ঢাকা, ||

বিশ্ববিদ্যালয়ে ছেলে-মেয়ে একসঙ্গে বসতে মানা


ক্যাম্পাস

প্রকাশিত: ১১:২৬ পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ৭, ২০১৭

দীন মোহাম্মাদ দীনু

বাকেরগঞ্জ প্রতিনিধি

বিশ্ববিদ্যালয়ে ছেলে-মেয়ে একসঙ্গে গল্প করতে পারবে না। শুধু তাই নয় পাশাপাশি বসতেও পারবে না তারা। এমন নতুন নিয়ম চালু করেছে পাকিস্তানের খাইবার পাখতুনখোয়া প্রদেশের ইউনিভার্সিটি অব হাজারা (ইউওএইচ)। শিক্ষার মান বজায় রাখতেই নাকি এমন নিয়ম চালু করা হয়েছে। যেসব ছাত্র-ছাত্রীরা এই নিয়ম মানবে না তাদের শাস্তিও পেতে হবে বলে জানানো হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসন থেকে এক সার্কুলারে বলা হয়েছে, ছাত্র-ছাত্রীরা এক সঙ্গে সময় কাটিয়ে বা গল্প-গুজব করে অযথা সময় নষ্ট করে। গল্প-গুজব করতে গিয়ে তারা ঠিকমত ক্লাসে উপস্থিত থাকে না এমনটাও দেখা গেছে। তাই কর্তৃপক্ষ এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে যে, ক্যাম্পাসে ছেলে-মেয়েদের এক সঙ্গে মেলামেশা বা গল্প করা নিষিদ্ধ। সংশ্লিষ্ট সবাইকে অনুরোধ করা হয়েছে তারা যেন এই নিষেধাজ্ঞা মেনে চলে এবং কর্তৃপক্ষকে সহযোগিতা করে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের এক প্রশাসনিক কর্মকর্তা দ্য ন্যাশনকে জানিয়েছেন, নতুন এই সার্কুলার শুধুমাত্র সব ডিপার্টমেন্টেই জারি করা হয়নি বরং তা বাস্তবায়নে বিভিন্ন বোর্ডেও তা নোটিশ হিসেবে দিয়ে দেয়া হয়েছে।

৭৫ শতাংশ উপস্থিতি না থাকলে বিশ্ববিদ্যালয়ে পরীক্ষায় অংশ নেয়া যায় না। প্রশাসন ছাত্র-ছাত্রীদের ক্লাসে উপস্থিতি বাড়ানো এবং তাদের পড়াশুনার প্রতি মনোযোগী করতেই নতুন এই নিয়ম চালু করেছে।

এই নিয়ম অমান্য করলে ছাত্র-ছাত্রীদের জরিমানা প্রদান করতে হবে। নির্দেশ অমান্যকারীকে প্রোক্টরিয়াল বোর্ড এবং তাদের নিজস্ব বিভাগে ২শ থেকে ৫ হাজার রুপি প্রদান করতে হবে। বিশ্ববিদ্যালয়ের পদার্থ বিভাগের ছাত্র শওকত আহমেদ দ্য ন্যাশনকে বলেন, নতুন এই নীতি খুবই অপমানজনক। প্রশাসন কোনো ছেলে-মেয়েকে এক সঙ্গে পেলে প্রথমেই তাদের মধ্যে কি সম্পর্ক তা জিজ্ঞেস করে। এরপর তাদের পরিবারের সদস্যদের নাম খতিয়ে দেখা হয়।

Top