয়াকাটা এলাকার সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জাতীয় শোকদিবসটি যথাযোগ্য মর্যাদায় পালন করেছে। # #

 

আত্রাইয়ে নানা কর্মসূচীর মধ্যে দিয়ে জাতীয় শোক দিবস পালিত হয়েছে।
নওগাঁ প্রতিনিধিঃ

নওগাঁর আত্রাইয়ে জাতির জনকের প্রতিকৃতিতে পুস্পস্তবক অর্পন, বিশাল র‌্যালী, আলোচনা সভা, দোয়া মাহফিল,পুরস্কার বিতরণ এবং লোন বিতরনের মধ্যে দিয়ে জাতীয় শোক দিবস পালিত হয়েছে।উপজেলা প্রশাসনের জাতীয় শোক দিবস কর্মসূচীর অংশ হিসেবে বুধবার সকাল ৯টা থেকে উপজেলা শহীদ মিনারে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু মেক মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুস্পস্তবক অর্পণ করা হয়। এ সময় উপজেলা প্রশাসন,আত্রাই থানা পুলিশ,মুক্তি যোদ্ধা সংসদ,উপজেলা পরিষদ, উপজেলা মডেল প্রেস ক্লাব, আত্রাই বণিক ও মালিক সমিতি, পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি- সাব জোন অফিস আত্রাই, আত্রাই উপজেলা হাসপাতাল অফিস, উপ-সহকারী প্রৌকশলী বিএমডি অফিস,আত্রাই, এলজিইডি, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদদপ্তর, উপজেলা যুব-উন্নন অধিদপ্তর,আত্রাই, উপজেলা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর,উপজেলা এনজিও ফোরাম, উপজেলা শিল্পকলা একাডেমি সহ সকল সরকারী প্রতিষ্ঠান,বিয়াম ল্যাবরেটরি স্কুল এন্ড কলেজ আত্রাই, নওগাঁ সহ সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এবং সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠন পুস্পস্তবক অর্পন করে শ্রদ্ধা নিবেদন করে।পরে উপজেলা প্রশাসন ও উপজেলা পরিষদ আয়োজনে উপজেলা জেলা চত্বর থেকে একটি বিশাল র‌্যালী বের করা হয়। এতে নেতৃত্ব দেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ ছানাউল ইসলাম। র‌্যালীতে উপজেলার সকল সরকারী বেসরকারী অফিসের কর্মকর্তা-কর্মচারী, সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক,শিক্ষিকা, কর্মচারী, আত্রাইয়ে কর্মরত সকল বে-সরকারী সেচ্ছা সেবী সংগঠন(এজিও) প্রতিনিধি,বিভিন্ন পেশা জীবি সংগঠনের নেতৃবৃন্দ অংশ গ্রহন করেন। উপজেলার প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষির্ণ শেষে উপজেলা পরিষদের নবনির্মিত অডিটরিয়াম সভা কক্ষে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ ছানাউল ইসলাম এর সভাপতিত্বে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ¦ মোঃ এবাদুর রহমান এবাদ। বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ এবং মুক্তিযুদ্ধের পর দেশ বির্নিমানে তাঁর ভ’মিকা এবং ১৫ আগষ্টের মোকাবহ করুন কাহিনী তুলে ধরে বক্তব্য রাখেন আত্রাই থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোবারক হোসেন, উপজেলা সাবেক মুক্তি যোদ্ধা কমন্ডার আক্তারুজ্জামান আকতার, সাবেক মুক্তি যোদ্ধা কমন্ডার সাজেদুর রহমান দুদু, বীর মুক্তি যোদ্ধা কাজী রুহুল ইসলাম, বীর মুক্তি যোদ্ধা শ্রী নীরেন্দ্র নাথ দাশ, উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি নৃপেন্দ্র নাথ দত্ত দুলাল, সাধারণ সম্পাদক চৌধুরী গোলাম মোস্তফা বাদল, উপ- সহকারী প্রকৌশলী বিএমডি আত্রাই ,আত্রাই জোনমোঃ আনোয়ার হোসেন,উপজেলা প্রকৌশলী মোবারক হোসেন, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ কেএম কাওছার হোসেন, উপজেলা প্রাণী সম্পদ কমৃকর্তা ডাঃ মো ৎ রুহুল আমিন আল- ফারুক, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা শ্রী নভেন্দ্র নারায়ন চৌধুরী, উপজেলা যুব-উন্নয়ন অফিসার ফজলুল হক, উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা মোয়াজ্জেম হোসেন, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা তারিকুর আলম ও মডেল প্রেস ক্লাবের সভাপতি একেএম কামাল উদ্দিন টগর।পরে উপজেলা যুব উন্নয়ন অধিদপ্তর জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে প্রশিক্ষিত যুব ও যুব মহিলাদের মধ্যে লোনের চেক বিতরণ এবং জাতীয় শোক দিবস উপলক্সে বিভিন্ন প্রতিযোগীতায় বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করা হয়।অপর দিকে দিকে জাতীয় মোক দিবস উপলক্ষে উপজেলা আওয়ামী লীগ ও উপজেলা জাতীয় শ্রমিক লীগ দিন ব্যাপী পৃথক কর্মসুচীগ্রহন করে। এস কর্মসূচীর মধ্যে ছিল জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন,দলীয় কার্যালয়ে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু মেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুস্প অর্পণ এবং শোক র‌্যালীও আলোচনা সভা দোয়া মাহফিল। এসব কর্মসূচীতে উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি নৃপেন্দ্র নাথ দত্ত দুলাল, সিনিয়র সহ- সভাপতি গয়ের আলী সাধারণ সম্পাদক চৌধুরী গোলাম মোস্তফা বাদল সভাপতি, উপজেলা প্রচার সম্পাদক ও ইউপি চেয়ারম্যান আফছার আলী প্রামানিক, ভোঁ-পাড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি আবুল কাশেম, ইউপি চেয়ারম্যান শফিকুর ইসলাম বাবু, জাতীয় শ্রমিক লীগ সভাপতি আব্দুস সালাম কালু, সাধারণ সম্পাদক সরদার সোয়েব সহ উপজেলা যুবলীগ,যুব-মহিলা লীগ, স্বেচ্ছা সেবক লীগ,ছাত্র লীগও জাতীয় শ্রমিক লীগের সর্বস্তরের নেতা কর্মীরা অংশ গ্রহন করেন।#

