“চল পালাই” বিশ্বাস দিলো তমাকে, শিপন ও শাহরিয়াজ।

এ আল মামুন এ আল মামুন

বিনোদন প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ১১:৪০ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ৬, ২০১৭ | আপডেট: ৭:২৪:পূর্বাহ্ণ, নভেম্বর ৭, ২০১৭
“চল পালাই” বিশ্বাস দিলো তমাকে, শিপন ও শাহরিয়াজ।

পালাতে কি রাজি হবে তমা?

এ আল মামুন, বিনোদন প্রতিবেদক: দেবাশীষ বিশ্বাস নামটি নেয়ার সাথে সাথে মনের পর্দায় ভেসে উঠে ‘শ্বশুর বাড়ি জিন্দাবাদ’ নামক ব্যাবসা সফল ছবিটির নাম। সেই প্রখ্যাত চলচ্চিত্র নির্মাতা দেবাশীষ বিশ্বাস এবার নির্মাণ করেছেন নতুন ছবি ‘চল পালাই’। এই ছবির সকল কাজ ইতিমধ্যে সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন হয়েছে। একটি ব্যতিক্রমধর্মী প্রেম কাহিনী নিয়ে পরিচালক দেবাশীষ বিশ্বাস নির্মাণ করেছেন এই চলচ্চিত্র। চলচ্চিত্রটির প্রধান তিনটি চরিত্রে অভিনয় করেছেন, তমা মির্জা, শাহরিয়াজ ও শিপন।

তমা মির্জা বলেনঃ দেবাশীষ দাদা একজন গুনী নির্মাতা, তার চলচ্চিত্র সম্পর্কে অনেক কিছু বলার দরকার হয়না। দেবাশীষ বিশ্বাস মানেই দর্শক চাহিদার পূর্ণতায় ভরপুর একটি ভালো চলচ্চিত্র, প্রতিটি সেকেন্ড দর্শক মুগ্ধ থাকবে “চল পালাই” সিনেমার দেখার সময়। আমি আশা করি এই চলচ্চিত্র আমার ক্যারিয়ারে এক নতুন মাত্রা যোগ করবে।
কাকে নিয়ে পালাবেন আপনি? শিপন নাকি শাহরিয়াজ? এমন প্রশ্ন করা হলে তমা মির্জা বলেন এই প্রশ্নের উত্তর আমি দর্শকদের দিবো প্রেক্ষাগৃহে। সবাইকে আমার অনুরোধ হলে আসুন ছবিটি দেখতে।

“চল পালাই” সম্পর্কে বলতে গিয়ে শাহরিয়াজ বলেন, দেবাশীষ দাদা আমাকে যখন গল্পটা শোনালেন আমি মুগ্ধ হয়ে গেলাম। দাদা বললেন এটা তোকে ছাড়া হবে না। তারপর আমরা অনেক মজা করে ছবির শ্যুটিং করলাম। এর আগে ত্রিভূজ প্রেমের ছবি হয়েছে অনেক, কিন্তু “চল পালাই” সত্যিই একটু ভিন্ন ধরনের। কমেডি থ্রিলার ফিল্ম যেটাকে বলে। শ্যুটিং শেষ করে আমরা যখন ডাবিং এ অংশ নেই তখন মনে হয়েছে যে এটা কোন সাধারণ ছবি হতে যাচ্ছে না। সেরা একটা ছবি হবে ‘চল পালাই’। ছবিটা নিয়ে আমি অনেক আশাবাদী। এটা নিয়ে আর কিছু বলতে চাই না শুধু বলব এই ছবিটা আমার জীবনের একটা বিশাল টার্নিং পয়েন্ট হবে ইনশাহ্আল্লাহ। এই ছবিতে আমার সাথে ছিলেন শিপন ও তমা মির্জা। ওরা দুজনই ভীষণ কো-অপারেটিভ।

শিপন বলেন, যেহেতু দেবা দাদার রক্তে মিশে আছে চলচ্চিত্র নির্মাণ সেহেতু তার শ্যুটিং ইউনিট থাকে খুব গোছানো ও ওয়েল অর্গানাইজড। ‘চল পালাই’ তেমনি একটি গোছানো কাজ। ছবিটির গল্পে বেশকিছু বাঁক রয়েছে, যা দর্শকদের হলে বসিয়ে রাখবে।

নির্মাতা দেবাশীষ বিশ্বাস জানান, গত বছরের শুরুতে একটি বিপদজনক সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম। আমার কমফোর্টেবল জোন রোমান্টিক-কমেডি থেকে বেরিয়ে এসে একটি থ্রিলার সিনেমা বানাব। ‘চল পালাই’ তারই সিদ্ধান্তের ফসল। বাকিটা ছবি দেখার পর দর্শকরাই ভালো বলতে পারবেন।

তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশের কোনো ছবির ব্যাকগ্রাউন্ড মিউজিকের কাজ প্রথমবারের মত একইসাথে আমেরিকা ও ভারতের চেন্নাই থেকে করানো হবে।
ছবি মুক্তি সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি জানান,ছবিটির সব কাজ শেষ। এখন শুধু মুক্তির পালা। সেন্সরবোর্ড থেকে ছাড়পত্র পেয়ে গেলেই আগামী অক্টোবরের যেকোনো শুক্রবার ‘চল পালাই’ ছবিটি দেশব্যাপী মুক্তি দেওয়া হবে।
তমা মির্জা, শাহরিয়াজ, শিপন ছাড়াও “চল পালাই” ছবিতে আরো অভিনয় করেছেন সাদেক বাচ্চু, রেবেকা, শিমুল খান, জাদু আজাদ ও আহমেদ শরীফসহ আরো অনেকে।
ছবিটি প্রযোজনা করছে লাইভ টেকনোলজিস। ছবির টাইটেল স্পন্সর ‘আরএফএল অরনেট সিরিজ’ এবং কুলিং পার্টনার ‘আইস এইজ পার্লার’।