আসুন জেনে নেই কীভাবে ধূমপান ত্যাগ করবেন

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ৭:৫৭ পূর্বাহ্ণ, মার্চ ৩০, ২০১৮ | আপডেট: ৭:৫৭:পূর্বাহ্ণ, মার্চ ৩০, ২০১৮

ধূমপান স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর। অহরহ এই বিজ্ঞাপনটি আমরা বিভিন্ন জায়গায় দেখে থাকি। তবে এই বিষয়টি যদিও আপনি গুরুত্ব দিতে চান তবুও ইচ্ছে থাকলেও হয়তো পারেন না।

 

জেনে রাখা ভালো ধূমপান একটি ভয়ঙ্কর বদঅভ্যাস। ধূমপানের ফলে বিভিন্ন উচ্চরক্তচাপ, হার্ট অ্যাটাক, স্ট্রোকসহ বিভিন্ন প্রাণঘাতী রোগের কারণ। কিন্তু অনেক কিছু জানা ও নিশ্চিত হওয়ার পরেও হয়তো আপনি ধূমপান ছাড়তে পারছেন না। তবে কি করবেন ভাবছেন।

ধূমপান ত্যাগ করা কঠিন হলেও যদি আপনি কিছু বিষয় মেনে চলেন তবে ধূমপান ত্যাগ করতে পারবেন। আসুন জেনে নেই কীভাবে ধূমপান ত্যাগ করবেন।

ইচ্ছাশক্তি

ধূমপান ত্যাগ করার জন্য যে বিষয়টি সবচেয়ে বেশি জরুরি সেটি হলো নিজের ইচ্ছাশক্তি। ধূমপান ত্যাগ করতে ইচ্ছাশক্তিকে জাগিয়ে তুলুন। অবশ্যই সফল হবেন।

সিগারেটটি কাচের পাত্রে রাখুন

আগে আপনি যখন সিগারেট খেতেন তখন যে পরিমাণ টাকা প্রতিদিন খরচ হতো ও পরিমাণ টাকা একটি কাচের পাত্রে রাখুন। টাকাগুলো যেন বাইরে থেকেও দেখা যায়।

প্রিয়জনকে উপহার দিন

সিগারেটের জমানো টাকা থেকে প্রিয়জনকে এক মাস পরপর উপহার দিন। এতে আপনি নিজেই মনে স্বস্তি পাবেন। প্রিয়জন খুশি হবে আর ত্যাগ হবে আপনার ধূমপানের অভ্যাস।

ধূমপান পরিবর্তে বাদাম, চকোলেট

প্রথমদিকে ধূমপান করার সময় হলে,বাদাম, চকোলেট, চুইংগাম মুখে রাখতে পারেন। এতে আপনার ধূমপানের অভ্যাস অনেকটাই কমে আসবে। একসময় দেখবেন ধীরে ধীরে একবারে কমে গেছে। পরবর্তী একটা সময় আসবে যখন আপনি ধূমপান মুক্ত থাকবেন।

ধূমপান নিষিদ্ধ করুন

নিজে তো ধূমপান করবেন না আবার অন্যদের ধূমপান নিষিদ্ধ করুন। এমনকি বাড়িতে আত্মীয়স্বজন এলে তাদেরও ধূমপান নিষিদ্ধ করুন।

নিজেই নিজের প্রশংসা

আপনি ধূমপান বন্ধ করেছেন ও অন্যকে নিষিদ্ধ করেছেন। এক্ষেত্রে আপনি নিজে নিজের প্রশংসা করুন। এতে আপনার আত্মবিশ্বাস বেড়ে যাবে। বন্ধ হবে ধূমপান। আপনার ধূমপান বন্ধের কথা পরিবারের সদস্যদের বলুন। দেখবেন নিজের কাছেই ভালো লাগবে।

ধূমপান না করার ইচ্ছাশক্তি ও চেষ্টাই আপনাকে উপহার দেবে সুস্থ এবং স্বাস্থ্যকর জীবন

  • দৈনিক যুগান্তর