 

ঝালকাঠিতে বঙ্গবন্ধুর ৪৩ তম শাহাদাত বার্ষিকী পালিত

গাজী গিয়াস উদ্দিন বশির,ঝালকাঠি::

ঝালকাঠিতে নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে বঙ্গবন্ধুর ৪৩তম শাহাদাৎ বার্ষিকী জাতীয় শোক দিবস পালিত হয়েছে। কর্মসূচির মধ্যে ছিল জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত রাখা, সকাল ৯ টায় শোক র‌্যালি, ৯.৩০ মিনিটে জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে পুস্পমাল্য অর্পণ, ৯.৫০ মিনিটে চিরঞ্জীব বঙ্গবন্ধু প্রমান্যচিত্র প্রদর্শন, ১০ টায় শিল্পকলা একাডেমিতে আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরণ । সকাল ৯ টায় জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে শহরে বিশাল শোক র‌্যালি বের করা হয়। জেলা প্রশাসক মো. হামিদুল হকের নেতৃত্বে প্রশাসন ও রাজনৈতিকদলের নেতাকর্মী ছাড়াও বিভিন্ন শ্রণি-পেশার কয়েক সহস্্রাধিক মানুষ র‌্যালিতে অংশ নেয়। র‌্যালি শেষে স্থানীয় শিল্পকলা একাডেমি প্রাঙ্গনে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুস্পার্ঘ অর্পণ করা হয় জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে। পর্যায়ক্রমে জেলা আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসংগঠন, সরকারি বিভিন্ন দপ্তরের পক্ষ থেকে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুস্পমাল্য অর্পণ করা হয়। সকাল দশটায় শিল্পকলা একাডেমিতে শুরু হয় শোক দিবসের আলোচনা সভা।জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের স্থানীয় সরকার শাখার উপ-পরিচালক মো. দেলোয়ার হোসেন মাতুব্বর এর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা প্রশাসক মো. হামিদুল হক। বক্তব্য দেন পুলিশ সুপার মো. জোবায়েদুর রহমান, সিভিল সার্জন ডা. শ্যামল কৃষ্ণ হাওলাদার, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মো. সিদ্দিকুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক এড. খান সাইফুল্লাহ পণির প্রমুখ। সকাল ১১ টায় ঝালকাঠি জেলা জজ আদালত ও চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের উদ্যোগে জেলা জজের এজলাশ কক্ষে আলোচনা সভা ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। জেলা ও দায়রা জজ মো. ইখতিয়ারুল ইসলাম মল্লিকের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ এস.কে.এম. তোফায়েল হাসান, চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. আশরাফুল ইসলাম, যুগ্ন জেলা ও দায়রা জজ মো. রফিকুল ইসলাম, সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট এইচ.এম.কবীর হোসেন, আইনজীবী সমিতির সভাপতি এড. আব্দুল মান্নান রসুল, সাধারণ সম্পাদক এড. বদরুল মিল্লাত খোকন, জিপি তপন কুমার রায় চৌধুরী প্রমুখ।এছাড়াও আব্দুল নাইম খান স্মৃতি সংসদের উদ্দ্যোগে জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক এডভোটেক খান সাইফুল্লাহ পনিরের বাসভবনের সামনে ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষ্যে দোয়া ও আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়েছে। এসময় উপস্থিত ছিলেন, জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক এডভোটেক খান সাইফুল্লাহ পনির,সাংগঠনিক সম্পাদক ও পৌর কাউন্সিলার বাবু তরুন কর্মকার, দপ্তর সম্পাদক আবু সাইদ খান,যুবলীগের যুগ্ন আহবায়ক ও পৌর-কাউন্সিলার মো. রেজাউল করিম জাকির, মো. রিফাত হাসান রুবেল, মো.আসিকুর রহমান দীপু লস্কর,মো.কাওছার হোসেন মায়েজ,মো.কাজী মারুফুজ্জামান ইরান,মো.শফিকুল ইসলামসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠন দিনব্যাপি ওয়ার্ড পর্যায় শোকের নানা কর্মসূচির পালন করে।#

 

 

বাউফলে জাতীয় শোক দিবস পালিত
 বাউফল (পটুয়াখালী) প্রতিনিধিঃ
বিভিন্ন কর্মসূচীর মধ্য দিয়ে বুধবার  সারা দেশের ন্যায় পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলা প্রশাসনের উদ্দ্যোগে হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী জাতির জনক  বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের  ৪৩ তম শাহাদত বার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে র‌্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সকালে উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে উপজেলা চত্তরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুস্পস্তবক অর্পন করেন জাতীয় সংসদের চীফ হুইপ আ,স,ম ফিরোজ,এমপি, উপজেলা প্রশাসন, মুক্তিযোদ্ধা, আওয়ামীলীগ,যুবলীগ,সেচ্ছাসেবলীগ,ছাত্রলীগ,প্রেসক্লাব,  শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সহ বিভিন্ন সংগঠন।পুস্প অর্পন শেষে উপজেলা চত্তর থেকে শোক র‌্যালী বের হয়ে উপজেলা সদরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন করে উপজেলা পরিষদ সভা কক্ষে ইউএনও পিজুস চন্দ্র দে সভাপতিত্বে আলোচনা সভায়  বক্তব্য রাখেন স্থানীয় এমপি ও জাতীয় সংসদের চীফ হুইপ আ,স,ম ফিরোজ, জেলা সিনিয়র সহকারি পুলিশ সুপার মোঃ ফারুক হোসেন,ভাইস চেয়ারম্যান মোশারেফ হোসেন খান,মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার শামসুল আলম মিয়া,কৃষি কর্মকর্তা অপূর্ব লাল সরকার ,ওসি মনিরুল ইসলাম প্রমুখ।দিবসটি উপলক্ষে জাতীয় সংসদের চীফ হুইপ ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আ,স,ম ফিরোজ এর নেতৃত্বে উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে ও পৌরসভায় র‌্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয় ।
অপরদিকে জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও পৌরসভার মেয়র জিয়াউল হক জুয়েল এর নেতৃত্বে পৌরসভায় র‌্যালী ও আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়।##

