বীরগঞ্জে ১ স্কুল শিক্ষক শৃলতাহানীর চেষ্টায় ব্যর্থ হয়ে ১ গৃহবধুকে জুতাদিয়ে মারার অভিযোগ

এন.আই.মিলন এন.আই.মিলন

দিনাজপুর প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ৩:৪৩ অপরাহ্ণ, জুন ২, ২০১৮ | আপডেট: ৩:৫৫:অপরাহ্ণ, জুন ২, ২০১৮

দিনাজপুরের বীরগঞ্জের ১ স্কুল শিক্ষক শৃলতাহানীর চেষ্টায় ব্যর্থ হয়ে ১ গৃহবধুকে জুতাদিয়ে মারার অভিযোগে বিচার।
উপজেলার নিজপাড়া ইউনিয়নের কাচারীপাড়া গ্রামের হাকিম মাষ্টারের পুত্র মিশন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক লম্পট আব্দুল মজিদ (বাবু মাষ্টার) ১ জুন শুক্রবার দুপুরে উত্তর ঝাড়পাড়া গ্রামের দিনমুজুর ভারত চন্দ্র রায়ের অশুস্থ স্ত্রী শ্রীমতী আরতী রানীকে রাস্তায় আটক করে জুতাদিয়ে মারধর করে।

সংবাদপেয়ে ঘটনাস্থলে গেলে আরতী রানী ও ভারত সহ এলাকাবাসী জানায়, তাদের বাড়ীর আশেপাশে লম্পট আব্দুল মজিদ (বাবু মাষ্টার) এর কিছু জমি থাকার কারনে বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন বাড়ীতে যখন তখন প্রবেশ করে। তাদের বাড়ীতেও সে মাঝে মাঝে প্রবেশ করে ভারত চন্দ্র রায়ের বোন ও পূর্ন চন্দ্র রায়ের বাকপ্রতিবন্ধী রুপালীকে বিভিন্ন ভাবে উত্যক্ত করতো। ভারতের বাড়ীতে কেউ না থাকার সুযোগে গত ৩১ মে বৃহস্পতিবার দুপুরে ঘুমন্ত আরতীর ঘরে প্রবেশ করে। এসময় আরতী তাকে গালিগালাজ করে ঘর থেকে বের করে দিলে মিথ্যা ডিম ক্রয়ে নাটক সাজিয়ে চলে আসে। আরতী ঘটনাটি তার স্বামী, শশুর সহ বাড়ীর লোকজনকে জানায়। জানানোর অপরাধে ১ জুন শুক্রবার দুপুরে অশুস্থ আরতী বাড়ীর সামনের রাস্তার ধারে বাতাস খাওয়ার সময় বাবু পিছন থেকে এসে আজে বাজে ভাষায় গালিগালাজ শুরু করে। এসময় আরতী প্রতিবাদ করলে লম্পট বাবু রাস্তার ধারে তাকে জুতাদিয়ে মারধর শুরু করে।

এঘটনায় তারা বিচারের দাবীতে থানায় আসার পথে বাবুর চাচাতো ভাই সেন্টু মাষ্টার, এ্যাড. হান্নান তাদেরকে বাধাদিয়ে ফেরত নিয়ে গিয়ে রাতের অন্ধকারে প্রহষোনের আপোশ বসায়।

এলাকাবাসী জানায়, রাজাকারের বংশধর লম্পট বাবু মাষ্টার দীর্ঘদিন ধরে এলাকায় বিভিন্ন ধরনের অপকর্ম করা কালে কেউ বাধা দিলে বাবু তাদেরকে ধমক দিয়ে বলে আমি উপ সচিব নুরুল ইসলামের ভাগিনা। আমাকে কেউ কিছু করতে পারবে না। তারা এ ধরনের মানবাধিকার লঙ্ঘনের দৃষ্টান্ত মুলক শাস্তীর দাবী করেন।