কিংবদন্তি অভিনেত্রী শ্রীদেবী আর নেই

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ৮:৩৯ পূর্বাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ২৫, ২০১৮ | আপডেট: ৮:৩৯:পূর্বাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ২৫, ২০১৮

ইমতিয়াজ মেহেদী হাসান : ভারতের কিংবদন্তি অভিনেত্রী শ্রীদেবী মারা গেছেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৫৪ বছর।

দুবাইয়ের স্থানীয় সময় শনিবার রাতে তিনি সবাইকে শোকসাগরে ভাসিয়ে না ফেরার দেশে পাড়ি জমান। সেখানে তিনি একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে যোগ দিতে গিয়েছিলেন। অনুষ্ঠান চলাকালে হঠাৎ এই অভিনেত্রীর হৃৎদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে গেলে সেখানেই তার মৃত্যু হয়। এসময় শ্রীদেবীর স্বামী বনি কাপুর ও তার ছোট মেয়ে খুশি সঙ্গে উপস্থিত ছিল। শ্যুটিং-এ ব্যস্ত থাকায় সঙ্গে ছিলেন না বড় মেয়ে জাহ্নবী।

ঘটনা নিশ্চিত করে শ্রীদেবীর দেবর সঞ্জয় কাপুর বলেন, ‘এটা সত্যি যে শ্রীদেবী মারা গেছেন। আমি মাত্রই আসলাম। ১১-১১:৩০ এর দিকের ঘটনা।’

শ্রীদেবীর আসল নাম শ্রী আম্মা ইয়াঙ্গার আয়পান। তাকে ভারতীয় চলচ্চিত্রের প্রথম নারী সুপারস্টার বলা হয়। কারণ তিনিই প্রথম ও একমাত্র অভিনেত্রী, যিনি দক্ষিণ ভারত এবং বলিউডে সমানভাবে সফল। ভিন্ন ঘরানা থেকে পুরোপুরি বাণিজ্যিক, সব ধরনের ছবিতেই তিনি স্বাচ্ছন্দে অভিনয় করেছেন।

১৯৬৭ সালে শিশুশিল্পী হিসেবে চলচ্চিত্রে যাত্রা শুরু হয় শ্রীদেবীর। এরপর ১৯৭৫ সালে ১৩ বছর বয়সে ‘জুলি’ সিনেমায় অভিনয় করে তিনি সবার প্রশংসা কুড়ান। তারই ধারাবাহিকতায় ১৯৭৮ সালে ‘সোলবা শাওন’ চলচ্চিত্রে চিত্রনায়িকা হিসেবে তার অভিষেক হয়।

শ্রীদেবীর বর্ণাঢ্য ক্যারিয়ারের মোড় ঘুরিয়ে দিয়েছিল ১৯৮৩ সালে মুক্তি পাওয়া ‘সাদমা’ চলচ্চিত্রটি। এই সিনেমায় তার অভিনয় দর্শকমনে আলাদা একটি জায়গা করে নেয়। এরপর আর তাকে থামায় কে? একে একে দর্শকদের উপহার দিয়ে গেছেন মাওয়ালি, মিস্টার ইন্ডিয়া, চাঁদনী, তোহফাহ, চালবাজ, লামহে, গুমরাহ, নাগিনা, জুদাই’র মত সব জনপ্রিয় চলচ্চিত্র। স্বীকৃতিস্বরুপ ২০১৩ সালে পেয়েছেন ভারতের ‘পদ্মশ্রী’ পুরস্কার।

বিভিন্ন ভাষার প্রায় ৩০০ চলচ্চিত্রে তিনি অভিনয় করেছেন। তার অকস্মাৎ এই মৃত্যুতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে শোক প্রকাশ করেছেন রীতেশ দেশমুখ, রাজকুন্দ্রা, সুস্মিতা সেন, প্রিয়াংকা চোপড়ার মত বলিউড তারকারা।

টুইটে প্রিয়াংকা চোপড়া লিখেছেন, ‘ভাষা হারিয়ে ফেলেছি….যারা শ্রীদেবীকে ভালোবাসতেন, তাদের জন্য সমবেদনা…একটা অন্ধকার দিন এটা’।

রীতেশ লিখেছেন, ‘ভয়ংকর এক খবর। শোকে ভাষা হারিয়ে ফেলেছি। শ্রীদেবী নেই…শান্তিতে ঘুমাক তার আত্মা’।