বাকেরগঞ্জে চাচা ভাতীজির কান্ড !

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ১১:৩০ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ২১, ২০১৮ | আপডেট: ১১:৩০:অপরাহ্ণ, এপ্রিল ২১, ২০১৮
বাকেরগঞ্জে চাচা ভাতীজির কান্ড !

বাকেরগঞ্জ প্রতিনিধি:
বাকেরগঞ্জে পাদ্রীশিবপুর ইউনিয়নের গাজীহাট বাজার সংলগ্ল চাচা ভাতীজির কান্ডে হতবাক এলাকাবাসী। চাচাতো চাচার সাথে ভাতীজিকে পরিত্যাক্ত ঘরে অশ্লীল অব্যস্থায় হাতে নাতে ধরার অভিযোগ উঠেছে। অভিযোগ সূত্রে, উপজেলার পাদ্রীশিবপুর ইউনিয়নের ছোট রঘুনাথপুর গ্রামের মো. ইউনুস গাজী প্রথম স্ত্রীর কন্যা পরী আক্তার ১৭ (ছদ্মনাম) একই বাড়ির মো. হানিফ গাজীর পুত্র চাচা তো চাচা শুভ গাজী দীর্ঘদিন যাবৎ প্রেম সম্পর্ক চলে আসছে। রক্তের সম্পর্কে কাকা-ভাইঝি কিন্তু, বন্ধনটা ছিল প্রেমের। রক্তের সম্পর্ককে বৈবাহিক সম্পর্কের রূপ দিতে রাজি ছিল না দুইজন।

 

ফলশ্রুতিতে গত ২০ এপ্রিল সকল সাড়ে ৯ টায় শুভ গাজী পরী আক্তারকে এম এ মালেকের একটি পরিত্যাক্ত ঘরে ডেকে নিয়ে যায়। এ সময় গাজীহাট বাজার থেকে সুলতান গাজীর পুত্র শহিদ গাজী ও দুধ বিক্রেতা শাহ আলম খান বাড়ি থেকে বাজারে যাওয়ার পথে শুভ ও পরীকে এম এ মালেকের পরিত্যাক্ত ঘরে অশ্লীল অব্যস্থায় দেখে হাতে নাতে ধরে। পরে শহিদ ও শাহ জাহানকে ভয়-ভীতি দেখিয়ে শুভ ও পরী কৌশলে ঘটনাস্থাল থেকে পালিয়ে যায়। এ ঘটনা এলাকাবাসী মধ্যে ছড়িয়ে পড়ে চাঞ্চল্যের সৃষ্ঠি হয়েছে। পরে এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিরা শালিস মিমাংসা করে দিবে বলে জানায়। শহিদ সাংবাদিকদের জানায়, আমি ঐ পথ দিয়ে বাড়ি থেকে কাজে যাইতেছিলাম তখন শুভ ও পরীর গুন গুন শব্দ শুনে দুধ বিক্রেতা শাহ জাহানকে ডেকে নিয়ে ঘরের মধ্যে প্রবেশ করতেই তাদের অশ্লীল অব্যস্থায় দেখতে পাই। পীর জানায়, ঝালকাঠী জেলার মঠবাড়িয়ার একটি প্রবাসী ছেলের সাথে তার সম্পর্ক রয়েছে। শুভ কাকা ঐ ছেলের সাথে ইমতে ভিডিও কলে কথা বলিয়ে দেবে বলে আমাকে ডেকে নিয়ে যায়। এ ঘটনায় শুভ জানায়, পরীর চাচা মিজান গাজী আমাকে দিয়ে পরীকে ডেকে এনেছে। নাম প্রকাশে একাধিক ব্যক্তি জানায়, পরীর সভাব-চরিত্র এ ধরনে পরীকে নিয়ে এলাকায় এর পূর্বে বিভিন্ন অসামাজিক কর্মকান্ডের অভিযোগ রয়েছে।

 

পরে মিজান গাজী জানায়, শুভ ও পরীর ঘটনা সম্পর্কে আমি জানি না। শুভ ও পরীকে হাতে নাতে ধরার পরে আমাকে এলাকা ছাড়ার, মারধরসহ জীবন নাসের হুমকী দিয়েছে। এ ঘটনায় আমি ও আমার পরিবারের নিরাপত্তার জন্য বাকেরগঞ্জ থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছি। এ ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। সুশিল সমাজের দাবী পরীর জন্য এলাকার অন্য কোন মেয়ে যেন অসামাজিক কর্মকান্ডের সাথে জড়িত হতে না পারে সে জন্য প্রশাসনের সু-দৃষ্ঠি কামনা করছে।