ইন্টারনেট নিয়ে স্বপ্নবাজ সফটওয়্যার ও ওয়েব ডেভেলপার জিহাদ রানা

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ১২:১৭ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ২৫, ২০১৮ | আপডেট: ১২:৩৮:অপরাহ্ণ, এপ্রিল ২৫, ২০১৮
ইন্টারনেট নিয়ে স্বপ্নবাজ সফটওয়্যার ও ওয়েব ডেভেলপার জিহাদ রানা

সাঈদ পান্থ:

ইন্টারনেট নিয়েই সফল বরিশালের সফটওয়্যার ও ওয়েভ ডেভেলপার প্রকৌশলী মো: জিহাদ রানা। জিহাদের জন্ম ও বেড়ে ওঠা বরিশাল নগরকে ঘিরেই। এক ভাই এক বোন এর ছোট পরিবারে এ জিহাদই বড় সন্তান। ছোট থেকেই শান্ত স্বভাবের জিহাদের আদর্শ তার পিতা ইলেক্ট্রনিক্স ব্যবসায়ী নুরুল ইসলাম। ইন্টারনেট ও আইটি সেক্টর নিয়ে এখন জিহাদ রানার স্বপ্ন। তার স্বপ্ন পূরণের ল্েযই বরিশাল সরকারি পলিটেকনিক থেকে ইলেক্ট্রো-মেডিকেল ইঞ্জিনিয়ারিং এবং ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি থেকে ইলেক্ট্রিক্যাল ইলেক্ট্রনিকস ও টেলিকমিউনিকেশন এর উপরে বিএসসি পাস করেন।

Image may contain: 6 people, including Zihad Rana, people smiling, people sitting, table and indoor

মা নাছিমা বেগম এর ইচ্ছে ছিল ছেলে জিহাদ ব্যাংকার হবেন। কিন্তু আইটি ইঞ্জিনিয়ারিং এ তার নীরব সমর্থন ছিল। যার কারণে দিনে দিনে জিহাদ আইটি সেক্টরে পারদর্শিতার প্রমাণ রেখেছেন। তবে জিহাদের নিজের ইচ্ছে ছিল সেনাবাহিনীর উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা বা মেজর হবেন। কিন্তু ভাগ্য লিখন তাকে আইটি ইঞ্জিনিয়ার হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করেছে। বরিশাল নগরীর ঐতিহ্যবাহী এ.কে স্কুল থেকে মাধ্যমিক পাস করার পর তিনি বাবার ইচ্ছেতে ইঞ্জিনিয়ারিং ভর্তি ফর্ম আর মায়ের ইচ্ছেতে উচ্চ মাধ্যমিক এর বেশ কয়েকটি ভালো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এর ফর্ম কেনেন। কিন্তু শেষে সকলের সম্মতিক্রমে ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং এর মাধ্যমে শুরু তার পথচলা। ২০০৭ সালে কম্পিউটারে তার হাতেখড়ি।

Image may contain: 6 people, people smiling, people eating, people sitting, food and indoor

পরে বাবার কিনে দেয়া কম্পিউটার। সেই কম্পিউটারই এখন তাকে স্বপ্নবাজ করে তুলেছে। এর মাঝে প্রোগ্রামিং ও ওয়েব ডেভেলপিং নিয়ে শুরু হয় জিহাদ এর স্বপ্ন দেখা। পড়াশোনার পাশাপাশি চলতে থাকে তার স্বপ্নযাত্রা। শুরুতে বিভিন্ন মার্কেট প্লেসগুলোতে কাজ করা শুরু হয় ওয়েব ডিজাইন নিয়ে; এর পরে পেমেন্ট গেটওয়ে। বরিশালে ইন্টারনেট কানেকশনে মোবাইলফোন কোম্পানী রবি’র মাধ্যমে উচ্চ গতির ও নিরবচ্ছিন্ন ইন্টারনেট সেবা পেয়ে কাজ শুরু করেন তিনি। বিভিন্ন ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান এর কাজ শুরু করেন পড়াশোনার মাঝেই। এরপরে ২০০৯ সালে বেশ কিছু কাজের পরে একটি ব্রান্ড সৃষ্টি করার অনুভব করেন জিহাদ। তারই ধারাবাহিকতায় সহজে বাংলাদেশের মানুষকে ডিজিটাল ও বিশ্বস্ত আইটি সেবা পৌঁছে দেয়ার ল্েয এ কাজ তার।

Image may contain: 8 people, people sitting and indoor

সেই থেকে শুরু ইঞ্জিনিয়ার বিডি নেটওয়ার্ক এর যাত্রা। According to the report এর মাঝে কর্মদতায় পড়াশুনা বেশ কয়েটি বড় প্রতিষ্ঠানে চাকুরী পাশাপাশি চলতে থাকে ইঞ্জিনিয়ার বিডি টিম পরিচালনা ww w.facebook.com/Engineerbd.Net লোকাল মার্কেটে সুনাম ও বিভিন্ন কাজে সফলতা পেয়ে শুরু হয় প্রতিষ্ঠানিক সেবা প্রদান, বাংলাদেশ পরিবার ও স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ww w.nememw.gov.bd এর ওয়েব সাইট ও মেরামত তালিকা সংরণের সফটওয়্যার বাংলাদেশ ভূমি অধিদপ্তর (বরিশাল) ww w.aclandbarisalsadar.gov.bd সহ তিন শতাধিক প্রতিষ্ঠান ও ব্যক্তি সেবা দিতে থাকেন জিহাদ ও তার ইঞ্জিনিয়ার বিডি টিম।

 

এ ছাড়া লোগো ডিজাইনে জিহাদ বরিশাল জেলা ব্রান্ডিং এ ১৫০ লোগোর মাঝে ১ম স্থান অধিকার করেন বরিশাল জেলা প্রশাসন থেকে। এবং বরিশাল জেলার জন্য তৈরিকৃত (ডিজিটাল বরিশাল ) ww w.digitalbarishal.com এ পরপর ২ বার ২য় ও ৩য় স্থান অধিকার করে জেলা প্রশাসন বরিশাল থেকে। ভারতে ইফিক্যাল হ্যাকিং এ প্রশিণে তিনি সফলতার সাথে বাংলাদেশের মুখ উজ্জ্বল করে প্রথম স্থান অধিকার করেন ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউশন অব টেকনোলোজি IIT Kharagpur থেকে। এছাড়া বিভিন্ন জাতীয় পর্যায় সাংবাদিক ও ইঞ্জিনিয়ারস সংগঠন, ডিপ্লোমা ইলেক্ট্রোমেডিকেল ইঞ্জিনিয়ারস অ্যাসোসিয়েশন, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক বরিশাল ফ্রিল্যান্সার ফাউন্ডেশন ও ই-কমার্স ইন্টারপেনিয়র্স অব বাংলাদেশ এর আইটি বিষয়ক ও সংগঠনিক সম্পাদক হিসাবে দায়িত্ব পালন করছেন জিহাদ রানা।

  • আজকের বার্তা