নারীদের বড় পদ দেওয়ার বদলে যৌন সুবিধে নেন ইমরান, অভিযোগ সাবেক স্ত্রীর

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ৫:০৮ অপরাহ্ণ, জুন ৭, ২০১৮ | আপডেট: ৫:০৮:অপরাহ্ণ, জুন ৭, ২০১৮
ইমরান খান ও রেহম খান
সামনেই পাকিস্তানের জাতীয় সংসদ নির্বাচন। তার আগে একরকম বোমা ফাটিয়েছেন সাবেক ক্রিকেটার ও রাজনীতিবিদ ইমরান খানের সাবেক স্ত্রী রেহাম খান। আত্মজীবনীতে তিনি লিখেছেন, দলের নারী কর্মীদের বড় পদ দেওয়ার জন্য ইমরান তাদের থেকে যৌন সুবিধে আদায় করেন।
সিএনএন১৮ কে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে রেহাম অভিযোগ করেছেন, ইমরান প্রতিষ্ঠিত তেহরিক ই ইনসাফ দলের নারী কর্মীরা তখনই বড় পদ পান, যখন তারা ইমরানের সঙ্গে বিছানায় যেতে রাজি থাকেন। কেউ বড় পদ চাইলে ইমরান নাকি সরাসরি তাকে জানিয়ে দেন, তাহলে তার সঙ্গে যৌন সম্পর্ক করতে হবে। তার আগামী বইতে এ বিষয়ে নাকি বিস্তারিত লিখেছেন রেহাম।
ব্রিটিশ -পাকিস্তানি রেহাম ইমরানের দ্বিতীয় স্ত্রী। ২০১৫ সালের জানুয়ারিতে তাদের বিয়ে হয় ও অক্টোবর মাসে বিচ্ছেদ ঘটে।
রেহাম আরো বলেছেন, ইমরান প্রধানমন্ত্রী হলে পাকিস্তানের পক্ষে তা অত্যন্ত খারাপ হবে। তার বইয়ের কিছু অংশ এক হ্যাকার অনলাইনে ফাঁস করে দিয়েছেন। ২৫ জুলাই পাকিস্তানে সাধারণ নির্বাচন। তার আগে এ সব তথ্য ভোটারদের মধ্যে পৌঁছে গেলে ইমরানের পক্ষে তা অত্যন্ত খারাপ হবে।
কয়েকজন অবশ্য প্রকাশের আগেই বইটি নিষিদ্ধ করার দাবি তুলেছেন। আপত্তিকর তথ্য প্রকাশ করায় রেহামকে আইনি নোটিশ পাঠিয়েছেন পাকিস্তানের এক সময়ের সেরা ফাস্ট বোলার ওয়াসিম আকরাম।
আকরামের অভিযোগ, এই বইতে রেহাম নিজস্ব যাবতীয় ব্যক্তিগত কথা লিখে দিয়েছেন, তাতে তার সম্মানহানি হয়েছে।
এছাড়া রেহামকে আইনি নোটিশ পাঠিয়েছেন তাঁর সাবেক স্বামী এজাজ রহমান, ব্রিটিশ ব্যবসায়ী সৈয়দ জুলফিকার বুখারি ও তেহরিক ই ইনসাফ দলের মিডিয়া কো অর্ডিনেটর অনিলা খাজা।
  • ইত্তেফাক