ঢাকা, ||

সতীনের ছোঁড়া গরম পানিতে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে সতীন


লিড নিউজ

প্রকাশিত: ১২:১৩ পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৪, ২০১৭

আব্দুল্লাহ আল নোমান

বরগুনা প্রতিনিধি

বড় সতীনের ছোঁড়া গরম পানিতে শরীরের বিভিন্ন অংশ ঝলসে হাসপাতালে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে ছোট সতীন। ঘটনাটি ঘটেছে জেলার আগৈলঝাড়া উপজেলার বাগধা ইউনিয়নের সোমাইরপাড় গ্রামে।

বুধবার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়া গৃহবধু (ছোট সতীন) সুবর্ণা অধিকারী (১৯) জানান, গত ৩০ বছর পূর্বে তার স্বামী সত্য রঞ্জন অধিকারী বড় সতীন কাজলী রানীকে বিয়ে করেন। দাম্পত্য জীবনে তাদের কোন সন্তান না হওয়ায় বড় সতীন কাজলী রানীর সম্মতিতে এক বছর আগে তাকে দ্বিতীয় স্ত্রী হিসেবে বিয়ে করেন। বিয়ের পর প্রথমে তাদের দুই সতীন বেশ কিছুদিন স্বাভাবিক জীবন যাপন করেন। এরইমধ্যে কয়েক মাস পূর্বে তাদের দুই সতীনের মধ্যে ঝগড়া বিবাদ শুরু হয়। এঘটনার জেরধরে বড় সতীন কাজলী রানী ঘটনার দিন রবিবার রাত দশটার দিকে কৌশলে তার (ছোট সতীন) সুবর্ণার শরীরে এক গামলা গরম পানি ছুঁড়ে মারে। এতে তার শরীরের বিভিন্ন অংশ ঝলসে যায়। বিষয়টি প্রথমে গোপন রাখে তার পরিবার। পরবর্তীতে অবস্থার অবনতি হলে সোমবার সকালে তাকে (সুর্বণা) অতিগোপনে উপজেলা দুঃস্থ মানবতা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বুধবার দুপুরে বিষয়টি সর্বত্র জানাজানি হলে ব্যাপক তোলপাড় শুরু হয়।

হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক আশ্রাফুল ইসলাম শাওন জানান, সুবর্ণার শরীরের বিভিন্ন অংশের অন্তত ২০ শতাংশ ঝলসে গেছে। স্বামী সত্য রঞ্জন অধিকারী বলেন, তাদের মধ্যে প্রায়ই ঝগড়া বিবাদ হলেও ঘটনার দিন কোন ঝগড়া হয়নি। সুবর্ণার বাবা উজিরপুর উপজেলার সাতলা গ্রামের হারান বাইন জানান, এ ঘটনায় তিনি মামলা দায়েরের প্রস্তুতি নিয়েছেন।

Top