নওগাঁয় ছোট ভাইয়ের জমি অপদখলের চেষ্টা

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ৪:০০ অপরাহ্ণ, জুলাই ১৬, ২০১৮ | আপডেট: ৪:০০:অপরাহ্ণ, জুলাই ১৬, ২০১৮
নওগাঁয় ছোট ভাইয়ের জমি অপদখলের চেষ্টা

নওগাঁ প্রতিনিধি :

পারিবারিক সম্পত্তিতে চলাচলের রাস্তার উৎসমুখে প্রাচীর তুলে বন্ধ করে দেওয়ায় নিজের জমিতে বাড়ী তৈরী করতে পারছেন না আপন ছোট ভাই। ছোট ভাইয়ের প্রায় ৩৭৪৪ বর্গফুট জমি নিজের কব্জায় নেওয়ার অপচেষ্টায় এ ধরনের হীন প্রচেষ্টা গ্রহন করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে এলাকাবাসীর নিকট থেকে। পৌরসভা কত্তৃপক্ষও এ অভিযোগকে সমর্থন করে। এ ধরনের ন্যাক্কার জনক প্রচেষ্টাটি চালানো হয়েছে নওগাঁ পৌরসভার অভিজাত এলাকা সুলতানপুর মহল্লায়।

 

সরেজমিনে এলাকাবাসীর সাথে কথা বলে ও জমির কাগজ পত্র পর্যালোচনা করে দেখা যায়, সুলতান পুর মহল্লায় জনৈক দেবেন্দ্র নাথের নিকট থেকে আর, এস খতিয়ান নং-৯ এর হাল দাগ ২৩২ এর ২৫.৬৮ সহঃ জমির ক্রয় সূত্রে মালিকানা লাভ করেন জনৈক আছিমুদ্দিন মিয়া। তিনি মারা গেলে ওই জমি ওয়ারিশ গনের মধ্যে ভাগ বাটোয়ারার পর পৈত্রিক সম্পত্তির অংশ ও বোনেদের অংশে কিনে আছিমুদ্দিন মিয়ার তৃতীয় ছেলে ময়নুল ইসলাম নয়শত পৌনে ২২ শহঃ জমির মলিকানা লাভ করেন। এর পর এক পারিবারিক বন্টননামা বলে ময়নুল ইসলাম পূর্ব-উত্তরাংশে প্রায় ৩৭৪৪ বর্গফুট জমির মালিকানা লাভ করেন।

 

সুলতান সড়ক সংলগ্ন মূল্যবান এই জমিটির পারিবারিক বন্টন নামা অনুসারে উত্তরাংশে ২য় ভাই শাহজাহান তার দক্ষিনে ৩য় ভাই ছামাদ, তার দক্ষিনে ভূক্তভোগি ময়নুল এবং সর্বদক্ষিনে ছোট ভাই মিরাজ এর প্রত্যেকের একটি করে চারটি দোকান ঘড় রয়েছে। এর পর জমির দক্ষিন পশ্চিমাংশ বড় ভাই আ: ছামাদ, উত্তর পশ্চিামংশ ২য় ভাই শাহজাহান আলি, উত্তর পূর্বাংশ ৩য় ভাই ময়নুল ইসলাম এবং দক্ষিন পূর্বাংশ ছোট ভাই সিরাজুল ইসলামের ভোগ দখলে যায়। ওই বন্টননামা অনুসারে সিরাজুল ইসলামের চলাচলের জন্য আ: ছামাদের জমির দক্ষিন দিকে ৮০ফুট লম্বা ও ৪ ফুট প্রসস্থ একটি রাস্তা এবং ময়নুলের চলাচলের জন্য উত্তরাংশে সাড়ে ৬২ ফুট লম্বা ও ৪ ফুট প্রসস্থ একটি রাস্তা রাখা হয়।

 

কিন্তু এই পারিবারিক বন্টননামাকে অমান্য করে অল্প দামে ময়নুলের জমি কিনে নেওয়ার কৌশল হিসাবে শাহজাহান আলি তার ছেড়ে দেওয়া রাস্তার পশ্চিম মাথায় একটি দড়জা নির্মান করে তা বন্ধ রাখেন। এ অবস্থায় নিজের জমিতে আসা যাওয়া বন্ধ হয়ে যাওয়ায় বিষটির নিস্পত্তির আশায় ময়নুল ইসলাম স্থানীয় নওগাঁ পৌরসভায় একটি নালিশ উপস্থাপন করলে পৌরসভা একাধিক নোটিশ সহ চুড়ান্ত নোটিশ দিয়েও শাহজাহান আলি শালিশে উপস্থিত না হওয়ায় শাহজাহানের নির্মিত ওই গেটের তালা ভেঙ্গে তা খুলে দেয়। এর পর শাহজাহান আলি আবার গেটে বন্ধ করে গেটের ভিতরে ইটের প্রাচীর তুলে ময়নুল ইসলামের চলাচলের রাস্তাটি সম্পূর্ণ রুপে বন্ধ করে দেন। এর ফলে এখন একটি বাড়ী করার প্রয়োজনীয়তায় ময়নুল ইসলাম তার জমিতে আসা যাওয়া করতে পারছেন না এবং নিজের জমিতে বাড়ী নির্মানের সামগ্রী পর্যন্ত নিতে পারছেন না।

 

এ ব্যাপারে কথা বলার জন্য শাহজাহান আলির সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তাঁর সাথে যোগাযোগ সম্ভব হয় নি। এদিকে বাড়ী নির্মানের প্রয়োজন পরায় বিষয়টি সুরাহার জন্য সকল প্রচেষ্টা গ্রহন করলেও শাহজাহান আলির আতœীয় জনৈক সরকারি পদস্থ কর্মকর্তার হস্তক্ষেপের কারণে বারবার ব্যর্থ হয়ে ঘটনাটি সকলের গোচরে আনার জন্য ময়নুল ইসলাম সাংবাদিকদের সহযোগিতা কামনা করেছেন। #