ঢাকা, ||

যে কারণে শুরু ব্যাক পেইন


উপরের চার নিউজ

প্রকাশিত: ১:২৯ অপরাহ্ণ, আগস্ট ২৬, ২০১৭

আব্দুল্লাহ আল নোমান

বরগুনা প্রতিনিধি

সামান্য সময়ের জন্য ভারী ওজন তোলা হোক, অতি ভারী ওজন তুলতে গেলে দুর্ঘটনাক্রমে এমনটা ঘটতে পারে। যদি নুইয়ে পড়ে ওজন তোলার পদ্ধতিটা ঠিক না হয়, তাহলেই বিপদ। পেছনের পেশিতে প্রচণ্ড টানে তাৎক্ষণিক শুরু হবে ব্যাক পেইন। অসুস্থ হয়ে পড়বেন। ভারী কিছু তোলার আগে স্কোয়াট পদ্ধতি প্রয়োগ করুন। সরাসরি কোমড় ভাঁজ করে তুলতে গেলে যন্ত্রণা ভোগ করতে হবে।

দীর্ঘক্ষণ বসে থাকা :
অফিসে এমন সমস্যায় প্রায়ই পড়তে হয়। চেয়ারে বসে কাজ করতে করতে ঘণ্টার পর ঘণ্টা পার হয়ে যায়। আর পিঠের পেশিতে ব্যথা সৃষ্টি হতে থাকে। তাই দীর্ঘক্ষণ চেয়ারে বসে কাজের বদভ্যাস পরিত্যাগ করুন।

বিশেষজ্ঞরা বলেন, এক ঘণ্টা পরপর অন্তত পাঁচ মিনিটের জন্য চেয়ার থেকে উঠে হেঁটে আসতে হবে।

ভুল উপায়ে স্ট্রেচিং :
ইয়োগা বা অন্যান্য পদ্ধতিতে স্ট্রেচিং করা ভালো। কিন্তু ভুল করলেই বিপদ। এতে করে পিঠের পেশিতে টান পড়বে। ব্যথা সৃষ্টি হবে। ভুল এড়াতে ইয়োগা চর্চা দারুণ পরিকল্পনা।

তুলতুলে বিছানা :
অনেকে আরামের জন্য একেবারে তুলতুলে নরম ম্যাট্রেস ব্যবহার করে। এতেও কিন্তু ব্যাক পেইনের সৃষ্টি হয়। কারণ নরম ম্যাট্রেস কখনো পেছনের অংশে আদর্শভাবে চাপ সৃষ্টি করতে পারে না। তাছাড়া মেরুদণ্ডও স্বাস্থ্যকরভাবে অবস্থান করতে পারে না।

ভারী ব্যাগ বহন :
এখন তো ছোট ছোট ছেলে-মেয়েকে ভারী ব্যাগ নিয়ে স্কুলে যেতে দেখা যায়। অনেকের পেশাগত কারণে ভার বইতে হয়। এতে করে কাঁধ ও পিঠে ব্যাপক চাপের সৃষ্টি হয়। দেহে ভারসাম্যহীন অবস্থা তৈরি হয়।

ভাঙা রাস্তায় গাড়ি চালানো:
এমন রাস্তায় মাঝে মাঝে গাড়ি চালাতেই হয়। কিন্তু যদি ভাঙা রাস্তায় নিয়মিত গাড়ি চালাতে হয়, তাহলে পিঠে ব্যথা হবে। ঝাঁকিতে পিঠের পেশি ও সংযোগস্থলে যন্ত্রণা হয়। আবার ড্রাইভিংয়ের সময় আসনটি ঠিকঠাকমতো বসে থাকে কি না তাও দেখতে হবে।

Top