স্বামী-সন্তান ছেড়ে ‘প্রেমিকের’ বাড়িতে অনশন

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ৮:০৪ পূর্বাহ্ণ, এপ্রিল ৮, ২০১৮ | আপডেট: ৮:০৪:পূর্বাহ্ণ, এপ্রিল ৮, ২০১৮
স্বামী-সন্তান ছেড়ে ‘প্রেমিকের’ বাড়িতে অনশন

চরভাগা ইউনিয়নের পালকান্দি গ্রামে গতকাল শুক্রবার এ অনশন শুরু করেছেন মানিকগঞ্জের এক নারী। পালকান্দি গ্রামের বাসিন্দা শফিক পালের ছেলে জসীম উদ্দিন দুই মাস আগে মেয়েটিকে বিয়ে নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মতো থেকেছেন বলে কথিত প্রেমিকার দাবি।

 

মানিকগঞ্জের সিংগাইড় উপজেলার এই মেয়ে সাংবাদিকদের বলেন, প্রায় তিন মাস আগে জসীম উদ্দিনের সঙ্গে তার প্রেমের সম্পর্কে গড়ে ওঠে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে।মেয়েটি বিবাহিতা এবং তার দুবছর বয়সী একটি মেয়ে আছে বলে জানান।

 

মেয়েটির ভাষ্য, জসীমের সঙ্গে সম্পর্কের এক মাস পরে জসীমের বিয়ের আশ্বাসে স্বামী ও মেয়েকে রেখে তার কাছে চলে আসেন তিনি। পরে নিজের কানের দুল, হাতের চুড়ি, গলার হার ও মোবাইল ফোন বিক্রি করে গাজীপুরে একটি বাসা ভাড়া নিয়ে তারা স্বামী-স্ত্রীর মতো থাকেন।

 

তিনি বলেন, সম্প্রতি জসীমকে বিয়ে করার জন্য বারবার চাপ দিলে তিন দিন আগে তাকে ঢাকায় রেখে জসীম পালিয়ে যায়। পরে জসীমের এক বন্ধুর সহযোগিতায় ঢাকা থেকে লঞ্চযোগে শুক্রবার সকালে জসীমের গ্রামের বাড়ি আসেন তিনি।

 

জসীমের সঙ্গে স্বামী-স্ত্রীর মতো মেলামেশা করায় তিনি অন্তঃসত্ত্বা হয়েছেন মেয়েটির দাবি।এখন জসীম বিয়ে না করলে তিনি আত্মহত্যা করবেন বলে হুমকি দিয়েছেন।এ বিষয়ে জানতে জসীমকে তার মোবাইল ফোনে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করেও পাওয়া যায়নি।

 

পরে জসীমের মা তাসলিমা বেগম বলেন, “জসীম এখন ঢাকায় আছে। মোবাইল ধরছে না; তাই যোগাযোগও করতে পারছি না। আমার মনে হয় সব ষড়যন্ত্র।”এ বিষয়ে সখিপুর ওসি মঞ্জুরুল হক আকন্দ বলেন, “ঘটনাটি আমার জানা নেই। অভিযোগ পেলে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করব।”