বৃটিশ পার্লামেন্ট সেমিনারে খালেদার মুক্তি দাবি

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ১২:৫১ পূর্বাহ্ণ, মার্চ ৯, ২০১৮ | আপডেট: ১২:৫১:পূর্বাহ্ণ, মার্চ ৯, ২০১৮
বৃটিশ পার্লামেন্ট সেমিনারে খালেদার মুক্তি দাবি

বৃটেনের পার্লামেন্ট ভবনে বৃটিশ-বাংলাদেশি কমিউনিটি এলায়েন্স আয়োজিত এক সেমিনারে বক্তারা আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচন ও বিচার ব্যবস্থা নিয়ে আলোচনা করেছেন। সেখানে বলা হয়- বাংলাদেশের বর্তমান রাজনৈতিক সংকট দিনে দিনে ঘনীভূত হচ্ছে। সরকার একরোখা হয়ে দেশ চালাচ্ছে। অপরদিকে বিরোধী জোটের শীর্ষ নেতা এক মাস ধরে কারারুদ্ধ। রাজনৈতিক কারণে একটি দুর্নীতির মামলায় তাকে এমন এক সময় সাজা দিয়ে কারাগারে পাঠানো হয়েছে যখন তার নির্বাচনী প্রস্তুতি নেয়ার কথা। সেমিনারে বক্তারা দেশের সদ্য পদত্যাগী প্রধান বিচারপতি এস কে সিনহার বিষয়টিও রেফারেন্স হিসেবে তুলে ধরেন। বলেন, কঠিন পরিস্থিতির মধ্যে মিস্টার সিনহাকে সিঙ্গাপুরে বাংলাদেশ মিশনে গিয়ে পদত্যাগ করতে হয়েছে।

হাউস অব কমন্সের থ্যাচার রুমে লন্ডন সময় ৭ই মার্চ বিকালে ‘রাইজ অফ ওয়ান পার্টি স্টেট অ্যান্ড ডেস্ট্রাকশন অব জুডিশিয়ারি ইন বাংলাদেশ’ শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়। এতে সংকট উত্তরণে বিরোধী শীর্ষ নেতার আশু মুক্তি এবং সব দলের অংশগ্রহণে নির্বাচন আয়োজনের পথ সুগম করতে সংশ্লিষ্টদের প্রতি আহ্বান জানানো হয়। একই সঙ্গে মানুষের সর্বজনীন মৌলিক মানবাধিকার নিশ্চিত করতে রাজনৈতিক হস্তক্ষেপমুক্ত বিচার প্রশাসন প্রতিষ্ঠার ওপর জোর দেয়া হয়।

সেমিনারে সভাপতিত্ব ও মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন কমিউনিটি অ্যালায়েন্সের সভাপতি বারিস্টার আফজাল জামি সৈয়দ আলী। সংগঠনের চিফ অ্যাডভাইজার সাবেক কাউন্সিলর মুজাক্কির আলীর পরিচালনায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সেক্রেটারি ফয়জুন নূর। অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন লর্ড নাজির আহমেদ, শ্যাডো হেলথ মিনিস্টার জুলি কুপার এমপি, হুইপ অ্যান্ড্রু স্টিফেনসন এমপি, গ্রেইগ হুইটেকার এমপি, সাবেক ডেপুটি স্পিকার এবং বর্তমানে ইন্টারন্যাশনাল ডেভেলপমেন্ট কমিটির মেম্বার নাইজেল এভান্স এমপি, সৈয়দ মামনুন মুর্শেদ, ব্যারিস্টার মেহনাজ মান্নান, ব্যারিস্টার তারিক বিন আজিজ, গবেষক আলিয়ার হোসাইন, নাসরুল্লাহ খান জুনাইদ, ডক্টর মুহাম্মদ রুহুল আমিন খন্দকার প্রমুখ।
উপস্থিত ছিলেন সিটিজেন মুভমেন্ট লিডার ও ইউকে বিএনপির সভাপতি এম এ মালিক, তাজুল ইসলাম, আবেদ রাজা, অ্যাডভোকেট খলিলুর রহমান, শাহিন আহমেদ, আব্দুস সামাদ রাজ, নুরুল আফসার, মাওলানা শামিম আহমেদ, শাকিল আহমেদ, জিয়াউর রহমান জিয়া, আঙ্গুর মিয়া, দিলোয়ার হোসেন, শাহনেওয়াজ, আবুল হামিদ, সেলিম আহমেদ, রহিম উদ্দিন, গোলাম রব্বানি সুহেল, জামাল উদ্দিন, কামাল উদ্দিন, ফয়সাল আহমেদ, মো. মঈনুল ইসলাম, মো. নুর বক্স, কামরুন শাহানা, অঞ্জনা আলম প্রমুখ।

আয়োজক সংগঠনের তরফে জানানো হয়েছে- সেমিনারে বৃটিশ এমপিরা বলেন, বাংলাদেশের বর্তমান সরকার নিজ দেশের বৈধ প্রতিনিধি দাবি করার নৈতিক শক্তি হারিয়েছে।
কারাবন্দি বেগম খালেদা জিয়ার মামলার বিষয়টি বৃটেন গভীরভাবে পর্যবেক্ষণ করছে জানিয়ে এমপিরা বলেন, লন্ডনে আসন্ন কমনওয়েলথ শীর্ষ সম্মেলনকে সামনে রেখে বৃটিশ পার্লামেন্টের উভয় কক্ষে বাংলাদেশ নিয়ে, বিশেষ ভাবে বিচার বিভাগে রাজনৈতিক হস্তক্ষেপের বিষয়টি তারা তুলবেন। একই সঙ্গে বিরোধী নেতাকর্মীদের মামলা ও জেল নিয়েও তারা প্রশ্ন তুলবেন। রাজনৈতিক হস্তক্ষেপে বাংলাদেশের অনেক রায় যে প্রভাবিত হয় সেই উদাহরণও তুলে ধরবেন বলে জানান তারা। সংগঠনের ট্রেজারার আবিদুল ইসলাম আরজুর ভোট অব থ্যাংকস-এর মধ্য দিয়ে সেমিনারের সমাপ্তি ঘটে। সূত্র: মানবজমিন