আরেকজন হিরন চায় নগরবাসী

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ১১:০১ অপরাহ্ণ, জুলাই ১৮, ২০১৮ | আপডেট: ১১:০১:অপরাহ্ণ, জুলাই ১৮, ২০১৮
আরেকজন হিরন চায় নগরবাসী

নাঈম ইসলামঃ

আসন্ন ৩০ জুলাই বরিশাল সিটি নির্বাচন।সিটি নির্বাচনকে ঘিরে প্রার্থীরা দিন-রাত ভোটারদের দ্বারে দ্বারে ঘুরে ভোট প্রার্থনা করছেন।ভোটাররাও প্রার্থী নির্বাচনে করছেন অনেক হিসাব-নিকাশ।নির্বাচন কে কেন্দ্র করে নগরীতে বইছে নির্বাচনী আমেজ।এবার নগর পিতা নির্বাচনে ভোটাররা বিগত মেয়রদের নগরী উন্নয়নের কাজগুলো বিবেচনা করছেন।

কেননা বিসিসি নির্বাচন প্রচারে আওয়ামী লীগের প্রয়াত মেয়র শওকত হোসেন হিরন প্রার্থী না হয়েও এবং বিএনপির বর্তমান মেয়র আহসান হাবিব কামালের নাম উঠছে নানাভাবে। আর এদিকে মেয়র প্রার্থীরাও বিগত দলীয় মেয়রদের উন্নয়নের ও অবহেলার কথা ভোটারদের তুলে ধরছেন।প্রায়াত মেয়র হিরন বিসিসি মেয়র থাকাকালে বরিশালের উন্নয়নে কতটা কাজ করেছেন এখনো সে কথা শোনাযায় নগরবাসীর মুখে।নগরীর অলিগলি থেকে শুরু করে প্রতিটি জায়গায়ই ছিলো হিরনের উন্নয়নের ছোয়া।

বর্তমান মেয়র কামালের পাঁচ বছর মেয়াদে  নগরী উন্নয়ন ও সিটি কর্পোরেশন পরিচালনায় ব্যর্থতার পর হিরনের শূন্যতার বিষয়টি আরও বেশি জনসম্মুখে এসেছে।বর্তমান মেয়র প্রার্থী সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহ প্রয়াত মেয়রের উন্নয়নের ধারাবাহিকতা বজায় রেখে নগরী উন্নয়নে কাজ করে যাবেন বলে ভোটারদের কাছ থেকে ভোট প্রার্থনা করছেন।আর নগরবাসীও প্রয়াত মেয়র হিরনের উন্নয়নের ধারাবাহিকতা বজায় রাখার জন্য আরএকজন হিরন চেয়েছেন।

হিরনের সময়কালে বরিশালের সকল রাজনৈতিক দলগুলোর অবস্থানেও ভুমিকা রেখেছিলন অনেকটা।তার সময়কালে বরিশালের রাজনৈতিক দলগুলো ছিলো একধরনের শান্তিপূর্ণ সহাবস্থানে।বিএনপি আওয়ামীলীগ মধ্যে ছিলো শান্তিপূর্ণ একটা সম্পর্ক।এছারা নগরীর জলাবদ্ধতা নিরসনে ড্রেনেজ ব্যাবস্থা,প্রসস্থ রাস্তা নির্মান,সন্ত্রাসমুক্ত নগরী,বিনোদনের জন্য বিভিন্ন পার্ক তৈরিসহ কবি কাজী নজরুল ইসলামের ভাষায় “বাংলার ভেনিস বরিশাল” উপহার দিতে চেয়েছিলেন।নগরবাসী জানায়,এবছর মেয়র প্রার্থী সাতজন।

আওয়ামীলীগ মনোনীত সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহ ও বিএনপি মনোনীত মজিবর রহমান সরোয়ারসহ অন্য দলগুলোর পাঁচ জন রয়েছেন।নগরীর উন্নয়নে যিনি কাজ করবেন তাকেই ভোট দিয়ে নির্বাচিত করা হবে।হিরনের সময়কালের পর বিগত পাঁচ বছরে বর্তমান মেয়র কামাল উন্নয়নের ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে পারেননি।নগরীতে ময়লার স্তুপ,জলাবদ্ধতাসহ নানা বিষয়ে ভোগান্তিতে ছিলো নগরবাসী।কোন দলের প্রার্থী বা মার্কায় নয়,সাবেক মেয়র শওকত হোসেন হিরনের উন্নয়নের ধারাবাহিকতা যিনি বজায় রাখতে পারবেন।তাকেই আসন্ন ৩০ জুলাই বরিশালে নগর পিতা হিসাবে নির্বাচিত করা হবে বলে জানায় নগরবাসী।হিরনের অনুপস্থিতিতে আরেকজন হিরনকে চায় নগরবাসী,যিনি নগরীর উন্নয়নসহ বরিশাল সিটিকে বাংলাদেশের অন্যতম একটি সিটি হিসাবে গড়ে তুলবেন।