ঢাকা, ||

মাশরাফি বলেছিলেন,’মাহমুদুল্লাহ না খেললে আমি খেলব না


খেলাধুলা

প্রকাশিত: ৬:৫৩ অপরাহ্ণ, আগস্ট ১৯, ২০১৭

দীন মোহাম্মাদ দীনু

বাকেরগঞ্জ প্রতিনিধি

শ্রীলঙ্কা সফরের সময় মাহমুদ উল্লাহকে নিয়ে যা হয়েছে তা নিয়ে ক্রিকেটপ্রেমীদের মধ্যে মিশ্র প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছিল। সেই সময় ধারাবাহিকতার অভাবে ভুগছিলেন মাহমুদ উল্লাহ। তবে ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজার কারণে ওয়ানডে সিরিজে খেলেছিলেন তিনি। এবার অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে দুই টেস্টের হোম সিরিজে বাদ পড়লেন দল থেকে। টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান মুমিনুল হককেও রিয়াদের ভাগ্যই বরণ করতে হলো।

চলতি বছর শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে গল টেস্টে ব্যর্থ হয়েছিলেন মাহমুদ উল্লাহ। এরপরই গুঞ্জন ওঠে তাকে বাদ দেওয়ার ব্যাপারে। যে কারণে শততম টেস্টে খেলতে পারেননি

ময়মনসিংহের এই তারকা অল-রাউন্ডার এমনকি ওয়ানডে সিরিজ থেকেও বাদ দেওয়ার পরিকল্পনা ছিল বোর্ডের। তখন অধিনায়ক মাশরাফি বলেছিলেন, ‘ মাহমুদুল্লাহ না খেললে আমি খেলব না। ‘

অধিনায়কের এই দৃঢ় মনোভাবের কারণে সুযোগ পান মাহমুদ উল্লাহ। এরপর চ্যাম্পিয়নস ট্রফিতে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচ জেতানো সেঞ্চুরি আর সাকিব আল হাসানের সঙ্গে দুর্দান্ত জুটি গড়ে নিজেকে আবারও প্রমাণ করেন তিনি।
ওই ম্যাচ জিতে বাংলাদেশ প্রথমবারের মত চ্যাম্পিয়নস ট্রফির সেমিফাইনালে উঠেছিল।

কিন্তু টেস্ট থেকে তাকে বাদ দেওয়ার মনে হয় একটা পরিকল্পনাই আছে বিসিবির। অজিদের বিপক্ষে যে মাহমুদ উল্লাহ আর মুমিনুল খেলছে না তার আভাস পাওয়া গিয়েছিল দুই দিন আগেই। চট্টগ্রাম থেকে ফিরে মিরপুর শের-ই-বাংলায় জাতীয় দলের অনুশীলনে অনুপস্থিত ছিলেন এই দুজন।

অবশ্য চট্টগ্রামে ৩ দিনের প্রস্তুতি ম্যাচেও ভালো করতে পারেননি মাহমুদ উল্লাহ। মুশফিক একাদশের হয়ে ব্যাটিংয়ে নেমে ০ রানেই আউট হয়েছেন। অন্যদিকে প্রস্তুতি ম্যাচের সর্বোচ্চ ৭৩ রান করেও নির্বাচকদের মন ভরাতে পারেননি বাংলাদেশের ‘টেস্ট স্পেশালিস্ট’ খ্যাত মুমিনুল। বাংলাদেশের ক্রিকেটের নির্ভরতার প্রতীক মাহমুদ উল্লাহ কি তবে ব্রাত্য হয়ে পড়লেন টেস্ট দলে?

Top