ঢাকা, ||

নতুন বউয়ের গলা কেটে পাশেই শুয়ে ছিলেন স্বামী!


অপরাধ

প্রকাশিত: ৪:৩৯ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৩, ২০১৭

আব্দুল্লাহ আল নোমান

বরগুনা প্রতিনিধি

বগুড়ায় নিজেদের ঘর থেকে নতুন বউ ফাতেমা আকতারের (১৯) গলাকাটা লাশ উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন পুলিশ। বগুড়া শহরের চকফরিদ এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ফাতেমার বাবার বাড়ি নাটোরের সিংড়া উপজেলায়।এ ঘটনায় ফাতেমা আকতারের স্বামী সুজনকে (২২) গ্রেফতার করা হয়েছে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, চকফরিদ এলাকার আবদুর রশিদের ছেলে সুজন মিয়া পেশায় রংমিস্ত্রি। মাত্র ২২ দিন আগে ফাতেমা আকতারকে বিয়ে করেন সুজন। সুজন মিয়ার বাবাসহ পরিবারের একাধিক সদস্য মানসিক রোগী। তবে সুজন মানসিকভাবে সুস্থ। নববিবাহিত স্ত্রীকে নিয়ে গতকাল মঙ্গলবার রাতে ঘুমাতে যান সুজন। রাতের কোনো এক সময় শোয়ার ঘরে থাকা চাকু দিয়ে স্ত্রীকে গলা কেটে খুন করেন। স্ত্রীকে খুন করার পর তার মৃতদেহের পাশেই শুয়ে ছিলেন সুজন। এরপর সেই চাকু দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা চালান। বিষয়টি টের পেয়ে সুজনের বৃদ্ধা দাদি ঘরে তালা দিয়ে সুজনকে আটকে রেখে প্রতিবেশীদের খবর দেন। পরে তাঁদের কাছ থেকে খবর পেয়ে আজ সকাল ৮ টার দিকে সেখানে যায় পুলিশ। ঘরের তালা খুলে দেখা যায়, ফাতেমার মৃতদেহ বিছানায় পড়ে রয়েছে। আর আত্মহত্যার চেষ্টাকারী সুজন মিয়া আহত অবস্থায় মৃতদেহের পাশে শুয়ে আছেন। পুলিশ মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজের মর্গে পাঠায়। সুজনকে গ্রেফতার করে চিকিৎসার জন্য একই হাসপাতালে পাঠানো হয়।

ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে বগুড়া সদর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আছলাম আলী বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সুজন তেমন কিছু বলেননি। হত্যাকাণ্ডের কারণ সম্পর্কে কিছু বোঝা যাচ্ছে না। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত মামলা হয়নি

Top