বরিশালে জাপা প্রার্থীর ২৪ দফা ইশতেহার

বরিশাল সিটি করপোরেশন নির্বাচন

প্রকাশিত: ৭:০৬ অপরাহ্ণ, জুলাই ১৪, ২০১৮ | আপডেট: ৭:০৬:অপরাহ্ণ, জুলাই ১৪, ২০১৮

ব‌রিশাল সিটি করপোরেশন নির্বাচনে জাতীয় পার্টির মনোনীত প্রার্থী ইকবাল হোসেন (তাপস) ২৪ দফা ইশতেহার ঘোষণা করেছেন। 

শনিবার (১৪ জুলাই) সকাল ১০টায় নগরীর অশ্বিনী কুমার হলে দলীয় নেতাকর্মীদের উপস্থিতিতে এই ইশতেহার ঘোষণা করেন তিনি। ইশতেহারে তিনি বরিশাল সিটি করপোরেশনকে সবধরনের চাঁদাবাজি, টেন্ডারবাজি ও দুর্নীতিমুক্ত করার ঘোষণা দেন। এছাড়াও ইশতেহারে বরিশালের ঐতিহ্য রক্ষণাবেক্ষণ করে নান্দনিক সিটি গড়ে তোলা, পানি নিষ্কাশন ব্যবস্থার আধুনিককরণ ও বিশুদ্ধ পানি সরবরাহ করা, প্রত্যেক ওয়ার্ডে বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবার ব্যবস্থা, পাঠাগার প্রতিষ্ঠা করা, খেলার মাঠ বাড়ানো, জেল খালসহ সব খাল সংস্কার করা, ভাষা আন্দোলন ও মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস সংরক্ষণ, নদীর পাড়ে আধুনিক পার্ক ও পর্যটন কেন্দ্র নির্মাণ করা, শিক্ষার মান উন্নয়ন, ভোলার গ্যাস বরিশালে আনা, কর্মজীবী নারীদের আবাসস্থল নির্মাণ করার কথা উল্লেখ করা হয়েছে।

ইশতেহার ঘোষণাকালে তাপস বলেন, ইশতেহার নয়, এগুলো আমার নির্বাচনী অঙ্গীকারনামা। যা বরিশাল মহানগরকে নিয়ে আমার স্বপ্ন। আমি বরিশাল সিটি করপোরেশনের একজন বাসিন্দা। নাগরিক অধিকার এবং সামাজিক ও রাজনৈতিক সচেতনতা বোধ সবসময় আমাকে তাড়িত করে। যখন দেখি মানুষের অধিকার ক্ষুণ্ন হয়েছে, তখনই মন বিদ্রোহী হয়ে ওঠে।

প্রার্থী বলেন, বরিশাল সিটি করপোরেশন ঘোষণালগ্ন থেকে একটি পরিচ্ছন্ন উন্নত নাগরিক সুবিধা সম্বলিত শহর হিসেবে কল্পনা করে আসছি। কিন্তু বর্তমান মহানগরের ভাঙাচুরা রাস্তা-ঘাট, পরিত্যক্ত ময়লা আবর্জনা শুধুই ব্যর্থতা ও হতাশার জানান দেয়। শহরের নাগরিক জীবনের করুণ অবস্থা এবং বরিশালের বর্তমান সিটি করপোরেশনের ব্যবস্থাপনার প্রতি সাধারণ জনগণের আস্থাহীনতা আমাকে আসন্ন সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে উদ্বুদ্ধ করে। আমি বরিশালকে একটি উন্নত নগরীতে পরিণত করতে চাই, বদলে দিতে চাই রাজনীতিবিদদের ওপর মানুষের বিরূপ ধারণা।

এসময় উপস্থিত ছিলেন জাতীয় পার্টির বরিশাল জেলার সভাপতি অধ্যাপক মহসিন উল ইসলাম হাবুল, প্রার্থীর স্ত্রী ইসমত আরাসহ দলীয় নেতা-কর্মীরা।