ঢাকা, ||

নওগাঁর আত্রাইয়ে বন্যার পরিস্থিতির চরম অবনতি


রংপুর

প্রকাশিত: ৬:১০ অপরাহ্ণ, আগস্ট ১৬, ২০১৭

আব্দুল্লাহ আল নোমান

বরগুনা প্রতিনিধি

রওশন পারভীন শিলা নওগাঁ প্রতিনিধি :- নওগাঁর আত্রাইয়ে বন্যার পরিস্থীতির চরম অবনতি হয়েছে।গতকাল বুধবার সকালে পাঁচুপুর- মধুগুড়নই নামকস্থানে বরেন্দ্র উন্নয়ন প্রকল্পের বাঁধ ও পাকা সড়ক ভেঙ্গে নতুন নতুন এলাকা প্লাবিত হচ্ছে। উপজেলার ৬টি ইউনিয়নের ২৪ টি গ্রামের ২হাজার ৫০০টি পরিবারের ১২হাজার ৫শ মানুষ পানি বন্দি হয়ে পড়েছে। পানিতে তলে গেগছে প্রায়১২০হেক্টরজমির ফসল। পাকা সড়ক ভেঙ্গে যাওয়ায় জেলা সহর সহ পাশর্^বতী উপজেলা সিংড়া ও নাটোর জেলার সাথে আত্রাই উপজেলার সম্পন্ন ও রাণীনগর উপজেলার আংশিক যোগাযোগ বন্ধ হয়ে গেছে।

তবে সরকারী ভাবে এখন এলাকায় পানীবন্দি বন্যার্ত মানুষের মাঝে পৌঁছেনি ত্রান সামগ্রী। জানা গেছে গত ক’দিনের একটানা ভারী বর্ষন ও উত্তরের উজান থেকে নেমে আসা ঢলের পানিতে উপজেলার পাঁচুপুর ইউপি’র সাহেবগঞ্জ,মালিপুকুর, পাঁচুপুর উজান পাড়া ও ভোঁপাড়া ইউপি’র ভরতেঁতুলিয়া গ্রামের বীরেন্দ্র নগর তহশিল অফিসের যাওয়ার রাস্তা ও পাঁচুপুরÑমধুগুড়নই তিন রাস্তার মোড় নামক স্থানে বরেন্দ্র প্রকল্পের পাকা সড়ক গতকাল বুধবার ভোর রাতে পর্যাক্রমে পানি রক্ষা বেড়িবাঁধ পানির চাপে ভেঙ্গে যায় এবং বুধবার থেকে সকাল থেকে আত্রাই- নাটোর ও নওগাঁ জেলা

শহরের সাথে আত্রাই উপজেলার যোগাযোগের একমাত্র পাকা সড়কের মালিপুকুর-পাঁচুপুর নামক দ’ুটি স্থানে ভাঙ্গনের ফলে আত্রাই উপজেলার সম্পন্ন এবং রাণীনগর উপজেলার আংশিক যোগাযোগ বন্ধ হয়ে গেছে। পাকা সড়ক ও বেঁড়িবাঁধ ভেঙ্গে বন্যার পানি প্রবেশ করায় উপজেলার পাঁচুপুর বিশা, ভোঁপাড়া,সাহাগোলা,আহসানগঞ্জ, কালিকাপুর, হাটকালুপাড়া ইউপি’র পাঁচুপুর,মাীলপুকুর, জগদাশ, শিকারপুর,সাহেবগঞ্জ, মধুগুড়নই,জয়সারা,খঞ্জর, নবাবেরতাম্বু,বিপ্রোবোয়ালিয়া,ভরতেঁতুলিয়া, কাশিয়াবাড়ি,ভোঁপাড়া, বলরামচক, মহাদিঘী, জামগ্রাম, কালিকাপুর,শলিয়া,বান্ধাইখাড়া, চকশিমলা,হাটকালুপাড়া গ্রাম সহ নদীর তীরবর্তী প্রায় ২৪টি গ্রাম প্লাবিত হয়েছে।

এতে ২৪টি গ্রামের প্রায়১২’হাজার ৫শ মানুষ পানি বন্দি হয়ে পড়েছে। এছাড়া ভোঁপাড়া, পাঁচুপুর,সাহাগোলা, বিশা,কালিকাপুর ও হাটকালুপাড়া ইউনিয়নের বেশ কিছু আবাদী জমির ফসল আক্রান্ত হয়েছে। বন্যার পানিতে ঘর-বাড়ি, এলাকার রাস্তাঘাট ও বেশ কয়েকটি প্রাথমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয় পানিতে তলিয়ে যাওয়ায় বন্যাকবলিত মানুষ আতœীয়-স্বজনের বাড়ি ও এলাকার বিভিন্ন বিদ্যালয়,পাকা রাস্তায় খোলা আঁকাশের নীচে ও উঁচু জায়গায় পরিবার-পরিজন ও গরু/ছাগল,হাঁস-মুরগী নিয়ে আশ্রয় নিয়েছে। স্থানীয় কৃষি অফিসের প্রাথমিক তথ্য অনুযায়ী এলাকার প্রায়১২০হেক্টর জমির সদ্য রোপণকৃতরোপা-াামন ধান বন্যার পানিতে তলে গেছে। পাশা-পাশি ওইসব এলাকার চাষকৃত অনেক পুকুর ডুবে গিয়ে লক্ষ লক্ষ টাকার মাছ ভেসে গেছে। এ ছাড়াও নওগাঁর আত্রাই সিংড়ার পাকা সড়কের বেশ কয়েকটি স্থানে ফাটল দেখা দিয়েছে।

তবে গত তি’দিন ধরে বন্যা দূর্গত মানুষের কাছে এখনো কোন ত্রান সহায়তা পৌঁছাইনি বলে জানিয়েছেন বন্যাদুর্গতরা।
আত্রাই উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোখলেছুর রহমান জানান,ন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ লোকজন ও পরিবারের তথ্য সংগ্রহের কাজ চলছে। বন্যা কবলিত এলাকার মানুষদের চিকিৎসা সেবা প্রদান করতে একটি মেডিক্যালটিম গঠন করা হয়েছে। তাছাড়া বন্যা কবলিত মানুষদের জন্য জরুরী ভিত্তিতেযে চাল বরাদ্ধ করা হয়েছে তা দূর্ত বিতরন করা হবে।

 

 

Top