মাদারীপুরের থানা হাজতে নির্যাতন! ওসি, চেয়ারম্যান সহ মামলার আবেদন

প্রকাশিত: ১১:০৩ অপরাহ্ণ, মার্চ ১১, ২০১৮ | আপডেট: ১১:০৫:অপরাহ্ণ, মার্চ ১১, ২০১৮
মাদারীপুরের থানা হাজতে নির্যাতন! ওসি, চেয়ারম্যান সহ মামলার আবেদন

মাদারীপুরের কালকিনির থানা হাজতে নির্যাতনের অভিযোগে অত্র থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কৃপা সিন্দু বালাসহ ৮ জনের বিরুদ্ধে চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলার আবেদন করা হয়েছে। রবিবার দুপুরে বাশঁগাড়ি ইউনিয়নের খুনেরচর গ্রামের নুরু মৃধা নামের এক ব্যক্তি এই মামলার আবেদন করে।

আবেদনের বিবরণ সুত্রে জানা গেছে, স্থানীয় দ¦ন্দের জের ধরে গত দুইবছর আগে নুরু মৃধার ছেলে কবির মৃধার চোখ উপরে ফেলা হয়। এই ঘটনায় কালকিনি থানায় বাশগাড়ী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সুমন বেপারী সহ প্রভাবশালী কয়েকজনের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের হয়। কতিপয় লোক দিয়ে সেই মামলা আপোস মিমাংসার প্রস্তাব দেয়া হয়। কিন্তু তাতে নির্যাতিতার পরিবার রাজি না হওয়ায় মামলা তুলে নিতে কালকিনি থানার ওসি কৃপা সিন্দু বালা কবির মৃধা ও তার ভাই ইউপি সদস্য খবির মৃধাসহ ৯ জনকে কালকিনি থানায় আটক করে নির্যাতন চালায়। এই ঘটনার বিচার দাবী করে চীফ জুডিসিয়াল আদালতে মামলা দায়েরের আবেদন করলে চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রিট মোঃ জাকির হোসেন আবেদন গ্রহন করে।

আবেদন সুত্রে আরো জানা গেছে, এই মামলার অন্য আসামীরা হচ্ছে কালকিনি থানার (ওসি তদন্ত) হারুন অর রশিদ, খাসেরহাট তদন্ত কেন্দ্রর (ওসি) মহিদুল ইসলাম, এসআই বিল্লাল হোসেন শিকদার, এ এসআই রাজিবুল ইসলাম। এছাড়া আউলিয়ারচর গ্রামের রশিদ মুন্সি, বাশগাড়ী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সুমন বেপারীসহ, রাজন বেপারীকেও আসামী করা হয়েছে।

এব্যাপারে কালকিনি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কৃপা সিন্ধু বালাকে মুঠো ফোনে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমি শুনেছি মামলার আবেদন করেছে, তবে মামলা হয়নি। কতিপয় সাংবাদিক অতি উৎসাহীত হয়ে একটু বেশী’ই লিখছে।