নগরীর উন্নয়ন করে কাজে প্রমাণ দেব: সাদিক

প্রকাশিত: ৩:৫৮ অপরাহ্ণ, জুলাই ৩১, ২০১৮ | আপডেট: ৩:৫৮:অপরাহ্ণ, জুলাই ৩১, ২০১৮
নগরীর উন্নয়ন করে কাজে প্রমাণ দেব: সাদিক

কাজের মাধ্যমে নগরীর উন্নয়ন করে প্রমাণ দিতে চান বরিশাল সিটির নবনির্বাচিত মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ। তিনি বলেছেন, ‘আমি নির্বাচনের আগে ইশতেহার দেইনি, তবে এখন আমি কি করবো সেটার উত্তর হলো বৃক্ষ তোমার নাম কি ফলে পরিচয়। আগে যদি বলেই ফেলি তবে তা গল্প হয়ে যাবে।’

নির্বাচনে বিজয়ী হওয়ার পর ‌সোমবার রাত একটায় বরিশাল নগরের কা‌লিবা‌ড়ি রোডস্থ বাসভবনে এক প্রতিক্রিয়ায় সাংবাদিকদের তিনি এ কথা বলেন।

গতকাল বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের নির্বাচনে মেয়র নির্বাচিত হন সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ। ১২৩টি কেন্দ্রের মধ্যে ঘোষিত ১০৭টি কেন্দ্রের ফলাফলে আওয়ামী লীগের প্রার্থী সাদিক পেয়েছেন এক লাখ সাত হাজার ৩৫৩ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির মজিবর রহমান সরোয়ার পেয়েছেন ১৩ হাজার ১৩৫ ভোট। স্থগিত রয়েছে ১৬টি কেন্দ্রের ফল।

নির্বাচনে জয়লাভের পর দেয়া এক প্রতিক্রিয়ায় সাদিক বলেন, ‘আমি বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন জায়গায় নানান কথা বলেছি, উন্নয়নের কথা বলেছি। তবে সবার আগে যারা এই শহরের বঞ্চিত নাগরিক আছেন, যারা এই শহরে থেকেও এই শহরের সুবিধা পাচ্ছেন না তাদের নিয়ে কাজ করতে চাই। বরিশালের বর্ধিত এলাকার মানুষ এবং শহরের ৮/১০টি কলোনির মানুষের জীবন-মানের উন্নয়নের লক্ষ্যে আমি কাজ করতে চাই।’

‘এছাড়া নাগরিকদের যে সুবিধা থাকা প্রয়োজন তা নিশ্চিতকরণ, নগরের জলাবদ্ধতা দূরীকরণ, সুয়ারেজ লাইনের উন্নয়ন ও ব্যবস্থা করা, নগরবাসীর জন্য বিশুদ্ধ পানি সরবরাহের ব্যবস্থা করার কাজগুলো আগে করতে চাই। এরপর নগর উন্নয়নে যেসব কাজ করা হবে সেগুলো ধীরে ধীরে পরিকল্পনা অনুযায়ী করা হবে। আমি চাই প্রাচ্যের ভ্যানিস খ্যাত বরিশালকে আগের অবস্থানে ফিরিয়ে আনতে।’

সাদিক বলেন, ‘আমি আমার সাধ্যমতো চেষ্টা করবো বরিশাল নগরবাসীর চাওয়া-পাওয়া পূরণ করতে। প্রতিটি মানুষের অধিকার বা জায়গা আমার কাছে সমান থাকবে। আমি একজন সেবক হয়ে কাজ করতে চাই।’

বরিশালের নবনির্বাচিত নগরপিতা বলেন, ‘এ বিজয় জননেত্রী শেখ হাসিনার, এ বিজয় নৌকার। যে জনগণ আমাকে ভোট দিয়ে নির্বাচন করলো তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাই। আমাকে এ পর্যন্ত নিয়ে আসার জন্য যারা সহায়তা করেছেন তাদেরকে কৃতজ্ঞতা জানাই।’

সাদিক বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাদের দক্ষিণাঞ্চলের উন্নয়নে যে কাজ করেছেন, তা আমাদের চাওয়ার আগে করেছেন। ভবিষ্যতেও যা দেয়ার তা তিনি নিজে থেকেই আমাদের দেবেন।

বরিশালে রাজনৈতিক সহাবস্থান রয়েছে উল্লেখ করে তিনি এই অবস্থা বজায় রাখার কথা জানান। বলেন, ‘যেহেতু এই শহরের মানুষই আমাকে নির্বাচিত করেছে সেখানে দল-মত নির্বিশেষে সকলের জন্য আমি কাজ করবো। আমার কাছে সকল মানুষের প্রধান্য থাকবে।’

এ সময় প্রয়োজন হলে নির্বাচনে পরাজিত বিএনপি প্রার্থী মজিবর রহমান সরওয়ারের কাছে উপদেশ নিতে যাবেন বলে জানান তিনি।

নির্বাচন নিয়ে তিনি বলেন, ‘নির্বাচনে এমন কোনো ঘটনা ঘটেনি যে প্রশ্নবিদ্ধ হবে। আর যেসব বিচ্ছিন্ন ঘটনা ঘটেছে তা সবকিছুই কাউন্সিলর প্রার্থীদের মাঝে হয়েছে।’