সুষ্ঠু ভোট ও নাগরিক সমস্যা সমাধানে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ আ.লীগ-বিএনপি

বরিশালে ডেমোক্রেসি ইন্টারন্যাশনালের গোলটেবিল বৈঠক

প্রকাশিত: ৭:০৩ অপরাহ্ণ, জুলাই ১৯, ২০১৮ | আপডেট: ১২:২৯:পূর্বাহ্ণ, জুলাই ২০, ২০১৮
সুষ্ঠু ভোট ও নাগরিক সমস্যা সমাধানে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ আ.লীগ-বিএনপি

বরিশাল সিটি নির্বাচনকালীন ও পরবর্তী সহিংসতা রুখে দিয়ে শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোট দান নিশ্চিত করতে ঐক্যমত হয়েছে বরিশাল দুই প্রধান রাজনৈতিক দলের নেতারা। নগরীর নাগরিক সমস্যাগুলো সমাধানে একসাথে কাজ করারও প্রতিশ্র“তি দিযেছেন তারা।

আজ  নগরীর এক হোটেলে ডেমোক্রেসি ইন্টারন্যাশনাল আয়োজিত ‘বরিশাল সিটি করপোরেশনে নাগরিক অগ্রাধিকার’ শীর্ষক একটি গোলটেবিল বৈঠকে অংশ নিয়ে এ প্রতিশ্র“তি ব্যক্ত করেন আওয়ামী লীগ ও বিএনপি’র স্থানীয় শীর্ষ নেতারা। ‘

শান্তি জিতলে জিতবে দেশ’ স্লোগানকে সামনে রেখে সংলাপে প্যানেল বক্তা ছিলেন বরিশাল মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও দলীয় মেয়র প্রার্থী সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ’র মুখপাত্র আ্যডভোকেট গোলাম আব্বাস চৌধুরী দুলাল, বরিশাল মহানগর আওয়ামী লীগের জেষ্ঠ্য সহ-সভাপতি আ্যডভোকেট আফজালুল করিম, বিএনপি’র কেন্দ্রিয় নির্বাহী কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক ও সাবেক সংসদ সদস্য আ্যডভোকেট বিলকিস জাহান শিরিন, বরিশাল উত্তর জেলা বিএনপি’র সভাপতি ও সাবেক সংসদ সদস্য মেজবাহ উদ্দিন ফরহাদ প্রমুখ।

সংলাপে স্বাগত বক্তব্য রাখেন ডেমোক্রেসি ইন্টারন্যাশনালের পরিচালক (কার্যক্রম) আমিনুল এহসান।

ইউএসএআইডি ও ইউকেএইডর যৌথ অর্থায়নে স্ট্রেংদেনিং পলিটিক্যাল ল্যান্ডস্কেইপ (এসপিএল) প্রকল্পের ‘শান্তিতে বিজয়’ ক্যাম্পেইনের আওতায় এই গোলটেবিল বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। এতে অংশ নিয়ে স্থানীয় নাগরিক সমাজের ৮০ জন প্রতিনিধি, স্থানীয় রাজনৈতিক ও সাংবাদিকবৃন্দ ৫টি প্রধান স্থানীয় ইস্যুতে তাঁদের সুচিন্তিত সুপারিশমালা তুলে ধরেন।

Image may contain: 7 people, including Tariqul Islam, people sitting

বরিশালের উন্নয়নে দুই প্রধান দলের নেতারা তাদের দলের আমলের সফলতা এবং নাগরিক সমস্যা দূরীকরনে দলীয় মেয়র প্রার্থীদের পরিকল্পনার কথা জানান।

আলোচনায় বরিশাল মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি আ্যডভোকেট গোলাম আব্বাস চৌধুরী দুলাল বরিশালেকে একটি অপরাধমুক্ত নগরী হিসেবে গড়ে তোলার জন্য উভয় দলের রাজনৈতিক নেতাকর্মী ও নাগরিকদের একসাথে কাজ করতে অনুরোধ করেন।

বিএনপি’র কেন্দ্রিয় নির্বাহী কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক এডভোকেট বিলকিস জাহান শিরিন শান্তিপূর্ণ বরিশাল সিটি করপোরেশন নির্বাচন অনুষ্ঠানের জন্য আহ্বান জানান। উপস্থিত অন্যান্য নেতৃবৃন্দ এই আহ্বানে ইতিবাচকভাবে সাড়া দেন।

অনুষ্ঠানে সুপারিশমালা হচ্ছে: উন্নত সড়ক ব্যবস্থা, পর্যাপ্ত পয়নি:ষ্কাশন, আধুনিক বর্জ্য ব্যবস্থাপনা, কেন্দ্রীয়ভাবে পার্কিং সুবিধা, পথচারীদের জন্য রাস্তায় পর্যাপ্ত পদচারণা ব্যবস্থা গ্রহণ, নারী ও পুরুষের জন্য স্বাস্থ্যসম্মত টয়লেট নির্মাণ সহ শহরের মাস্টার প্ল্যান বাস্তবায়নের জন্য সঠিক অবকাঠামো তৈরি করা। দখলকৃত ও ভরাট হয়ে যাওয়া নদীর তীর ও খালগুলো পুনরুদ্ধার করে জলাবদ্ধতা সমস্যা দূরীকরণ, কীর্ত্তনখোলা নদী ও খাল ড্রেজিং করা, খাল সম্প্রসারণ, ড্রেইনগুলোর নিয়মিত রক্ষণাবেক্ষণ, পলিথিন ও প্লাস্টিক ব্যাগ ব্যবহার নিষিদ্ধকরণ। সব বয়সী নাগরিকদের জন্য পার্ক, সাংস্কৃতিক কেন্দ্র, খেলার মাঠ নির্মাণ, নদীর ধারে হাঁটার জায়গা ও বেঞ্চ তৈরি করা, নিয়মিত ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা। নারীদের জন্য নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা, নিরাপদ পরিবহন নিশ্চিত করা, নারী উদ্যোক্তাদের জন্য বাজার নির্মাণ, হোস্টেল, শিশুদের জন্য দিবা যতœ কেন্দ্র স্থাপন, নারীদের জন্য পৃথক পাবলিক টয়লেট স্থাপন এবং কম হারে ট্রেড লাইসেন্স ইস্যুকরণসহ সর্বোপরি নারী-বান্ধব নগর তৈরি করা এবং শিক্ষা পতিষ্ঠান ও বাবা মায়েদের মধ্যে জনসচেতনতা গড়ে তোলার মাধ্যমে অবৈধ মাদক ব্যবসা বন্ধ করা, আইনের যথার্থ বাস্তবায়ন এবং মাদকাসক্তদের জন্য আধুনিক পুনর্বাসন ব্যবস্থা নিশ্চিত করা।