রোহিঙ্গারা সীমান্ত পাড়ি দিতে আবার জড়ো হচ্ছে সীমান্তে

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ৮:২৭ পূর্বাহ্ণ, নভেম্বর ১৭, ২০১৭ | আপডেট: ৮:২৭:পূর্বাহ্ণ, নভেম্বর ১৭, ২০১৭
রোহিঙ্গারা সীমান্ত পাড়ি দিতে আবার জড়ো হচ্ছে সীমান্তে

বাংলাদেশের সীমান্তসংলগ্ন মিয়ানমারের বসতিতে বুধবার রাতে ব্যাপক গুলিবর্ষণের ঘটনা ঘটেছে বলে স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে। ভীতিকর এ পরিস্থিতিতে সীমান্ত পাড়ি দিতে রোহিঙ্গারা ফের জড়ো হচ্ছে।
আন্তর্জাতিক চাপ ও সমালোচনার মুখে রোহিঙ্গা নির্যাতনের ঘটনা কিছুটা কমেছিল। এ অবস্থায় বুধবার মিয়ানমারে রাতভর গুলির ঘটনা কেন, সে বিষয়ে ধারণা পাওয়া যায়নি।

স্থানীয় সূত্র জানায়, বুধবার রাত ৮টা থেকে সীমান্তের ওপারে ব্যাপক গুলির শব্দ শোনা যায়। বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ঘুনধুম, তুমবুরু ও কক্সবাজারের উখিয়া উপজেলার পালংখালী আঞ্জুমানপাড়া থেকে টেকনাফের উলুবনিয়া সীমান্তের লোকজন গুলির শব্দে রীতিমতো চমকে ওঠে।

তুমবুরু জিরো লাইনের রোহিঙ্গা শিবিরে আশ্রয় নেওয়া ফরিদ আলম নামের একজন রোহিঙ্গা মোবাইলে কালের কণ্ঠকে জানান, মিয়ানমারের সেনা ও সীমান্তরক্ষীরা কয়েক দিন গোলাগুলি কমিয়ে দিয়েছিল। কিন্তু বুধবার রাতে আবারও সারারাত ধরে গুলিবর্ষণ করেছে।

কক্সবাজারের বিজিবি-৩৪ ব্যাটালিয়নের কমান্ডিং অফিসার লে. কর্নেল মনজুরুল হাসান খান বলেন, ‘সীমান্তের ওপারে গুলির শব্দ শোনা গেছে। তবে মিয়ানমার সীমান্তরক্ষীদের সঙ্গে সরাসরি যোগাযোগ না থাকায় এসব নিয়ে তাত্ক্ষণিক জানার সুযোগ নেই। ’

ঘুনধুম ইউনিয়ন পরিষদের মেম্বার দিল মোহাম্মদ ভুট্টো জানান, ‘রাতে তুমবুরু গ্রামের বিপরীতে ব্যাপক গুলির শব্দ শোনা গেছে।
আগের রাতেও বেশ কয়েকটি গুলির শব্দ শোনা গিয়েছিল। ’

টেকনাফের হোয়াইক্যং উলুবনিয়া সীমান্তের বাসিন্দা হারুন সিকদার জানান, নাফ নদের ওপারে ঢেকিবুনিয়া, কুয়ানচিবং ও লারগাপাড়া নামক এলাকায় গুলির ঘটনা বেশি ঘটেছে। এরপর নতুন করে রোহিঙ্গারা জড়ো হতে শুরু করেছে নাফ নদের তীরে।