আরাফাতের ওপর হামলাকারীদের বিচারের দাবিতে রাবি সাংবাদিকদের মানববন্ধন

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ১০:১৬ অপরাহ্ণ, জুলাই ১০, ২০১৮ | আপডেট: ১০:১৬:অপরাহ্ণ, জুলাই ১০, ২০১৮

রাবি প্রতিনিধি:

এক বছর আগে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) ছাত্রলীগ নেতাদের হাতে মারধরের শিকার হন বিশ্ববিদ্যালয়ে কর্মরত ডেইলি স্টারের প্রতিনিধি আরাফাত রহমান। মারধরের ঘটনার পরদিনই গত বছর ১১ জুলাই জড়িত ছাত্রলীগ নেতাদের বিরুদ্ধে আহত সাংবাদিক আরাফাত বাদী হয়ে নগরীর মতিহার থানায় মামলা দায়ের করেন। কিন্তু মারধরের এক বছর পেরোলেও হামলাকারী ছাত্রলীগ নেতাদের বিরুদ্ধে বিশ্ববিদ্যালয় ও পুলিশ প্রশাসন থেকে কোন ব্যবস্থা মানবন্ধন করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ে কর্মরত শিক্ষার্থীরা।

বিশ্ববিদ্যালয় রিপোর্টার্স ইউনিটের সাধারণ সম্পাদক আলী ইউনুস হৃদয়ের সঞ্চালনায় ও সভাপতি শিহাবুল ইসলামের সভাপতিত্বে বক্তারা বলেন, একবছর আগে আরাফাতের উপর যে ছাত্রলীগ নেতারা হামলা করেছিল তাদের শাস্তি না হওয়ার সাংস্কৃতিক কর্মীসহ সাধারণ শিক্ষার্থীদের উপর ওই ছাত্রলীগ নেতারা আবার হামলা করেছে। এভাবে বার বার হামলার ঘটনা ঘটালেও তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ না করা দুঃখজনক।
এসময় বক্তব্য রাখেন রাবি প্রেসক্লাবের সভাপতি রবিউল ইসলাম তুষার, সাবেক সাধারণ সম্পাদক ইমদাদুল হক সোহাগ, বর্তমান সাধারণ সম্পাদক মানিক রাইহান বাপ্পী, রাবি রিপোর্টার্স ইউনিটির সাবেক সাধারণ সম্পাক হোসাইন মিঠু, সাধারণ সম্পাদক জহিরুল ইসলাম জাহিদ, সাংবাদিক সমিতির সহ-সভাপতি রাশেদ রিন্টু প্রমুখ।

এর আগে, গত বছরের ১০ জুলাই বিশ্ববিদ্যালয় প্রধান ফটকের সামনে পেশাগত দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে ছাত্রলীগ নেতা কানন, সজীব, বিজয়, লাবন তাকে হামলার শিকার হন আরাফাত রহমান। পরের দিন ৪ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত ৮-১০ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। সেই রাতেই হামলাকারী ছাত্রলীগ নেতাদের বহিস্কার করে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ। তবে পরবর্তীতে ছাত্রলীগের ওই নেতাদের প্রতি বহিস্কারাদেশ প্রত্যাহার করা হয়।

মামলার বিষয়ে মতিহার থানার (ভারপ্রাপ্ত) কর্মকর্তা শাহাদাত হোসেন বলেন, মামলার সময়ে আমি এই থানায় ছিলাম না। তাই এবিষয়ে অবহিত নই।