বাকেরগঞ্জে মাদক স¤্রাট সিদ্দিক গ্রেফতার

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ৩:৫৬ পূর্বাহ্ণ, জুন ৩, ২০১৮ | আপডেট: ৩:৫৬:পূর্বাহ্ণ, জুন ৩, ২০১৮

বাকেরগঞ্জ প্রতিনিধি॥
বাকেরগঞ্জের গত ১লা জুন অভিযান চালিয়ে গাঁজাসহ মাদক স¤্রাট সিদ্দিক আটক করেছে থানা পুলিশ। জানা যায়, কলসকাঠী বাজার থেকে গত ১ লা জুন ২০ গ্রাম গাঁজাসহ এস আই আজম গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কলসকাঠী ইউনিয়নের বেভাজ গ্রামে মৃত আসমত আলীর পুত্র সিদ্দিক ওরফে মদ সিদ্দিকে আটক করে। তথ্য সূত্রে জানা যায়, সিদ্দিক ওরফে মদ সিদ্দিক সহ পরিবারে দীর্ঘদিন যাবৎ মদ, গাঁজা, ইয়াবাসহ বিভিন্ন মাদক ব্যবসার সাথে জড়িত রয়েছে। পূর্বেও সিদ্দিক ওরফে মদ সিদ্দিকে মাদক সহ কয়েক বার গ্রেফতার করেছে বাকেরগঞ্জ থানা পুলিশ। মদ সিদ্দিকের বিরুদ্ধে বাকেরগঞ্জ থানায় একাধিক মামলা রয়েছে। সে বাকেরগঞ্জ থানা পুলিশ সহ সকল গোয়েন্দা সংস্থার তালিকা ভুক্ত মাদক স¤্রাট। গত ২৯ সেপ্টেম্বর ২০০৯ সালে ১৫০ লিটার মদ ও তৈরীর সরাঞ্জামসহ মদ সিদ্দিক ও তার স্ত্রী রেহানা বেগম (৪৫) তার পুত্র মিলন (১৫) কে গ্রেফতার করে। এরপরে ১লা জানুয়ারী ২০১৬ সালে মোবাইল কোন মামলা নং-৫৪, ৫ হাজার টাকা জরিমানা করে উপজেলা নির্বাহী অফিসার জয়নুল আবেদীন। ১৪ ই অক্টোবর ২০১৭ সালে মদ সিদ্দিকে পুত্র মিলনকে গাঁজাসহ আটক করে বাকেরগঞ্জ থানা পুলিশ। যার মামলা নং-১৮/১৭। এছাড়াও মদ সিদ্দিকে মাদক বিক্রিতে বাধা দেয়ার কারনে ১৯৯৪/৯৫ সালে তোজম্মর মৃধার পুত্র আবতাব মৃধাকে কলসকাঠী বাজার থেকে আসার সময় এলোপাতারি ভাবে কুপিয়ে জখম করে দীঘিরপাড়ার নামস্থানে ফেরে রাখে। পরে স্থানীয় লোকজন আহত আবতাবকে বরিশাল শেবামে ভর্তি করেন। পরে দীর্ঘদিন চিকিৎসায় থাকার পরে তিনি আহত আবতাব মারা যায়। পাশ্বেবর্তী বাড়ির মঞ্জু বিশ্বাসের স্ত্রী মমতাজ জানান, সিদ্দিক তার দুই পুত্র মিলন, হিরন ও তার মেয়ে মনিরার অত্যাচারে অতিষ্ট্য হয়ে স্বামীর পত্তিক সম্পত্তি ছেড়ে পাশ্ববর্তী গ্রামে ভাড়ায় থাকেন। এছাড়াও আবতাব খানের পুত্র ইউনুচ খানের গরু, আসেক ফকিরের ছাগল চুরি করে অন্যা এক আতœীয় বাড়ি রেখে বিক্রয় কালে হাতে নাতে এলাকার লোকজন ধরে স্থানীয় ভাবে মিমাংসা জরিমান করে ছেড়ে দেয়। স্থানীয়রা জানায়, উপজেলার বিভিন্ন স্থান থেকে প্রতিদিন প্রায় ১৫/২০ টিয় মোটরসাইকেল আসা-যাওয়া করে সিদ্দিকের বাড়ি থেকে মাদক নিয়ে বিভিন্নস্থানে পাচার করা হয়। স্থাণীয় কতিপয় প্রভাশালী নেতাদের ছত্র-ছায়ায় মদ সিদ্দিক এই মাদক ব্যবসা করে আসছে। বাকেরগঞ্জ অফিসাস ইনচার্জ মোঃ মাসুদুজ্জামান জানান, সরকারের মাদক বিরোধী অভিযানে আমাদের নিয়মিত কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। বাকেরগঞ্জের মাদকের যে ভয়াল আগ্রাসন তা প্রতিরোধ করতে এই অভিযান চলবেই বলে জানান। মাদক ব্যবসায়ী মদ সিদ্দিক ও তার পরিবারের সকলকে আইনের আওতায় নিয়ে এসে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী জানিয়েছে এলাকাবাসী।