ঢাকা, ||

বরিশালে চেক প্রতারণায় বলরাম পালকে ৭ মাস জেল


আইন আদালত

প্রকাশিত: ১২:১২ পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ২৯, ২০১৭

আব্দুল্লাহ আল নোমান

বরগুনা প্রতিনিধি

দিয়ে প্রতারণা করায় বরিশাল নগরীর পুরাতন হাটখোলা এলাকার ব্যবসায়ী বলরাম পালকে ৭ মাস কারাদণ্ডসহ চেকের সমপরিমান টাকা অর্থদণ্ড দিয়েছে আদালত। ২৮ আগস্ট সোমবার ৪র্থ যুগ্ম দায়রা জজ মাসুম বিল্লাহ বিচারাধীন আদালত তার অনুপস্থিতিতে তাকে কারাদন্ডের সাথে ৬ লাখ ২৫ হাজার ৩শ ১৫ টাকা অর্থদন্ড দেন।আদালত সূত্র জানায়,বলরামেরর বিরুদ্ধে ২০১৪ সালের ১৫ জানুয়ারি মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলা দায়ের করেন ব্রাক ব্যাংকের এসোসিয়েট ম্যানেজার সফিউল ইসলাম ।

অভিযোগে তিনি বলেন, ব্যবসায়িক প্রয়োজনে বলরাম ২০১০ সালের ২৮ নভেম্বর ব্যাংক হতে ৬ লাখ ৪৯ হাজার ২শ ১৬ টাকা লোন নেয়।তার কাছে ৬ লাখ ২৫ হাজার ৩ শ ১৫ টাকা পাওনা হলে সে ২০১৩ সালের ৭ নভেম্বর ওই টাকার চেক দেয়।৫ ডিসেম্বর নগদায়নের জন্য চেকটি ব্যাংকে জমা দেয়া হলে তার একাউন্টে পর্যাপ্ত ব্যালেন্স না থাকায় প্রত্যাখ্যাত হয়।৯ ডিসেম্বর লিগ্যাল নোটিশ দিয়ে টাকা ফেরত চাইলেও তিনি টাকা ফেরত দেয়নি।এভাবে মামলা দায়েরের পর আদালত একজনের সাক্ষ্য গ্রহণ করে সত্যতা প্রমান করতে সক্ষম হয়।সাক্ষী প্রমানে দোষী সাব্যস্ত হলে আদালত তাকে ওই সাজা দেন।আসামী পলাতক থাকায় তার বিরুদ্ধে সাজা পরোয়ানা ও গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করা হয়।একইসাথে রায়ে দুইমাসের মধ্যে জরিমানা দিতে ব্যর্থ হলে বাদীকে মালক্রোকী আইনের মাধ্যমে টাকা আদায়ের আদেশ দেয়া হয়।

Top