ডিবিসি নিউজের ক্যামেরাপার্সন নির্যাতনের ঘটনায় বরিশালে সাংবাদিকদের মানববন্ধন

প্রকাশিত: ৩:৫৪ অপরাহ্ণ, মার্চ ১৪, ২০১৮ | আপডেট: ৩:৫৪:অপরাহ্ণ, মার্চ ১৪, ২০১৮

বরিশালে বেসরকারী টেলিভিশন চ্যানেল ডিবিসি নিউজের ক্যামেরাপার্সন সুমন হাসানকে মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের কতিপয় সদস্য কর্তৃক অমানবিক নির্যাতনের ঘটনায় মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করেছে সাংবাদিকরা। বুধবার (১৪ মার্চ) বেলা সাড়ে ১১ টায় বরিশাল নগরের অশ্বিনী কুমার হলের সামনে ফটো সাংবাদিক ঐক্য পরিষদ ও বরিশাল ইলেকট্রনিক মিডিয়া জার্নালিষ্ট এ্যাসোসিয়েশনের ব্যানারে এ মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করা হয়। মানববন্ধনে ফটো সাংবাদিক ঐক্য পরিষদের সভাপতি দিপু তালুকদারের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন বরিশাল মেট্রোপলিটন প্রেসক্লাবের সভাপতি কাজী আবুল কালাম আজাদ, বরিশাল টেলিভিশন মিডিয়া এ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি হুমায়ুন কবির, বরিশাল রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি নজরুল বিশ্বাস, শহীদ আব্দুর রব সেরনিয়াবাত বরিশাল প্রেসক্লাবের সদস্য ও মুক্তিযোদ্ধা নুরুল আলম ফরিদ, বাংলাদেশ প্রতিদিনের ব্যুরো প্রধান রাহাত খান, সাংবাদিক নেতা এম. জহির, বেলায়েত বাবলু প্রমুখ।এসময় বক্তারা ক্যামেরাপার্সন সুমন হাসানের ওপর মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের কতিপয় সদস্য কর্তৃক অমানবিক নির্যাতনের বিচার দাবী করেন। প্রয়োজনে তাদের বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা দায়ের ও চাকুরিচ্যুত করার দাবীও জানান। এদিকে সুমন হাসানকে নির্যাতনের ঘটনায় বুধবার তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেছে পুলিশ কমিশনার। এডিসি রুনা লায়লাকে প্রধান করে এই কমিটিকে বৃহ্ষ্পতিবারের মধ্যেই তদন্ত প্রতিবেদন দেয়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন নগর পুলিশ কমিশনার পুলিশ কমিশনার এসএম রুহুল আমিন। তিনি বুধবার দুপুরে একটি হত্যাকান্ডের ঘটনা নিয়ে সংবাদ সম্মেলনের শুরুতে সুমনের সাথে ঘটে যাওয়া ঘটনায় দুঃখ প্রকাশ করেন এবং তদন্ত কমিটি গঠনের বিষয়টি জানান। এসময় তিনি বলেন, তদন্তে কার কতটুকু দোষ এটা দেখে অপরাধ অনুযায়ী বিভাগীয় শাস্তির ব্যবস্থা নেয়া হবে। বিশাল পুলিশ বাহিনীর মধ্যে কিছু খারাপ থাকতে পারে। আমরা চাইবো তারা সংশোধন হবে তারা থাকবে নয়তো চলে যাবে।তিনি বলেন, আমি সাধারণ  মানুষের অপরাধ যে চোঁখে দেখি, পুলিশ সদস্যদের অপরাধও একই দৃষ্টিতে দেখি। কেউ অপরাধ করলে তার শাস্তি হবে। ভালো খারাপ সব জায়গাতেই রয়েছে। এদিকে নির্যাতনের ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়েছে শহীদ আব্দুর রব সেরনিয়াবাত বরিশাল প্রেসক্লাব ও বরিশাল রিপোর্টার্স ইউনিটি। আলাদা সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে সংগঠনদুটির নেতৃবৃন্দ সুমনের ওপর নির্যাতনের ঘটনায় প্রতিবাদ ও নিন্দা জানিয়ে তদন্ত পূর্বক দোষী পুলিশ সদস্যদের বিচারের দাবী জানিয়েছেন। অপরদিকে বরিশাল শের ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ক্যামেরাপার্সন সুমান হাসান নির্যাতনের বিষয়ে বলেন, গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে বিউটি রোডের অভিযান শেষে হঠাৎ করেই ডিবি পুলিশের এসআই আবুল বাশারসহ তার টিমের সদস্যরা আমার ওপর চড়াও হয়। কিছু বুঝে ওঠার আগেই তারা (ডিবি পুলিশ) আমাকে বেধড়ক মারধর শুরু করে এবং গায়ের জামা-কাপর ছিড়ে ফেলে। একপর্যায়ে জোর করে লাঠি দিয়ে মারধর করে হ্যান্ডকাপ পরিয়ে টানতে টানতে খালি শরীরেই ওই গাড়িতে তোলা হয় আমাকে। পরে আমাকে গাড়ির ভেতরে তুলে আমার প্যান্টের বেল্ট দিয়ে গলা পেছনের দিকে টেনে ধরা হয় এবং স্পর্শকাতর স্থান চেপে ধরে। তারপর ডিবি অফিসে নিয়েও আমার বুকের ওপর লাথি দেয়াসহ বিভিন্ন ভাবে মারধর করে।