এলাকার উন্নয়নে জাকিরকে বিশ্বাস করে ভোটাররা

২০ নং মডেল ওয়ার্ড

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ৯:৫০ অপরাহ্ণ, জুলাই ১৪, ২০১৮ | আপডেট: ৯:৫০:অপরাহ্ণ, জুলাই ১৪, ২০১৮
এলাকার উন্নয়নে জাকিরকে বিশ্বাস করে ভোটাররা

স্টাফ রিপোর্টার:

বরিশাল সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের মডেল ওয়ার্ড খ্যাত ২০ নং ওয়ার্ডে নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি ও বাস্তবায়নের হিসেব কষছেন ভোটাররা। রাজনৈতিকভাবে কাউন্সিলরদের ক্ষেত্রবিশেষে মনোনয়ন দিলেও ভোটারদের কাছে কাউন্সিলররা অরাজনৈতিক পদ হিসেবেই বিবেচ্য। যে কারনে প্রতিনিধিত্ব এবং উন্নয়নমূলক কাজ মূল্যায়ন করছেন ওই ওয়ার্ডের ভোটাররা।

 

একাধিক ভোটারের সাথে আলাপকালে উঠে এসেছে রাজনৈতিক প্রভাব আর পেশী শক্তি নয়, যিনি এলাকার মানুষের জন্য কাজ করেছেন তার পক্ষেই এবারের রায় দিবেন। ওদিকে নগর ভবন সূত্রে জানা গেছে, খোদ নগর ভবন যে ওয়ার্ডে অবস্থিত সেই ওয়ার্ডে যত কাজ না হয়েছে তার তিনগুন কাজ হয়েছে ২০ নং ওয়ার্ডে। নগর ভবনের প্রকৌশল বিভাগের তথ্য মতে, অন্যান্য সবগুলো ওয়ার্ডকে পিছনে ফেলে উন্নয়নে এগিয়ে গেছে ২০ নং ওয়ার্ড। যে কারনে মডেল ওয়ার্ড হিসেবে পরিচিতি পেয়েছে এই ওয়ার্ডটি। এর পিছনে একনিষ্ঠভাবে কাজ করেছেন বর্তমান কাউন্সিলর এসএম জাকির হোসেন। চলতি নির্বাচনে ঘুড়ি প্রতীক পেয়ে প্রচারণায় ব্যস্ত সময় পার করছেন তিনি। এস.এম জাকির হোসেন বলেন, কাউন্সিলর হিসেবে আমি আমার দায়িত্ব পালন করেছি। আমি জানি এলাকাবাসীর উন্নয়ন, এলাকাবাসীর সুখে-দুঃখে পাশে থাকা একান্ত কর্তব্য। কারন বিগত নির্বাচনে আমার পক্ষে ২০ নং ওয়ার্ডের মানুষ রায় দিয়ে সেই দায়িত্ব অর্পন করেছেন।

 

অপর এক প্রশ্নের জবাবে জাকির হোসেন বলেন, বিগত ৫ বছরে ২০ নং ওয়ার্ডে কখনোই উন্নয়ন মুলক কাজ থেমে থাকেনি। এই কাজ সব যে সিটি কর্পোরেশন থেকে বরাদ্দ এসেছে তেমন কিন্তু নয়। যখন দেখেছি ওয়ার্ডের বাসিন্দারের জন্য গুরুত্বপূর্ণ অথচ নগর ভবন থেকে বরাদ্দ পাচ্ছি না তখন কিন্তু নিজের টাকায় সেটা করার চেষ্টা করেছি। এস.এম জাকির হোসেন আরও বলেন, এই পাঁচ বছরে কোন বাসিন্দা বলতে পারবেন না কোথাও থেকে কাউন্সিলরের নামে টাকা উঠেছে, খারাপ কোন কাজ চলেছে বা এই ওয়ার্ডে বৃহৎ কোন অপরাধ সংগঠিত হয়েছে। আমি চেষ্টা করেছি সবকিছু নিয়ন্ত্রনে রাখতে। আপনারা জানেন ২০ নং ওয়ার্ডেই বিএম কলেজসহ বেশ কিছু জনগুরুত্বপূর্ন প্রতিষ্ঠান রয়েছে।

 

এই এলাকায় ভোটার ছাড়াও নগরীর বাইরের লোক সবচেয়ে বেশি থাকায় ছোটখাট অপরাধ বেশি হওয়ার প্রবনতা। কিন্তু আমি সেসব প্রতিষ্ঠান প্রধানদের সাথে বসে চেষ্টা করেছি নিরোধ করতে যাতে ২০ নং ওয়ার্ডের দুর্নাম না হয়। এছাড়া বাসিন্দাদের কেউ অহেতুক হয়রানিও করতে পারেনি। ওযার্ডের কোথাও কোন মাদক স্পট গড়ে ওঠেনি।

 

