যেসব কারণে বিয়ে ভেঙে যাচ্ছে

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ৮:৫৭ পূর্বাহ্ণ, জুন ২২, ২০১৮ | আপডেট: ৮:৫৭:পূর্বাহ্ণ, জুন ২২, ২০১৮
যেসব কারণে বিয়ে ভেঙে যাচ্ছে

প্রত্যেক নারী-পুরুষের ঘনিষ্ট সম্পর্ক তৈরি করার মূল হাতিয়ার হচ্ছে বিয়ে। প্রাচীনকাল থেকেই সমাজে এটি হয়ে আসছে। কিন্তু বর্তমানে বিয়ে ভেঙে যাওয়ার প্রবণতা বেশিই দেখা যাচ্ছে বলেই মনে হচ্ছে। অনেক ছোট-বড় ভুলের কারণে সম্পর্ক টিকে রাখা সম্ভব হচ্ছে না।

আবার কিছু বদ অভ্যাসগুলো বিয়ে ভেঙে যাওয়ার প্রধান কারণ হতে পারে। তবে আপনার সম্পর্ককে যদি টিকিয়ে রাখতে চান তাহলে নিজেকে পরিশুদ্ধ করে তুলতে হবে।

যেসব কারণগুলো বৈবাহিক জীবনে অন্তরায় হয়ে দাঁড়িয়েছে সেগুলো তুলে দেওয়া হলো-

১) পার্টনারের পরিবারের থেকে নিজের পরিবারকে বেশি গুরুত্ব দিলে-

আপনার পরিবার হয়তো সবদিক থেকেই ভালো। কিন্তু পার্টনারের পরিবার সবদিক থেকেই খারাপ। এখন যদি সারাক্ষণই নিজের পরিবারের গুণগান করছেন। কিন্তু পার্টনারের পরিবারের কথা একবারও বলছেন না। সবসময় তার সামনে তার পরিবারের সমস্যার কথা বার বার তুলে ধরছেন। এই কাজটি একেবারেই ঠিক না। এতে আপনার বিয়ে ভেঙে যাওয়ার মতো বড় সমস্যা হতে পারে।

২) পার্টনারের থেকে কোন বিষয়ে অতিরিক্ত আশা করলে-

মানুষের আশার কোনও শেষ নেই কথাটা সত্য। আপনার মনের আশা অবশ্যই পার্টনারের কাছে ব্যক্ত করবেন। তবে সেই আশা হতে হবে পরিমিত। অর্থাৎ আপনার হয়তো কোনও জিনিস পছন্দ হয়েছে। যার দাম অনেকটা বেশি। আপনার পার্টনারের সাধ্যের বাইরে। কিন্তু সেটা কিনে দেওয়ার জন্য পার্টনারকে জোর করে বাধ্য করছেন। ফলে আপনার এই আশা পূরণ করতে গিয়ে পার্টনারের মাথায় চাপ পড়ে যাচ্ছে। এতে পার্টনার বিরক্ত হয়ে আপনার জীবন থেকে সরে যেতে চাইবে।

৩) নেতিবাচক মনোভাব থাকলে-

আপনার পার্টনার কোন ভালো কাজ করবে বা কোন সাফল্যের কথা বলছে, তখনি যদি আপনি তার সামনে এ বিষয়ে নেতিবাচক কথা বলেন বা সাফল্যের জন্য কোন উৎসাহ দিচ্ছেন না। তাহলে সে খুব কষ্ট পাবে এবং সবসময় তার সম্পর্কে নেতিবাচক কথা শুনলে একটা বৈরিভাব তৈরি হবে। এতে আপনার বিয়ে ভাঙার সম্ভবনাও থাকতে পারে।

৪) টাকা নিয়ে সমস্যা দেখা দিলে-

যদি দুজনেরই রোজগার থাকে তাহলে তা দুজনেই হিসাব রেখে ভাগ করে খরচ করুন। একে অপরকে সাহায্য করুন। ঘর গোছানোর সময় যদি কোনও নতুন জিনিস কেনার প্রয়োজন হয় তাহলে দুজনেই খরচ দিন। আপনি যদি আপনার পুরো টাকা জমিয়ে রাখন, আর পার্টনারকেই সব জিনিস কিনতে বলেন। তাহলে তার উপর চাপ হয়ে যাবে। এর কোনও মানেই হয় না। এতে আপনাদের মধ্যে দূরত্ব সৃষ্টি হবে। এমনকি আপনার পার্টনার বিয়ে ভেঙে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিতে পারে।

৫) বার বার পার্টনারের ভুল শুধরে দেওয়া-

প্রত্যেক মানুষই ভুল করে। আপনার পার্টনার হয়তো কোন ছোট ছোট ভুল করছে অবশ্যই শুধরে দিবেন। তাই বলে আপনি একই ভুল বার বার শুধরে দিতে চাইছেন। এতে পার্টনার খুব বিরক্তবোধ করবে। এমনকি আপনার সঙ্গে হয়তো আর থাকতে চাইবে না।

তথ্যসূত্র : ইনাডু ইন্ডিয়া।