কলাপাড়ায় কৃষকদের মাঝে জৈব সার তৈরীর উপকরন বিতরন

প্রকাশিত: ৭:৪৭ অপরাহ্ণ, জুন ২১, ২০১৮ | আপডেট: ৭:৪৭:অপরাহ্ণ, জুন ২১, ২০১৮
কলাপাড়ায় কৃষকদের মাঝে জৈব সার তৈরীর উপকরন বিতরন

পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় বিপদাপন্ন হত দরিদ্র প্রায় অর্ধশত কৃষকদের মাঝে জৈব সার উৎপাদনের জন্য বিভিন্ন কৃষি উপকরন, সার, বীজ উপকরন বিতরন করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে বেসরকারী উন্নয়ন সংস্থা ওয়ার্ল্ড কনসার্ন বাংলাদেশ’র উদ্যোগে ডি.আর.আর.এ.এল.এ সহযোগীতায় প্রশিক্ষন ও ওরিযেন্টেশন শেষে ওইসব কৃষকদের মাধ্যে এসব উপকরন বিতরন করা হয়। এসময় উপজেলা উপ-সহকারি উদ্ভিদ সংরক্ষন কর্মকর্তা মো.নূরূল ইসলাম, নার্সারী অভিজ্ঞ মো.নজরুল ইসলাম, ওয়ার্ল্ড কনসার্ন বাংলাদেশ সংস্থার পক্ষে প্রকল্পের ব্যাবস্থাপক সিলভেষ্টার মাইকেল মধু, জেমস রাজীব বিশ্বাস, মো.রাশেদ খান, রিচার্ড প্রভাত বাড়ৈ উপস্থিত ছিলেন।

বেসরকারী উন্নয়ন সংস্থা ওয়ার্ল্ড কনসার্ন বাংলাদেশ সূত্রে জানা গেছে, এ উপজেলার লালুয়া, বালিয়াতলী, মিঠাগঞ্জ, ডালবুগঞ্জ, মহিপুর ও লতাচাপলী ইউনিয়নে বিকল্প জীবিকায়নের মাধ্যমে দুর্যোগ ঝুঁকিহ্রাস প্রকল্পের আওতায় এ বিতরন কার্যক্রম সম্পন্ন করা হয়। ১৯ জন কৃষক ৭ জন নার্সারী, ১০ জনের বাড়ীর আঙ্গীনায় জৈব পদ্বতিতে সবজী চাষ ও ২ জনকে জৈব সার উৎপাদনের জন্য বিভিন্ন কৃষি উপকরন, সার, বীজ বিতরন করা হয়েছে।

ওয়ার্ল্ড কনসার্ন বাংলাদেশের উপজেলা সন্বয়কারী জেমস রাজীব বিশ্বাস বলেন, নার্সারী, বাড়ীর আঙ্গীনায় জৈব পদ্বতিতে সবজী চাষ ,জৈব সার উৎপাদন ও ব্যবহারের মাধ্যমে বিকল্প আয় বৃদ্ধি পাবে। এছাড়া অন্য কৃষকরা ও এ চাষাবাদের জন্য আগ্রহী হবে। এতে দারিদ্রতা বিমোচন হবে বলে তিনি জানিয়েছেন।