যেখানে ক্সুদ্র পরিসরে হলেও চেষ্টা করা হয়েছে তা নিজ তত্ত্বাবধায়নে গুড়িয়ে দিয়েছি। তার ভাষ্যমতে, এবারও আশাবাদী ২০ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দারা তার সমস্ত কাজের মূল্যায়ন করে এবং এলাকার উন্নয়নের স্বার্থে তাকেই বিজয়ী করবেন। ওদিকে নগর ভবন সূত্রে জানা গেছে, ড্রেন, রাস্তা, সড়ক বাতি, পানির লাইন, লাইট পোস্ট স্থাপন, ড্রেন স্লাব, গুরুত্বপূর্ণ পুকুরের পাইলিং, ইলেকট্রিক পোস্ট স্থাপন, নতুন লাইটপোস্ট স্থাপন, সরকারের বিদ্যুৎ প্রকল্পের উন্নত ও উজ্জ্বলতর এলইডি লাইট স্থাপনসহ শতাধিক প্রকল্পের উন্নয়নমূলক কাজ হয়েছে এই ওয়ার্ডে। পুরো নগরীতে যখন এলইডি লাইট স্থাপন কাজ এগিয়ে যাচ্ছিল তখন এস.এম জাকির হোসেনের ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় অন্য কোন ওয়ার্ডে এলইডি লাইট পৌঁছানোর আগেই ২০ নং ওয়ার্ডে অত্যাধুনিক এই সুবিধা ভোগ করছেন বাসিন্দারা। পাশাপাশি এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, কয়েকটি স্থানে এস.এম জাকিরের নিজস্ব ব্যয়ে ফ্রি ওয়াই-ফাই সুবিধা দেওয়া হয়েছে। যা থেকে উপকারভোগী হচ্ছেন অসংখ্য মানুষ।

 

নগর ভবনের দেওযা তথ্য মতে, উন্নয়ন প্রকল্পের বাস্তবায়ন হয়েছে এমন কাজগুলো হল কলেজ রো-এর (আম্বিয়া হসপিটাল সংলগ্ন) পূর্ব প্রান্ত থেকে শেষ প্রান্ত বীর মুক্তিযোদ্ধা মহিউদ্দিন আহম্মেদ’র বাড়ির সামনের রাস্তা, ড্রেন নির্মাণ ও সংস্কার কাজ, গেরাকুল লজ-এর সম্মুখ থেকে কলেজ এভিনিউর লেচুশাহ সড়ক বায়তুল আমান মসজিদ পর্যন্ত রাস্তা, ড্রেন নির্মাণ ও সংস্কার কাজ, বিএম কলেজ ডিগ্রি হোস্টেলের পিছনের মূল সড়ক ও শাখা লেনের রাস্তা, ড্রেন নির্মাণ ও সংস্কার, বিএম কলেজ মহাত্মা অশ্বিনী কুমার হল (ডিগ্রি হোস্টেল) এর পিছনে শেখ মেহেরুল¬াহ বাড়ির রাস্তা, ইলেকট্রিক পোস্ট এবং একটি উন্নত ডিপটিউবয়েল স্থাপনের কাজ সম্পন্ন করা হয়েছে, কলেজ রো খ্রিস্টান কলোনীর পানির লাইন সংযোগ, রাস্তা ও ড্রেন নির্মাণ এবং সংস্কার কাজ সম্পন্ন, জাহানারা ইসরাইল স্কুলের সামনের গলিতে লাইট পোস্ট স্থাপন, কলেজ রো খ্রিস্টান বাড়ির পাশে গলির সিসি রাস্তা নির্মান করা হয়েছে। লেচুশাহ সড়কের ২নং লেনের রাস্তা, ড্রেনের স্লাভ নির্মাণ ও সংস্কার, লেচুশাহ সড়কের ৪নং লেন ও শাখালেনের রাস্তা, ড্রেন নির্মাণ ও সংস্কার কাজ সম্পন্ন, গোরস্থান রোডের মানিক মোক্তার লেনের দুটি পুকুর পাড়ের পাইলিং ও ড্রেনের পাশাপাশি আরসিসি রাস্তা নির্মাণ, গোরস্থান রোডের মাদ্রাসার সম্মুখের ড্রেন নির্মাণ কাজ সম্পন্ন, গোরস্থান রোডের (ডিএসপি বাড়ির) রাস্তা ও ড্রেনের ¯¬াভ নির্মাণ, কলেজ এভিনিউ এলাকার গাউছিয়া লজ ও মেঘালয়ের সম্মুখের রাস্তার সংস্কার কাজ, কলেজ এভিনিউর ৩য় লেনের প্রধান সড়কের সঙ্গে ৪টি শাখালেনের সিসি রাস্তা ও ড্রেন নির্মাণ এবং ৪ ইঞ্চি ডায়া পানির সংযোগ লাইন স্থাপন, কলেজ এভিনিউর রুবীনীড় ও আয়শা মঞ্জিলের সম্মুখের সিসি রাস্তা নির্মাণ, কলেজ এভিনিউর ১০নং লেনের সিসি রাস্তা ও ড্রেন নির্মাণ, কলেজ এভিনিউর ১১নং লেনের (সিদ্দিকুর রহমান হেডমাস্টার বাড়ির) সিসি রাস্তা ও ড্রেন নির্মাণ, কলেজ এভিনিউর হাওলাদার বাড়ির সম্মুখের ড্রেন নির্মাণ কাজ সম্পন্ন করা, পায়রা লেন (বন্ধন-নক্ষত্র বাড়ি) গলি সিসি রাস্তা নির্মাণ করা হয়েছে।

