কুমিল্লায় ছিনতাইকারীর ছুরিকাঘাতে যুবক নিহত

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ২:০৯ পূর্বাহ্ণ, নভেম্বর ৯, ২০১৭ | আপডেট: ২:০৯:পূর্বাহ্ণ, নভেম্বর ৯, ২০১৭
কুমিল্লায় ছিনতাইকারীর ছুরিকাঘাতে যুবক নিহত

কুমিল্লা মহানগরীর রানীর দিঘির পাড়ে আমিনুর রহমান নামে এক যুবক ছিনতাইকারীর ছুরিকাঘাতে নিহত হয়েছে। নিহত আমিনুর মাগুরা জেলার শালিকা উপজেলার শতখাটা গ্রামের ওমর আলীর ছেলে।
সে নেলসন বাংলাদেশ নিউট্রিশান কোম্পানীর ফিল্ড কর্মকর্তা হিসেবে তথ্য সংগ্রহের কাজ করছিল।

তার সাথে সুবর্ণা নামে আরো এক কর্মকর্তা ছিল। তাদের হাতে থাকা তথ্য সংগ্রহের কাজে ব্যবহৃত দুইটি ট্যাব ছিনতাইকারীরা ছিনিয়ে নিয়ে যায়। ছিনিয়ে নেওয়ার সময় বাধা দিলে ছিনতাইকারীরা ছুরিকাঘাত করে চলে যায়। পরে আহত অবস্থায় তাকে কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে এবং পরে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে বুধবার রাত ১১টায় ঐ যুবক মারা যায়।

ঘটনার সময় বিকাল ৩টায় একটি অটোরিকশা যোগে আসার সময় কুমিল্লা শহরের চর্থা থেকে ৩/৪জন কম বয়সী যুবক তাদের পিছু নেয় এবং রানীদীঘির পাড় পৌঁছা মাত্র তাদেরকে আক্রমণ করে প্রথমে টাকা চায় পরে ট্যাব দুইটি ছিনিয়ে নিয়ে যায়।

জানা যায়, ঢাকা থেকে নেলসন বাংলাদেশ কোম্পানির পক্ষ থেকে নিউট্রিশানের উপর মা, শিশু ও স্বাস্থ্যের বিষয়ক তথ্য সংগ্রহ করতে ৫জনের একটি দল দুই দিন আগে কুমিল্লা আসে। প্রথমে তারা শাসনগাছা রেলগেইট এলাকায় ঢাকা রেস্টহাউজে উঠে পরে অন্য একটি হোটেলে উঠে। গতকাল বুধবার চর্থা এলাকায় তথ্য সংগ্রহের কাজ শেষে কান্দিরপাড় হয়ে হোটেলে যাওয়ার পথে তাদেরকে আক্রমণ করে ছিনতাইকারীরা।
তবে ছিনতাইকারীদের স্থানীয়রা চিনতে পারার তথ্য পাওয়া গিয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। তাদেরকে গ্রেপ্তারের প্রক্রিয়া চলছে।

ফিল্ড কর্মকর্তা সুমন জয়ধর জানান, তারা নিউট্রিশান ইন্টারন্যাশনাল কোম্পানীর গবেষণামূলক প্রতিষ্ঠান নেলসন বাংলাদেশের একটি খবর পেয়ে কান্দিরপাড় ফাঁড়ির ইনচার্জ প্রথম আহত আমিনুরকে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন এবং তার জন্য দুই ব্যাগ রক্ত সংগ্রহ করেন। প্রাথমিকভাবে চিকিৎসা শেষে হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিক্যালে প্রেরণ করলে রাস্তায় তিনি নিহত হন।

কান্দিরপাড় ফাঁড়ির ইনচার্জ (আইসি) মো: নুরুল ইসলাম জানান, আমি খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে আহত যুবককে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে নিয়ে গিয়ে ভর্তি করিয়েছি। সেখানে তাকে দুই ব্যাগ রক্ত দেওয়ার ব্যবস্থা করেছি। আমরা তথ্য নিচ্ছি এবং যারা ছিনতাই করে এই যুবককে ছুরি মেরেছে তাদেরকে ধরে আইনের আওতায় এনে শাস্তির ব্যবস্থা করব।