বাকেরগঞ্জে পপুলার মাল্টিপারপাস বন্ধের আদেশ

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ১০:০৭ অপরাহ্ণ, জুলাই ৭, ২০১৮ | আপডেট: ১০:০৭:অপরাহ্ণ, জুলাই ৭, ২০১৮
বাকেরগঞ্জে পপুলার মাল্টিপারপাস বন্ধের আদেশ

বাকেরগঞ্জ প্রতিনিধি:
বাকেরগঞ্জের সমবায় সমিতির বিধিমালা লংঘন করে সম্পূর্ন অবৈধভাবে পপুলার মাল্টিপারপাস কো-অপারেটিভ সোসাইটির লিঃ এর নামে শাখা পরিচালনা করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত ২৮ জুন উপজেলা সমবায় কর্মকর্তা মো. রিয়াদ হোসেন বন্ধের আদেশ দেন।

 

এ আদেশের তোয়াক্কা না করে নির্ভিচারে চালিয়ে যাচ্ছে গ্রহক ঠকানো পপুলার মাল্টিপারপাস কো-অপরেটিভ সোসাইটির কার্যাক্রম। গত ০৪ জুলাই অভিযোগের ভিত্তিতে সাংবাদিকেরা সঠিক সত্য কাগজপত্র ও অনুমতিপত্র চাইলে শাখা কার্যালয়ের পরিচালক মো. আল আমিন হোসেন কোম্পানির অনুমতির কোন বৈধ কাগজপত্র দেখাতে পারিনি। এসময় আল আমিন বলেন, আমি ৪ মাস এখানে এসেছি। আমাকে বিভাগীয় অফিস যে কাগজ দিয়েছে আমি সেই কাগজপত্র আপনাদের দেখালাম এর চেয়ে বেশি কিছু জানি না।

 

বরিশাল সমবায় অফিসের ৪৭.৬১.০০০০.২৮১.৩৩.০০৩.১১.৭২৪ স্বারকে নিবন্ধন বাতিলকৃত পপুলার মাল্টিপারপাস কো-অপারেটিভ সোসাইটি লি: কর্তৃক চালুকৃত বাকেরগঞ্জের অবৈধ শাখা কার্যালয় বন্ধের আদেশ প্রদান করেন।বিভাগীও সমবায় অফিস গত ১৯/১০/২০১৫ খ্রি: ২১৩১ নং স্বারকে পপুলার মাল্টিপারপাস কো-অপারেটিভ সোসাইটি লি: এর নিবন্ধন বাতিল করা হয়। উক্ত আদেশের বিরুদ্ধে হাইকোর্ট বিভাগে রীট পিটিশন নং-১৩১৩১/২০১৬ দায়ের করা হলে হাইকোর্ট উক্ত নিবন্ধন বাতিল আদেশের উপর সাময়িক স্থগিতাদেশ প্রদান করেন। কিন্তু পপুলার মাল্টিপারপাস কো-অপারেটিভ সোসোইটি লি: বাকেরগঞ্জ জে এস ইউ মডেল স্কুল রোডে অবৈধ শাখা কার্যালয় খুলে কার্যক্রম পরিচালনা করছে, যা সমবায় সমিতির আইন, বিধিমালা ও নিবন্ধক সুস্পষ্ট দন্ডনীয় অপরাধ।

 

ব্যাংকের চেয়েও দ্বিগুণ মুনাফার লোভ দেখিয়ে ডিপিএস, মাসিক মুনাফা, দ্বিগুণ বৃদ্ধি আমানত, শিক্ষা আমানত, আবাসন আমানত, ব্যবসায়ীক আমানত, দেনমোহর আমানত, কোটিপতি ডিপোজিট স্কিম, লাখপতি ডিপোজিট স্কিমসহ নানা প্রকল্পের নামে, বহু রঙের স্বপ্ন দেখিয়ে বিপুল পরিমাণ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে পপুলার মাল্টিপারপাস কো-অপারেটিভ সোসাইটি লিঃ বাকেরগঞ্জ শাখা কার্যালয়। ভুক্তভোগী লোকজন জানান, জনপ্রতিনিধি, মসজিদের ইমাম, স্কুল-মাদ্রাসার শিক্ষকসহ গ্রহণযোগ্য ব্যক্তিদের সাইনবোর্ড হিসেবে ব্যবহার করে বিভিন্ন এলাকায়ে অফিস স্থাপন করে। এরপর এক বছরেই দ্বিগুণ লাভের লোভ দেখিয়ে গরীব নিরিহ মানুষজনের সঞ্চিত টাকা-পয়সা হাতিয়ে নিতে থাকে।

 

পপুলার মাল্টিপারপাস কো-অপারেটিভ সোসাইটি লিঃ এর কর্ণধাররা সমবায়ের নামে চালিয়ে যাচ্ছে অবৈধ ব্যাংকিং বাণিজ্য। পপুলার মাল্টিপারপাস কো-অপারেটিভ সোসাইটি লিঃ সরকারি বিধিবিধান না মেনে ফাইন্যান্স, ইনভেস্টমেন্ট, সেভিংসসহ নানা নামে লাখ লাখ টাকার লেনদেন করছে। এবিষয় পপুলার মাল্টিপারপাস কো-অপারেটিভ সোসাইটি লিঃ এর প্রধান কার্যালয় স্বরুপকাঠীর মো. ফরিদ চৌধুরী বলেন, আমার সকল কাগজপত্র সঠিক আছে। উপজেলা সমবায় কর্মকর্তা যে বন্ধের আর্দেশ দিয়েছে এটা ঠিক কাজ করেনি। এ বিষয় উপজেলা সমবায় কর্মকর্তা রিয়াদ বলেন, পপুলার মাল্টিপারপাস কো-অপারেটিভ সোসাইটি লিঃ এর বাকেরগঞ্জ শাখা কার্যালয়টি সমবায় সমিতির বিধিমালা লংঘন করে শাখা পরিচালান করে আসছে। জেলা সমবায় অফিস থেকে বন্ধের জন্য বললে আমি তাদের শাখা বন্ধের জন্য আর্দেশ দিয়েছি।