একজন অযোগ্য নেত্রী ও দুষ্টু মা খালেদা জিয়াকে আমাদের প্রয়োজন নেই

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ৪:২৭ পূর্বাহ্ণ, জুন ৭, ২০১৮ | আপডেট: ৪:২৭:পূর্বাহ্ণ, জুন ৭, ২০১৮

খালেদা জিয়া দল ও দেশের নেতৃত্ব দেয়ার মতো চরিত্র কখনই ছিলেন না বলে মনে করে বিদ্রোহীদের নিয়ে গঠিত আসল বিএনপি। এমন অবস্থায় আসল বিএনপিকে নিয়ে বিপাকে পড়েছে তারেক জিয়ার নেতৃত্বে চলা জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি। খালেদা জিয়া আর তারেক জিয়ার চরিত্র নিয়ে সরাসরি আঘাত করা এই বিদ্রোহী দলটি বিএনপির সব গোমর একের পর এক ফাঁস করে দিচ্ছে। এতে খালেদা জিয়ার চরিত্র ও ভুল সিদ্ধান্তের বিষয়ে জেনে যাচ্ছে সাধারণ মানুষ।

সম্প্রতি গুলশানের ওয়েস্টিন হোটেলে বিএনপি পুনর্গঠনের উদ্যোক্তা হিসেবে দাবি করা কামরুল হাসান নাসিম গণমাধ্যমকর্মীদের আমন্ত্রণ জানিয়ে খালেদা জিয়া আর তারেক জিয়ার গোপন সব দিক সম্পর্কে খোলাসা করে দেন।

গণমাধ্যমকর্মীদের কাছে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তি নিয়ে তিনি যে কথা বলেছেন তাতে খালেদা জিয়ার চরিত্রের সব দিক উন্মোচিত হয়ে গেছে।

কামরুল হাসান নাসিম বলেন, বিএনপি এখন আর জিয়াউর রহমানের আদর্শের পথে নেই। খালেদা জিয়া আর তারেক রহমান জামায়াতের নষ্ট চরিত্রে প্রভাবিত হয়ে গেছে। এমনকি জাতীয়তাবাদী চিন্তা-চেতনার বাইরে চলে গেছেন খালেদা জিয়া এবং তার দল। বেগম জিয়া এবং বিএনপি এখন জামায়াতবাদী চেতনা লালন করছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

এ বিষয়ে গোপন সূত্রে জানা গেছে, তারেক রহমান লন্ডনে জামায়াতের স্পর্শে এসে জঙ্গিবাদী চরিত্র লাভ করেছেন। লন্ডনে পলাতক জামায়াতের শীর্ষ নেতাদের নির্দেশনা থেকেই বিএনপি চালাচ্ছেন তারেক রহমান। তার প্রমাণ পাওয়া যায় লন্ডনে বাংলাদেশ হাইকমিশনে হামলার ঘটনা থেকে। এমনটাই মনে করেন অনেক রাজনৈতিক বিশ্লেষক।

একদিকে কামরুল হাসান নাসিম দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে তার চরিত্র সংশোধনের সাথে সাথে অপরাধ স্বীকার করার কথাও বলেছেন। সেই সঙ্গে খালেদা জিয়াকে জাতির সামনে নতি স্বীকার করার বিষয়ে কামরুল হাসান নাসিম বলেন, ‘খালেদা জিয়া দল ও দেশের জন্য নেতৃত্ব দেয়ার মতো চরিত্র কখনই ছিলেন না। তার পুত্র তারেক রহমান তার বাবার মতো হতে পারেনি। জামায়াতের সাথে রাজনীতি করে খালেদা জিয়া নিষিদ্ধ নেত্রীতে পরিণত হয়েছেন।’

খালেদা জিয়াকে অযোগ্য নেত্রী উল্লেখ করে নাসিম বলেন, তৃতীয় অগণতান্ত্রিক শক্তিকে প্রত্যাশা করি না। একজন অযোগ্য নেত্রী ও দুষ্টু মা খালেদা জিয়াকে আমাদের প্রয়োজন নেই। বিএনপি’র পাঁচটি অসুখ প্রসঙ্গে নাসিম বলেন, বিএনপি’র পাঁচটি অসুখ রয়েছে। অসুখগুলো হলো- দলটি জাতীয়তাবাদী চেতনা থেকে জামায়াতবাদী হয়ে পড়েছে, নাশকতাকে রাজনীতির হাতিয়ার করে নিয়েছে, বিদেশি শক্তির ওপর অতিমাত্রায় নির্ভরশীল হয়ে পড়েছে, জনস্বার্থ সংরক্ষণে রাজনীতি করতে পারছে না এবং দল পরিচালনায় জিয়া ও তারেক রহমান ব্যর্থ। অথচ তারা এই সমস্যাগুলো সমাধানে কোনো উদ্যোগ নিচ্ছেন না। কারণ জামায়াতের জঙ্গিবাদী আদর্শে আজ তারা পথ চলছে।

কামরুল হাসান নাসিম মনে করেন, এই মুহূর্তে বিএনপি আওয়ামী লীগের সঙ্গে রাজনৈতিক লড়াই করার সক্ষমতা নেই। নাসিম বলেন, এই মুহূর্তে জনস্বার্থ-সংশ্লিষ্ট ইস্যুগুলোতে বিএনপি কোনো ভূমিকা রাখতে পারেনি। এমনকি আগামীতে ক্ষমতায় গেলে বিএনপি জনগণের জন্য কী করবে তার কোনো সুনির্দিষ্ট রোডম্যাপ নেই তাদের কাছে। বিএনপির উচিত সুনির্দিষ্ট লক্ষ্যমাত্রা ঠিক করা যে দেশের জন্য কী কাজ করবো।

বিএনপি‘র পুনর্গঠন প্রসঙ্গে তিনি আরও বলেন, খালেদা জিয়া রাজতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করতে চান। তার কুপুত্র তারেককে সিংহাসন দেয়ার ব্যবস্থা করছেন তিনি।

খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানের উদ্দেশ্যে কামরুল হাসান নাসিম আরো বলেন, একদিন বিএনপি মুক্তিযুদ্ধকে ধারণ করে বঙ্গবন্ধুকে জাতির পিতা বলবে। জামায়াতকে নিয়ে বিএনপি আর রাজনীতি করবে না। এতে করে দলের ভেতরে যেমন শৃঙ্খলা ফিরে আসবে তেমনইভাবে দলের বাইরে যারা জাতীয়তাবাদী চেতনায় বিশ্বাসী ড. কামাল, বি. চৌধুরী, মাহমুদুর রহমান মান্নাসহ অনেকেই আমাদের সেই লড়াইয়ে শামিল হবে।

বিএনপির জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও সব সময় উদার উল্লেখ করে বিএনপি পুনর্গঠনের উদ্যোক্তা কামরুল হাসান নাসিম বলেন, বিএনপি এখনও টিকে আছে শুধুমাত্র প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দয়ার উপর।

  • বাংলাদেশ প্রেস