ঢাকা, ||

হরিণাকুণ্ডু থেকে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রী নিখোঁজ


দেশজুড়ে

প্রকাশিত: ৯:০১ পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ১৫, ২০১৭

আব্দুল্লাহ আল নোমান

বরগুনা প্রতিনিধি

ঝিনাইদহের হরিণাকুণ্ডু উপজেলার মোকিমপুর গ্রাম থেকে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) শিক্ষার্থী স্মৃতি খাতুন নিখোঁজ হয়েছেন। নিখোঁজের পাঁচদিনেও তার সন্ধান মেলেনি। এ বিষয়ে ইবি থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি ও বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরের কাছে লিখিত অভিযোগ দেয়া হয়েছে। স্মৃতি খাতুন হরিণাকুণ্ডুর মোকিমপুর গ্রামের মনোয়ার হোসেনের মেয়ে। স্মৃতির চাচাতো ভাই মাসুম রানা জানান, গত বুধবার সকালে স্মৃতি ক্যাম্পাসের উদ্দেশ্যে বাসা থেকে বের হন। সেই থেকে তাকে আর পাওয়া যাচ্ছে না। তাকে না পেয়ে চাচা ঝিনাইদহ ট্রাক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মনোয়ার হোসেন ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় (ইবি) থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (নং-৩১৯) করেন। স্মৃতি খাতুন বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের ২০১২-১৩ শিক্ষাবর্ষের ছাত্রী। স্মৃতির পিতা মনোয়ার হোসেন জানান, স্মৃতি ক্লাস করার উদ্দেশ্যে বুধবার সকালে বাসা থেকে বের হয়। এরপর সে আর বাড়িতে ফেরেনি। আত্মীয়স্বজনদের বাসায় খোঁজ নেয়া হয়েছে। কিন্তু কোথাও তার সন্ধান পাওয়া যাচ্ছে না। স্মৃতি বিবাহিত বলেও পিতা মনোয়ার হোসেন জানান। তিনি অভিযোগ করেন, স্মৃতি কলেজে পড়ার সময় হরিণাকুণ্ডু উপজেলার হরিশপুর গ্রামের আবুল হোসেনের ছেলে রনি তার মেয়েকে কিডন্যাপ করার হুমকি দেয়। সে সময় রনি হুমকি দিয়ে আমার মেয়ের কাছে বলেছিলো এমন এক দিন আসবে যখন তোমার বাবাকে আমার পা ধরতে হবে। এতে ওই ছেলের প্রতি তার সন্দেহ জন্মেছে বলেও মনোয়ার জানান। এ বিষয়ে জানতে চাইলে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক মাহবুবর রহমান বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে তাকে খুঁজে বের করার সর্বোচ্চ চেষ্টা করা হচ্ছে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সব বিভাগের সঙ্গে কথা বলে বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে দেখতে বলা হয়েছে। গত রোববার থেকে ইবির বিভিন্ন প্রান্তে বসানো সিসিটিভি ক্যামেরা পরীক্ষা করে দেখা হচ্ছে বলেও প্রক্টর জানান। বিষয়টি নিয়ে ইবি থানার ওসি রতন শেখ বলেন, স্মৃতিকে খুঁজে বের করে পরিবারের কাছে পৌঁছে দিতে সর্বোচ্চ চেষ্টা করা হচ্ছে। ইতিমধ্যেই তার কললিস্ট মোবাইল অপারেটরদের কাছে চাওয়া হয়েছে। এছাড়াও দেশের সব থানায় তার ছবি এবং তথ্য দেয়া হয়েছে বলেও জানান ওসি

Top