ঢাকা, ||

স্ত্রী-শাশুড়িসহ তুফানকে ফের রিমান্ডে চাইবে পুলিশ


অপরাধ

প্রকাশিত: ৫:৫৪ অপরাহ্ণ, আগস্ট ৩, ২০১৭

দীন মোহাম্মাদ দীনু

বাকেরগঞ্জ প্রতিনিধি

বগুড়ায় এক ছাত্রীকে ধর্ষণ ও মাসহ তাকে ন্যাড়া করার মামলার প্রধান আসামি শ্রমিক লীগ নেতা তুফান সরকার, তার স্ত্রী আশা খাতুন ও তুফানের শাশুড়ি রুমা খাতুনের আবারও রিমান্ড চাইবে পুলিশ। আজ বুধবার তাদের রিমান্ড শেষ হচ্ছে। এ জন্য বুধবার দুপুরে বগুড়ার অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শ্যাম সুন্দর রায়ের আদালতে তুলে তাদের আবারও রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন করা হবে। বগুড়া সদর থানার ওসি এমদাদ হোসেন এ তথ্য জানিয়েছেন।

পুলিশ জানায়, গত ১৭ জুলাই ভালো কলেজে ভর্তির প্রলোভন দেখিয়ে ওই কিশোরীকে ধর্ষণ করে তুফান। ঘটনার ১০ দিন পর গত শুক্রবার তুফান সরকারের স্ত্রী আশা ও তার বড় বোন বগুড়া পৌরসভার সংরক্ষিত ওয়ার্ডের নারী কাউন্সিলর মার্জিয়া হাসান রুমকির নেতৃত্বে কয়েকজন ওই কিশোরী এবং তার মাকে বাড়ি থেকে তুলে নেয়। পরে শহরের চকসূত্রাপুর এলাকায় কাউন্সিলর রুমকির বাড়িতে নিয়ে তাদের মাথা ন্যাড়া করে বেধড়ক পেটানো হয়।

পরে রাত পৌনে ১০টার দিকে ওই কিশোরী ও তার মাকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ ঘটনায় শ্রমিক লীগ বগুড়া শহর শাখার আহ্বায়ক (বরখাস্তকৃত) তুফান সরকার ও তার তিন সহযোগীকে পুলিশ শুক্রবার রাতেই গ্রেপ্তার করে।

এর আগে শুক্রবার শুক্রবার রাতে তুফান সরকার, তার স্ত্রী আশা এবং স্ত্রীর বড় বোন ওয়ার্ড কাউন্সিলর রুমকিসহ ১০ জনের বিরুদ্ধে দুটি মামলা করা হয়। রবিবার আসামিদের হাজির করে সাত দিন করে রিমান্ড চাওয়া হয়।
আদালত শুনানি শেষে প্রত্যেকের তিন দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করে।

Top