 

নিউ কলেজ রোড জোড়াপুকুর থেকে অনির্বাণ কোচিং সেন্টারের সম্মুখ হয়ে বৈদ্যপাড়া প্রধান সড়ক এবং বিএম কলেজের বড় রাস্তার সম্মুখ পর্যন্ত সিসি রাস্তা নির্মাণ, নিউ কলেজ রোড অনির্বাণ কোচিং সেন্টারের সম্মুখ থেকে সিএন্ডবি সোমালয় পর্যন্ত সিসি রাস্তা ও আংশিক ড্রেন নির্মাণ, নিউ কলেজ রোড (বৈদ্যপাড়া) ফয়সাল কটেজের সম্মুখের সিসি রাস্তা নির্মাণ, নিউ কলেজ রোড (বৈদ্যপাড়া) ইরানবাগের সম্মুখের ড্রেন ও সিসি রাস্তা নির্মাণ, নিউ কলেজ রোড (বৈদ্যপাড়া) প্রকৌশলী আ: হালিম লেনের সিসি রাস্তা নির্মাণ, নিউ কলেজ রোড বৈদ্যপাড়ার হোসাইনিয়া মাদ্রাসার বাজার সংলগ্ন সিসি রাস্তা নির্মাণ, সিএন্ডবি রোডের সরদার বাড়ির সিসি রাস্তা ও ড্রেন নির্মাণ, সিএন্ডবি রোডের সরদার বাড়ি সংলগ্ন শাখালেনের সিসি রাস্তা ও ড্রেন নির্মাণ, ইন্দোবাংলার বিপরীতে ড্রেন নির্মাণ, ইন্দোবাংলার সম্মুখের কালোমেঘা লজ বাড়ির ভেতরের সিসি রাস্তা নির্মাণ ও ইলেকট্রিক পোস্ট স্থাপন, নিউ কলেজ রোড বৈদ্য পাড়া কাউন্সিলর কার্যালয় সংলগ্ন পুকুরের পাইলিং ও সিসি রাস্তা নির্মাণ, বগুড়াপাড়া জামে মসজিদ সম্মুখের সিসি রাস্তা ও ৯৯নং বগুড়া নথুল্ল¬াবাদ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনের সিসি রাস্তা নির্মাণ, বিএম কলেজ রোডের প্রধান সড়ক সিসি রাস্তা নির্মাণ ও সংস্কার, বিএম কলেজের সম্মুখের মধু মিয়ার পোলের সিসি রাস্তা নির্মাণ ও সংস্কার, বিএম কলেজের সম্মুখের জালাল আহমেদ লেনের সিসি রাস্তা, শাখালেনের ড্রেন ও সিসি রাস্তা নির্মাণ, বিএম কলেজের সম্মুখের কলেজ পাড়া (প্রফেসর গলি) প্রধান সড়কের সিসি রাস্তা ও শাখালেনের সিসি রাস্তা নির্মাণ, বিএম কলেজ প্রধান গেটের সম্মুখের গলি আরসিসি রাস্তা নির্মাণ, বিএম কলেজ ১ম গেট রোড সম্মুখের তালভিটা ২য় গলির সিসি রাস্তা নির্মাণ ও পানির লাইন স্থাপন এবং তালভিটা জামে মসজিদের সম্মুখে আরসিসি রাস্তা নির্মাণ, বিএম কলেজ ১ম গেট গলি সম্মুখের তালভিটা ১ম গলির সিসি রাস্তা নির্মাণ, বরিশাল সিটি কর্পোরেশনে একমাত্র ২০ নং ওয়ার্ডে নতুন লাইটপোস্ট স্থাপন, বিএম কলেজ রোড (আবদুর রব সেরনিয়াবাত সড়ক) এ ৬টি সোলার-ননসোলার এলইডি লাইট স্থাপন করার প্রকল্প গ্রহণ, বীর মুক্তিযোদ্ধা মহিউদ্দিন আহমেদ এর গলির রাস্তা ও ড্রেন নির্মাণ প্রকল্প গ্রহণ, কলেজ রোড প্রথম গলির রাস্তা ও ড্রেন নির্মাণ প্রকল্প পাস করা হয়েছে।