গোপনাঙ্গ ঝলসে দিয়েছে পাষণ্ড সৎ মা

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ৭:৪৩ পূর্বাহ্ণ, মে ৬, ২০১৮ | আপডেট: ৭:৪৩:পূর্বাহ্ণ, মে ৬, ২০১৮
গোপনাঙ্গ ঝলসে দিয়েছে পাষণ্ড সৎ মা

রাতে ঘুমন্ত অবস্থায় বিছানায় প্রস্রাব করায় হাত-পা বেঁধে ৫ বছরের শিশুকে খুন্তির ছ্যাঁকা দিয়ে গোপনাঙ্গ ঝলসে দিয়েছে পাষণ্ড সৎ মা। আহত শিশুর নাম ফাতেমা আক্তার। এ ঘটনাটি ঘটেছে এক সপ্তাহ আগে দক্ষিণ ঘারমোড়া এলাকায়। শিশু ফাতেমার অবস্থা গুরুতর হওয়ায় গতকাল সন্ধ্যায় এলাকাবাসীর মধ্যে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। এ খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি সামাল দেয়। এলাকাবাসীর উত্তেজনা দেখে ও পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে পাষণ্ড সৎ মা মুন্নি পালিয়ে যায়।

এলাকাবাসী জানায়, উপজেলার দক্ষিণ ঘারমোড়া এলাকার মহিউদ্দিন মিয়ার ছেলে রোমান মিয়া ৮ বছর আগে নরসিংদী পৌর এলাকার শেফালী বেগমকে বিয়ে করেন। বিয়ে পর তাদের সংসারে এক ছেলে এক মেয়ে জন্মগ্রহণ করে। প্রথম ছেলে রাজ (৭) ও দ্বিতীয় সন্তান মেয়ে ফাতেমা আক্তার (৫)। স্বামীর সংসারে অভাব অনটনে শেফালী বেগম দুই শিশু সন্তানকে স্বামীর কাছে রেখে সৌদি আরবে চলে যায়। এক বছর পর স্বামী রোমান দ্বিতীয় বিয়ে করেন মুন্নী নামে এক মহিলাকে। সতীনের শিশু দুই সন্তান লালন পালনে বিপাকে পড়ে মুন্নী বেগম। রাতে ঘুমন্ত অবস্থায় বিছানায় প্রস্রাব করে দেয় বলে সৎ মা মুন্নি বিরক্ত হয়ে উঠে। গত ৩০শে এপ্রিল সকালে মুন্নী অবুঝ শিশুর হাত-পা বেঁধে গরম খুন্তি দিয়ে গোপনাঙ্গে ছ্যাঁকা দিয়ে ঝলসে দেয়। এ সংবাদ পেয়ে বন্দর থানার উপ-পরিদর্শক আব্দুল আলিম দ্রুত ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে। অভিযুক্ত পাষণ্ড মুন্নীর আইনের আওতায় আনা হবে আশ্বস্ত করলে এলাকাবাসী শান্ত হয়।