বীরগঞ্জের ১ ব্যবসায়ী শশুর বাড়ীতে ছেলেকে দেখতে গিয়ে হামলার শিকারের অভিযোগ

এন.আই.মিলন এন.আই.মিলন

দিনাজপুর প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ৯:০৩ অপরাহ্ণ, জুলাই ১৬, ২০১৮ | আপডেট: ৯:০৩:অপরাহ্ণ, জুলাই ১৬, ২০১৮

বীরগঞ্জের ১ ব্যবসায়ী ভুট্টা কিনতে গিয়ে ঐ এলাকায় থাকা শশুর বাড়ীতে ছেলেকে দেখতে গেলে হামলার শিকার হয়ে হাসপাতালে ভর্তি।

বীরগঞ্জ উপজেলার নিজপাড়া ইউনিয়নের খলশী এলাকার ইয়াকুব আলীর পুত্র মতিউর রহমান (৩৪) ১৪ জুলাই সাংবাদিকদেরকে লিখিত অভিযোগে জানায়, গত ১১ জুলাই শিবরামপুর ইউনিয়নের মুরারিপুর বাজার এলাকার গোবিন্দপাড়া গ্রামের মকবুল হোসেনের পুত্র উমর ফারুকের ভুট্টা কিনতে যায়।

 

এসময় বাজার সংলগ্ন পাশ্ববর্তী শশুর বাড়ীতে থাকা প্রায় ২ বছর বয়সী পুত্র বাইজিদ বোস্তামীকে শশুর শিরাজুল ইসলামের সহযোগিতায় দেখতে গেলে স্ত্রী তছলিমা খাতুন এর নির্দ্দেশে তার ভাই মুরারীপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের মৌলানা শিক্ষক আবুল বাশার, আবুল খাইর, মাহমুদুল হাসান, আবু সাঈদ ও মৃত লাল মাহমুদের পুত্র শাহজাহান আলী তার পথরোধ করে ব্যপক মারধর করে। তার কাছে থাকা ভুট্টা ক্রয়ের ৩লক্ষ ৫০হাজার টাকা তারা ছিনিয়ে নিয়ে ১০০শত টাকার ৩টি ফাঁকা ষ্টাম্পে সাক্ষর নেয়।

এসময় সাথে থাকা ভুট্টা ক্রয়ের পাটনার নাহিদ হাসান ও হাবিবুর রহমান তাকে উদ্ধার করে স্থানীয় বাজারে ইউপি সদস্যা আমেনা বেগম সহ বাজারে অবস্থানরত দেরকে মারের দাগ দেখিয়ে ঘটনা জানিয়ে আহত মতিউরকে নিয়ে এসে বীরগঞ্জ সরকারী হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করে চিকিৎসা করে।
উলেক্ষ, মতিউর রহমান ও তছলিমা খাতুন এর বিবাহ গত ১৫ সালের ১০ অক্টোবর অনুষ্ঠিত হয় এবং ২৯/০৪/১৮ তারিখে তাদের দুইজনের ঝগড়া-বিবাদ হলে তছলিমা খাতুন বাদী হয়ে একটি যৌতুকের জন্য মারপিটের মিথ্যা মামলা করে।