লামায় উপজেলা প্রশাসন ও আওয়ামীলীগের উদ্যোগে জাতীয় শোক দিবস পালিত
আফসানা খানম সুমি, লামা প্রতিনিধি:

বান্দরবানের লামায় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৩ তম শাহাদাত বার্ষিকী এবং জাতীয় শোক দিবস পালিত হয়েছে। উপজেলা প্রশাসন ও আওয়ামীলীগের উদ্যোগে বুধবার সকাল ১০টায় থেকে দিনব্যাপী নানা কর্মসূচীর আয়োজন করা হয়।উপজেলা প্রশাসনের আয়োজিত বিভিন্ন কর্মসূচীর মধ্যে ছিল, সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে অর্ধ নির্মিত জাতীয় পতাকা উত্তোলন, দোয়া মাহফিল, মসজিদ-মন্দির-ক্যাং ও গীর্জায় বিশেষ প্রার্থনা, র‌্যালী, আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরণ। এছাড়া শোক দিবস উপলক্ষে মঙ্গলবার লামা আদর্শ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে রচনা, চিত্রাংকন, হামদ্ ও নাত প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়েছে।অপরদিকে উপজেলা আওয়ামীলীগের উদ্যোগে মিলাদ ও দোয়া মাহফিল, কোরআন খতম ও লামা আদর্শ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে ৭ হাজার মানুষের জন্য ভোজের আয়োজন করা হয়। এতে এলাকার জন সাধারনরা কুলখানিতে এসে ভোজন করেন।সকাল ১১টায় উপজেলা চত্ত্বর থেকে বিভিন্ন স্কুল-কলেজ-মাদ্রাসার শিক্ষার্থী, রাজনৈতিক ব্যক্তিবর্গ, সুশীল সমাজের প্রতিনিধি, আইন শৃঙ্খলা বাহিনী ও সরকারী বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা কর্মচারীদের অংশগ্রহণে এক শোক র‌্যালী বের হয়ে শহরের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিন শেষে টাউন হলে আলোচনা সভায় মিলিত হয়।শোক দিবসের র‌্যালী, আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার নূর-এ জান্নাত রুমি। উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা মো. আলী হোসেন এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মো. ইসমাইল।অতিথি হিসেবে আরো উপস্থিত ছিলেন, লামা সরকারি মাতামুহুরী কলেজের অধ্যক্ষ মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম, বান্দরবান জেলা পরিষদের সদস্য ফাতেমা পারুল, লামা সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার আবু সালাম চৌধুরী, বিভাগীয় বন কর্মকর্তা কামাল উদ্দিন আহম্মেদ, লামা পৌরসভার মেয়র জহিরুল ইসলাম, অফিসার ইনচার্জ লামা থানা অপ্পেলা রাজু নাহা, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান শারাবান তহুরা, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার শেখ মাহাবুবুর রহমান, উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা, কৃষি কর্মকর্তা, উপজেলা নির্বাচন অফিসার, মৎস্য কর্মকর্তা, মাধ্যমিক ও প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার, লামা ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন ইনচার্জ মোজাম্মেল হক, একটি বাড়ি একটি খামার বিভাগের সমন্বয়কারী সহ প্রমূখ। এছাড়া বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধান ও সহকারী শিক্ষক, আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য, সুশীল সমাজের প্রতিনিধি, সাংবাদিক, শিক্ষার্থী ও স্থানীয় জনসাধারণ উপস্থিত ছিলেন।
উপজেলা অধিকাংশ প্রাথমিক বিদ্যালয়, মাধ্যমিক বিদ্যালয়, মাদ্রাসা, লামা সিনিয়র জুডিসিয়াল মাজিস্ট্রেট আদালত, সরকারি মাতামুহুরী কলেজ ও বিভিন্ন সরকারি দপ্তর পৃথক ভাবে শোক দিবস পালন করে।সন্ধ্যায় ৭টায় “বঙ্গবন্ধু ও স্বাধীনতা” শীর্ষক উপজেলা পরিষদ চত্বরে প্রমাণ্য চিত্র প্রদর্শনীর আয়োজন করবে লামা জেলা তথ্য অফিস।