ঢাকা, ||

হিরের আংটি নিয়ে গজাল যে গাজর!


আন্তর্জাতিক

প্রকাশিত: ১১:৩২ পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ১৭, ২০১৭

আব্দুল্লাহ আল নোমান

বরগুনা প্রতিনিধি

 

বিয়ের আংটি হারিয়ে কী বিপাকেই না পড়ে ছিলেন মেরি গ্রামস! এ জ্বালা না পারেন সইতে, না পারেন কাউকে কইতে। স্বামী বেচারা জানতে পারলে কষ্ট পাবেন না! জানতে পেরেছিলেন কেবল তাঁর ছেলেটি। ১৩ বছর বুকে চেপে থাকা এই কষ্ট থেকে তাঁকে মুক্তি দিয়েছে সামান্য একটি গাজর। মেরির এই যক্ষের ধন ধারণ করেই বেড়ে ওঠে গাজরটি।

১৩ বছর আগে হিরের আংটি হারিয়ে গিয়েছিল কানাডীয় নারী মেরি গ্রামসের। আংটিটি ছিল বিয়ের। স্বামী দুঃখ পাবেন ভেবে সে কথা জানাননি তাঁকে। বলেছিলেন কেবল ছেলেকে।

বিবিসি অনলাইনের খবরে জানানো হয়, গত সোমবার ৮৪ বছর বয়সী মেরির পুত্রবধূ কলিন দালে আংটিটি খুঁজে পেয়েছেন। বাড়ির বাগান থেকে নৈশভোজের জন্য গাজর তুলতে গিয়েছিলেন দালে। ধোয়ার সময় দেখেন, গাজরটি হিরের আংটির ভেতর দিয়ে বেড়ে উঠেছে। ব্যাপারটি জানার পর মেরির ছেলে বুঝতে পারেন, এটিই মায়ের সেই হারিয়ে যাওয়া আংটি।

২০০৪ সালে অ্যালবার্টায় পারিবারিক বিয়ের অনুষ্ঠান চলাকালে মেরি তাঁর ওই আংটি হারিয়ে ফেলেন। হয়তো বাগানের কোনো জায়গায় আংটিটি দীর্ঘদিন পড়ে ছিল। পরে সেখানেই গজিয়ে ওঠে গাজরটি।

গাজরের মধ্যে হারানো আংটি খুঁজে পাওয়ার ঘটনা নতুন নয়। ২০১১ সালে সুইডিশ এক নারী হারিয়ে যাওয়ার ১৬ বছর পর গাজরের মধ্যে তাঁর সেই আংটি খুঁজে পেয়েছিলেন।

Top