রোহিঙ্গা নিপীড়নকারীদের কাঠগড়ায় তুলুন

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ৮:০৯ পূর্বাহ্ণ, নভেম্বর ১৬, ২০১৭ | আপডেট: ৮:০৯:পূর্বাহ্ণ, নভেম্বর ১৬, ২০১৭
রোহিঙ্গা নিপীড়নকারীদের কাঠগড়ায় তুলুন

রোহিঙ্গাদের ওপর নির্যাতনের জন্য দায়ী ব্যক্তিদের বিচার করার আহ্বান জানিয়েছেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী রেক্স টিলারসন। একইসঙ্গে তিনি বলেছেন, রাখাইনে যেসব নির্যাতনের ঘটনা ঘটেছে তার ওপর স্বাধীন ও বিশ্বাসযোগ্য তদন্ত চালাতে হবে। তবে মিয়ানমারের ওপর নিষেধাজ্ঞার সম্ভাবনা নাকচ করে দিয়েছেন তিনি। খবর বিবিসি ও এএফপির।

বুধবার মিয়ানমারে একদিনের সফরকালে টিলারসন দেশটির সামরিক বাহিনীর সুপরিকল্পিত সহিংসতার কথা উল্লেখ করে বলেন, রাখাইন রাজ্যে সাম্প্রতিক সহিংসতার সময় মিয়ানমারের নিরাপত্তা বাহিনী এবং অস্ত্রধারী বেসরকারি গোষ্ঠীগুলোর হাতে ব্যাপক নির্যাতনের বিশ্বাসযোগ্য খবরে আমরা গভীরভাবে উদ্বিগ্ন।”বাংলাদেশে পলায়নরত রোহিঙ্গাদের দুর্ভোগ দেখে যুক্তরাষ্ট্র মর্মাহত, যা ঘটেছে তার চিত্র নিদারুণ ভয়াবহ।

মিয়ানমারের রাজধানী নেপিদোতে তিনি যখন এক যৌথ সংবাদ সম্মেলনে এসব বক্তব্য রাখছিলেন, তখন তার পাশে ছিলেন মিয়ানমার নেত্রী অং সান সু চি। টিলারসন যুক্তরাষ্ট্রের তরফ থেকে রোহিঙ্গা শরণার্থীদের সাহায্যের জন্য আরও অর্থ দেয়ার প্রতিশ্রুতি দেন। যুক্তরাষ্ট্রের কোনো কোনো আইনপ্রণেতা মিয়ানমারের বিরুদ্ধে নতুন করে নিষেধাজ্ঞা আরোপের লক্ষ্যে বিল পেশ করার কথা বললেও টিলারসন বলেন, এখনই বড় ধরনের নিষেধাজ্ঞা সমস্যা সমাধানে বিশেষ ভূমিকা রাখতে পারবে না।

টিলারসন বলেন, ‘আমরা মিয়ানমারের সফলতা দেখতে চাই। কাজেই নিষেধাজ্ঞা দিয়েই আপনি বলতে পারেন না যে সংকটের সমাধান হয়ে গেছে।’ সংবাদ সম্মেলনে সু চিকে প্রশ্ন করা হয়, রোহিঙ্গা সংকটে তিনি নীরব কেন?

তিনি বলেন, ‘আমি নীরব ছিলাম না, লোকজন যেটা বোঝাতে চায় তা হল- আমি যা বলছি তা তেমন আকর্ষণীয় হচ্ছে না। আমি যা বলছি তা উত্তেজনাপূর্ণ হচ্ছে না। কথা তো সঠিক হওয়া উচিত। লোকজনকে উত্তেজিত করা, একের বিরুদ্ধে অন্যকে লাগিয়ে দেয়া (তো কাম্য নয়)।’ এর আগে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মিয়ানমারের সশস্ত্র বাহিনীর প্রধান সিনিয়র জেনারেল মিন অং লাইংয়ের সঙ্গেও বৈঠক করেন।