বোনের গায়ে হলুদের অনুষ্ঠানে ভাইয়ের মৃত্যু

এস এম জহিরুল ইসলাম এস এম জহিরুল ইসলাম

গাজীপুর জেলা প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ১০:১৩ পূর্বাহ্ণ, জুলাই ১৪, ২০১৮ | আপডেট: ১০:১৩:পূর্বাহ্ণ, জুলাই ১৪, ২০১৮
বোনের গায়ে হলুদের অনুষ্ঠানে ভাইয়ের মৃত্যু

বাড়িভর্তি আত্মীয়স্বজন। সাজানো-গোছানো পরিবেশ। বড় বোন শাহনাজ আক্তার রত্নার বিয়ের গায়ে হলুদের অনুষ্ঠান শেষের পথে। এ সময় ফ্যানে বিদ্যুতায়িত হয়ে প্রাণ হারিয়েছেন শাহনাজের ছোট ভাই শামসুল আলম (২২)।

বৃহস্পতিবার রাত ২টার গাজীপুরের শ্রীপুর পৌর শহরের মন্ত্রীপাড়ার সাবেক মন্ত্রী ও স্থানীয় এমপি অ্যাডভোকেট রহমত আলীর ভাতিজা মোয়াজ্জেম হোসেনের বাড়িতে।

মোয়াজ্জেম হোসেনের একমাত্র ছেলে নিহত শাসুল আলম। সে এ বছর শ্রীপুরের বরমী কলেজ থেকে ব্যবস্থাপনা সম্মান বিষয়ে চূড়ান্ত পর্ব পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে।

শনিবার গাজীপুরের ভাওয়াল বদরে আলম সরকারি কলেজে তার ভাইভা হওয়ার কথা ছিল।

বড় বোন শাহনাজ আক্তার রত্না জানান, গায়ে হলুদের অনুষ্ঠানের শেষের দিকে তিনি স্টেজেই বসেছিলেন। তার একমাত্র ছোট ভাই শামসুল আলম অতিথি আপ্যায়নের জন্য খাবার তৈরির প্রণালি দেখাশোনা করছিলেন। একপর্যায়ে গায়ে হলুদের স্টেজের পাশ দিয়ে যাওয়ার সময় ল্যান্ডফ্যানের সঙ্গে ধাক্কা লেগে বিদ্যুতায়িত হয়ে সে ফ্যানসহ মাটিতে লুটিয়ে পড়ে।

নিহতের বড় ভগ্নিপতি আরিফুজ্জামান পলাশ বলেন, এ সময় তাকে উদ্ধার করে শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। কর্তব্যরত চিকিৎসক পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর তাকে মৃত ঘোষণা করেন। নিহত শামসুল আলম তার বাবা-মায়ের একমাত্র ছেলে। তার বড় দুজন এবং ছোট এক বোন রয়েছে। শাহনাজ আক্তার রত্না তার দ্বিতীয় বোন।

তিনি জানান, শাহনাজ আক্তার রত্না শ্রীপুর মুক্তিযোদ্ধা রহমত আলী কলেজের হিসাববিজ্ঞান বিভাগের প্রভাষক। শুক্রবার তার বিয়ের দিন ধার্য ছিল। আত্মীয়স্বজন, শুভাকাঙ্ক্ষীদের আমন্ত্রণ জানানোসহ প্রায় সব কার্যক্রম শেষ।

এদিকে শুক্রবার দুপুর আড়াইটার দিকে নিজ বাড়িতে জানাজা শেষে পারিবারিক গোরস্থানে শামসুল আলমকে দাফন করা হয় বলে আরিফুজ্জামান পলাশ জানান।

প্রসঙ্গত, ল্যান্ডফ্যানসহ সাজসজ্জার দায়িত্ব দেয়া হয়েছিল স্থানীয় একটি ডেকোরেটর প্রতিষ্ঠানকে।