খালেদার মুক্তির দাবিতে সোমবার সারাদেশে বিএনপির বিক্ষোভ

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ৪:৪০ অপরাহ্ণ, মে ১২, ২০১৮ | আপডেট: ৪:৪০:অপরাহ্ণ, মে ১২, ২০১৮
খালেদার মুক্তির দাবিতে সোমবার সারাদেশে বিএনপির বিক্ষোভ

দুর্নীতি মামলায় সাজাপ্রাপ্ত কারাবন্দী বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার সুচিকিৎসা ও মুক্তির দাবিতে বিক্ষোভ কর্মসূচি ঘোষণা করেছে দলটি। সোমবার (১৪মে) দেশের সব মহানগরের থানায় থানায় এবং উপজেলা সদরে বিক্ষোভ করবে বিএনপি।শনিবার (১২মে) সকালে নয়াপল্টনে এক সংবাদ সম্মেলনে এ কর্মসূচি ঘোষণা করেন দলটির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

এসময় রিজভী বলেন, আমি ক্ষমতাপন্থী প্রধানমন্ত্রীকে বলতে চাই, আপনার জুলুম করার দিন ফুরিয়ে এসেছে। আপনাকে মানুষ মিথ্যুক ও ধমকবাজ মনে করে। আপনার কারণে দেশের মানুষ এখন সংজ্ঞাহীন ও মৃত্যুর দোলাচলে। এখনও সময় আছে বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়াকে অবিলম্বে নি:শর্ত মুক্তি দিন। নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের হাতে ক্ষমতা হস্তান্তর করে অবাধ, সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের পথ সুগম করুন।

তিনি বলেন, বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে ছাড়া ও নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে ছাড়া আগামীতে কোনো জাতীয় নির্বাচন হবে না। জনগণ হতে দিবে না। অবিলম্বে তার সুচিকিৎসা ও নি:শর্ত মুক্তি নিশ্চিত করুন।

রিজভী অভিযোগ করেন, খুলনা সিটি করপোরেশনের নির্বাচনের ভোটগ্রহণের আর মাত্র দুই দিন বাকী থাকলেও সেখানে এখনো ভোটের সুষ্ঠু পরিবেশ সৃষ্টি হয়নি। পুলিশ জনগণের প্রতিপক্ষ হিসেবে কাজ করছে। নির্বাচন কমিশনের ভূমিকাও সন্দেহজনক। মনে হচ্ছে, এই নির্বাচনে পুলিশ, আওয়ামী সশস্ত্র ক্যাডার ও নির্বাচন কমিশন অত্যন্ত নিষ্ঠার সাথে একই টিমে খেলছে।

শুধু তাই নয়, সাদা পোষাকে পুলিশ প্রিজাইডিং অফিসারদের জিজ্ঞিাসাবাদ করছেন এবং কোনো কোনো ক্ষেত্রে তারা তাদের বাসভবনের গিয়ে খোঁজ-খবর নিচ্ছেন। এতে তাদের মধ্যে ভীতি বিরাজ করছে। প্রধানমন্ত্রীর একজন আত্মীয় সংসদ সদস্য খুলনায় অবস্থান করে বিএনপির নেতাদেরও হুমকি-ধামকি দিচ্ছেন, প্রশাসনের সঙ্গে বৈঠক করছেন।

ভোটারদের মধ্যে ‘ভয়ভীতি’ দূর করতে আবারো খুলনা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে সেনা মোতায়েনের দাবি জানাচ্ছি এবং মহানগর পুলিশ কমিশনারের প্রত্যাহারের দাবিও জানান তিনি।

নাটোরের ছাত্র দলের সভাপতি সানোয়ার হোসেন তুষার, স্বেচ্ছাসেবক দলেল সাংগঠনিক সম্পাদক রাশেদ আহমেদ রনি ও সদর থানার যুগ্ম আহবায়ক জুয়েল রানা এবং সাতক্ষীরার তালা সদর থানা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মনিরুজ্জামান মনি, থানা ছাত্র দলের সহসভাপতি মেহেদী হাসান, বিএনপি সদস্য আশরাফুল আলম লিটনকে গ্রেফতারের ঘটনার নিন্দা জানিয়ে অবিলম্বে তাদের মুক্তির দাবিও জানান রিজভী।