ভারতের দক্ষিণাঞ্চলের প্রদেশ শিশুকে ধর্ষণ : পাথর ছুড়ে ধর্ষককে হত্যা

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ১:২৬ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ১০, ২০১৮ | আপডেট: ১:২৬:অপরাহ্ণ, এপ্রিল ১০, ২০১৮
ভারতের দক্ষিণাঞ্চলের প্রদেশ শিশুকে ধর্ষণ : পাথর ছুড়ে ধর্ষককে হত্যা

ভারতের দক্ষিণাঞ্চলের প্রদেশ তামিলনাড়ুতে এক ধর্ষককে গাছে বেঁধে পাথর নিক্ষেপ করে হত্যা করেছে উত্তেজিত জনতা। রোববার রাতে তেলেঙ্গানার নিজামাবাদ জেলার ডোনকেশ্বর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। সাত বছরের এক মেয়ে শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে স্থানীয়রা তাকে পাথর নিক্ষেপ করে হত্যা করেছে বলে পুলিশ জানিয়েছে।

পুলিশ বলছে, ধর্ষণের অভিযোগে ৪৫ বছর বয়সী সায়ান্নাকে গাছের সাথে বাঁধে একদল গ্রামবাসী। পরে তাকে পাথর নিক্ষেপ ও লাঠি দিয়ে পেটানো হয়। উদ্ধারের পর হাসপাতালে নেয়ার পথে মারা যায় ওই ব্যক্তি। পেশায় দিনমজুর সায়ান্না মাদক সেবনের পর মাতাল অবস্থায় তার প্রতিবেশী একটি পরিবারের সাত বছরের শিশুটিকে চকোলেটের প্রলোভন দেখিয়ে বাড়িতে নিয়ে আসে। পরে তাকে ধর্ষণ করে।

শিশুটির রক্তপাত ও কান্না দেখে গ্রামবাসীরা তার বাবা-মাকে খবর দেন। ওই সময় শিশুটির মা-বাবা কৃষিক্ষেতে কাজ করছিলেন। পরে গ্রামের পাশের একটি হাসপাতালে শিশুটিকে নিয়ে যান তারা। এ ঘটনায় স্থানীয়দের মধ্যে ব্যাপক উত্তেজনা দেখা দেয়। তারা সায়ান্নাকে বাড়ি থেকে ধরে নিয়ে এসে গাছের সাথে বেঁধে পাথর নিক্ষেপ ও লাঠি পেটা করেন।

প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে তেলেঙ্গানা পুলিশের এক কর্মকর্তা বলেন, পাথর নিক্ষেপ ও লাঠিপেটায় অবচেতন হয়ে পড়ে সায়ান্না। স্থানীয় কয়েকজন তাকে হাসপাতালে ভর্তি করায়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

পুলিশ এ ঘটনায় তদন্ত শুরু করেছে। তবে যারা ধর্ষণের অভিযোগে সায়ান্নাকে পিটিয়ে হত্যা করেছে তারা আত্মগোপনে রয়েছে।